২০০৪ সালের কথা মনে আছে তো?

সংযুক্ত প্রগতিশীল মোর্চার (ইউপিএ) চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে বলেছেন, মোদিকে অপরাজেয় ভাবার কোনও কারণ নেই। ২০০৪ সালের কথা মনে আছে তো? ওই সময় সবাই ভেবেছিলেন বাজপেয়ীজিই ক্ষমতায় আসছেন। কিন্তু জিতেছিল কংগ্রেসই।

সংযুক্ত প্রগতিশীল মোর্চার (ইউপিএ) চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে বলেছেন, মোদিকে অপরাজেয় ভাবার কোনও কারণ নেই। ২০০৪ সালের কথা মনে আছে তো? ওই সময় সবাই ভেবেছিলেন বাজপেয়ীজিই ক্ষমতায় আসছেন। কিন্তু জিতেছিল কংগ্রেসই।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) লোকসভা নির্বাচনে লড়তে কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে তার মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার আগে রায়বরেলীতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

২০০৪ সালে সংবাদমাধ্যমের অধিকাংশেরই ধারণা ছিল, ক্ষমতায় আসছে বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ। কিন্তু সেটা ঘটেনি। ক্ষমতায় এসেছিল কংগ্রেস।

সাংবাদিকরা সোনিয়াকে প্রশ্ন করেন, আপনি কি মনে করেন নরেন্দ্র মোদি অপরাজেয়? জবাবে তিনি বলেন, একদমই নয়। ২০০৪ সালের কথা ভুলে যাবেন না। ২০০৪ সালে বাজপেয়ীজিকেও অপরাজেয় বলে মনে হত। কিন্তু আমরাই জিতেছিলাম।

এদিন সনিয়ার সঙ্গে ছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও তার বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

মায়ের কথা শেষ হতে না হতেই রাহুল সাংবাদিকদের বলেন, ভারতের রাজনীতিতে অনেকেই নিজেদের অপরাজেয় মনে করেছেন। তাদের মনে হয়েছে, তারা দেশের মানুষের চেয়েও উচ্চতায় অনেক বড় হয়ে গিয়েছেন। এমন ঘটনা আগেও ঘটেছে। কিন্তু পরে সবাই বুঝেছেন, মানুষের থেকে বড় কেউই নন।

১৯৯৬ সালে প্রথম বিজেপির নেতৃত্বে এনডিএ সরকার ক্ষমতাসীন হয় কেন্দ্রে। অটলবিহারী বাজপেয়ীর নেতৃত্বে। তারপর ১৯৯৮ আর ৯৯ সালে সরকার গঠন করে বিজেপি। ২০০৪ সালে বিজেপিকে হারিয়ে ক্ষমতায় ফিরে আসে কংগ্রেস। বামপন্থী ও আরও কয়েকটি দলের সমর্থন নিয়ে।

সেই সময় কংগ্রেস সভানেত্রী ছিলেন সনিয়া। অনেকেই চেয়েছিলেন সনিয়া প্রধানমন্ত্রী হন। কিন্তু সনিয়ার ইচ্ছাতেই প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন মনমোহন সিংহ।

Download Nulled WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
free download udemy course