২৪৪১১৩৯ নম্বরের জন্য মামলাও খেয়েছিলেন অঞ্জন দত্ত!

ছন্দ মেলাতে বিভিন্ন সংখ্যা নিয়ে গবেষণা করতে করতে অঞ্জন পেয়েছিলেন বেলা বোসের সেই বিখ্যাত নম্বর- ২৪৪১১৩৯। অঞ্জন দত্ত যখন ‘বেলা বোস’ লেখেন তখন কলকাতার ফোন নম্বর ছিল ছয় ডিজিটের। ফলে সে সময় সংখ্যাটির কোনো অস্তিত্ব ছিল না। পরে সাত ডিজিট হওয়ামাত্র সেই সংখ্যার অস্তিত্ব চলে এলো।

১৯৯৪ সালে মুক্তি পেয়েছিল অঞ্জন দত্তের বেলা বোস। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত এই গান শোনেনি এমন মানুষ হয়ত কমই পাওয়া যাবে। তবে কোন নারীর নাম প্রেমিকা হিসেবে তুলে ধরে গানের শুরু হয়ত অঞ্জন দত্তের হাত ধরেই। তবে এই বেলাবোসের জন্যই মামলা হয়েছিল অঞ্জন দত্তের নামে।

ছন্দ মেলাতে বিভিন্ন সংখ্যা নিয়ে গবেষণা করতে করতে অঞ্জন পেয়েছিলেন বেলা বোসের সেই বিখ্যাত নম্বর- ২৪৪১১৩৯। অঞ্জন দত্ত যখন ‘বেলা বোস’ লেখেন তখন কলকাতার ফোন নম্বর ছিল ছয় ডিজিটের। ফলে সে সময় সংখ্যাটির কোনো অস্তিত্ব ছিল না। পরে সাত ডিজিট হওয়ামাত্র সেই সংখ্যার অস্তিত্ব চলে এলো।

সাত ডিজিটের ওই নম্বরটি ছিল হিন্দি সংবাদপত্র ‘দৈনিক বিশ্বামিত্র’-র কার্যালয়ের। আবার অনেকে বলেন কার্যালয়ের নয়‚ সেটি ছিল ওই পত্রিকার তৎকালীন সম্পাদকের বাড়ির নম্বর।

মোট কথা‚ ওই সংবাদপত্রের সঙ্গে জড়িয়ে ছিল নম্বরটি। হাজার হাজার বার ওই নম্বরে ফোন গেছে বেলা বোসকে চেয়ে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায়, অঞ্জন দত্ত দুঃখপ্রকাশ করতে বাধ্য হন।

একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন ‘‌ওই সম্পাদক আমার বিরুদ্ধে মামলাই দিয়েছিলেন। আমি তাকে জানাই, নেহাত ছন্দ মেলানো ছাড়া আমার আর কোনও উদ্দেশ্য ছিলো না। এমনকী বেলা বোস বলে কাউকে আমি চিনতামও না।’‌

যদিও সংস্কৃতির শহর সহনশীল কলকাতা হাসিমুখে এই অনিচ্ছাকৃত ভুলকে স্বাগত জানিয়েছিল। পরে অবশ্য সাত ডিজিট থেকে সংখ্যা আটে চলে যায়।

Download Best WordPress Themes Free Download
Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
udemy course download free