হামলার নেপথ্যে মাওলানা জাহরান হাশিম

শ্রীলঙ্কার কলম্বোতে সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে এখন পর্যন্ত ২৯০ জন দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন ৫ শতাধিক মানুষ। ৩টি গির্জা, ৩টি হোটেলসহ অপর দু’টি স্থানে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়। আত্মঘাতী দুই জঙ্গি হিসেবে তদন্তকারী সংস্থা দু’টি নাম জনিয়েছে- মাওলানা জাহরান হাশিম এবং আবু মোহাম্মেদ।

শ্রীলঙ্কার কলম্বোতে সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে এখন পর্যন্ত ২৯০ জন দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন ৫ শতাধিক মানুষ। ৩টি গির্জা, ৩টি হোটেলসহ অপর দু’টি স্থানে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়। আত্মঘাতী দুই জঙ্গি হিসেবে তদন্তকারী সংস্থা দু’টি নাম জনিয়েছে- মাওলানা জাহরান হাশিম এবং আবু মোহাম্মেদ।

এরা দুজন ন্যাশনাল তাওহিদ জামায়াত (এনটিজে) নামের উগ্রপন্থি মুসলিম সংগঠনের সদস্য। হামলায় ব্যবহার করা হয় ২৫ কেজি সি-৪ প্লাস্টিক এক্সপ্লোসিভ।

যদিও এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ দায় স্বীকার করেনি। তবুও জানা গেছে, গত ১১ এপ্রিল শীর্ষ কর্মকর্তাদের কাছে সতর্কবার্তা পাঠান শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান পুজুথ জয়াসুন্দরা। বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার বরাত দিয়ে ওই সতর্কবার্তায় বলা হয়, উগ্রপন্থি মুসলিম সংগঠন এনটিজে শ্রীলঙ্কার প্রধান গির্জাগুলোতে আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা করছে। কলম্বোতে অবস্থিত ভারতীয় হাইকমিশনেও হামলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানানো হয় সতর্কবার্তায়।

এনটিজে শ্রীলংকার একটি মৌলবাদী মুসলিম সংগঠন। গত বছর বৌদ্ধ মূর্তি ভাঙার সঙ্গে যুক্ত থাকার মাধ্যমে সংগঠনটি নজরে আসে।

এদিকে শ্রীলঙ্কায় রাজধানী কলম্বোর একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অভিযান চালিয়ে অন্তত ৭ সন্দেহভাজনকে হামলাকারীকে গ্রেপ্তর করেছে দেশটির পুলিশ। কলম্বোতে ওই অভিযান চালাতে গিয়ে প্রাণ গেছে ৩ পুলিশ কর্মকর্তার।

পুলিশ বলছে, তারা এখন পর্যন্ত ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে ৭ জনকে গ্রেপ্তারের তথ্য জানিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, অন্য কোনো সংস্থা কর্তৃক বাকিদের আটক করা হয়েছে। তবে গ্রেপ্তারকৃতদের এখনো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। হামলাকারী এবং হামলার উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনো কিছুই জানা যায়নি।

Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
udemy paid course free download