হার্টে রিং পরানোর পরও পুনরায় ব্লক হতে পারে?

হার্টের ব্লক বর্তমান সময়ের সবথেকে আলোচিত এবং আতঙ্কের নাম। চর্বি জাতীয় পদার্থ জমা হতে হতে রক্তনালীর মধ্য দিয়ে রক্ত প্রবাহিত হওয়ার পথকে সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে বন্ধ (ব্লক) করে দেয়াকেই হার্টে ব্লক বলা হয়ে থাকে।

হার্টের ব্লক বর্তমান সময়ের সবথেকে আলোচিত এবং আতঙ্কের নাম। চর্বি জাতীয় পদার্থ জমা হতে হতে রক্তনালীর মধ্য দিয়ে রক্ত প্রবাহিত হওয়ার পথকে সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে বন্ধ (ব্লক) করে দেয়াকেই হার্টে ব্লক বলা হয়ে থাকে।

অর্থাৎ কোনো কারণে যদি ধমনি বা করোনারি আর্টারি সরু হয়ে যায় বা বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে করোনারি আর্টারির স্টেনোসিস হয়েছে বা ব্লক হয়েছে বলা হয়। হার্টের ব্লক দূরীকরণের চিকিৎসায় করোনারি এনজিওপ্লাস্টি বা রিং পরানো এবং বাইপাস সার্জারি আমাদের দেশে এখন খুব সাধারণ বিষয়।

রিং পরালে আবার ব্লক হতে পারে কি না, এমন প্রশ্ন অনেকেরই।

বিশেষজ্ঞের মতামত হচ্ছে, রিং পরানোর পর কিছু ক্ষেত্রে আবারও ব্লক সৃষ্টি হতে পারে। ব্লক হৃৎপিণ্ডের যেকোনো ধমনিতে হতে পারে, এমনকি আগের বসানো রিংয়েও হতে পারে। রিং বসানোর পরও পুনরায় ব্লক সৃষ্টি যেন হতে না পারে, সেজন্য চিকিত্সকের পরামর্শ অনুযায়ী নিয়মিত কিছু ওষুধ, যেমন রক্ত পাতলাকারী ওষুধ সেবন, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ, খাবার নিয়ন্ত্রণসহ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। নিয়ম ঠিকমতো না মানলে ব্লক সৃষ্টির আশঙ্কা অনেকাংশে বেড়ে যায়।

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউড ও হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মুহাম্মদ সালাহউদ্দিনের মতে, হার্টে ব্লক ধরা পড়ার পর একবার রিং পরানোর পর ৫ থেকে ৪০ শতাংশ ক্ষেত্রে আবার ব্লক সৃষ্টি হতে পারে। এই ব্লক হার্টের যেকোনো ধমনিতেই হতে পারে, এমনকি আগের বসানো রিংয়েও হতে পারে। হার্টে রিং বসানোর পর পুনরায় যেন ব্লক সৃষ্টি হতে না পারে, সে জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নিয়মিত কিছু ওষুধ সেবন, যেমন রক্ত পাতলাকারী ওষুধ ছাড়াও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ, খাবার নিয়ন্ত্রণ ইত্যাদি নিয়ম মেনে চলতে হয়। এসব নিয়ম ঠিকমতো মেনে না চললে ব্লক সৃষ্টির আশঙ্কা অনেকাংশে বেড়ে যায়।

Download WordPress Themes Free
Premium WordPress Themes Download
Download Premium WordPress Themes Free
Premium WordPress Themes Download
udemy course download free