৪০ কোটিতে বিক্রি হলো ইসলামি খেলাফতের এক মুদ্রা

৩৭ লাখ ২০ হাজার পাউন্ডে ইসলামের খলিফা শাসনামলের একটি দুর্লভ মুদ্রা বিক্রি হয়েছে। বাংলাদেশি টাকায় যা দাঁড়ায় ৪০ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। গত ২৪ অক্টোবর লন্ডনে এক নিলামের মাধ্যমে মুদ্রাটি বিক্রি হয়। তবে যিনি মুদ্রাটি কিনেছেন তার নাম পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজের প্রতিবেদনে জানা যায়, ১ পাউন্ড কয়েনের আকৃতির মুদ্রাটি স্বর্ণের তৈরি। ইসলামি শাসনামলের প্রথম দিকে উমাইয়া খিলাফাতের সময়ের দিনার সেটি। মুদ্রাটির ১০৫ হিজরি বা ইংরেজি ৭২৩ সালের বলে জানা গেছে। সংবাদমাধ্যমটিতে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, দুর্লভ এই মুদ্রাটি এর আগে বিক্রি হওয়া ইসলামি মুদ্রাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দাম পেয়েছে। কারণ, ঐতিহাসিকভাবে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এই মুদ্রা মাত্র ডজনখানেকই ছিল। মুদ্রাটির গায়ে খোদাই করে ‘মাদিন আমির আল-মুমিনিন বিল-হিজাজ’ কথাটি লেখা আছে। ইসলামের বেশ কয়েকজন খলিফার মালিকানায় সেটি ছিল বলে বিশ্বাস করা হয়। মুদ্রাটিতে ব্যবহৃত সোনা সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনার কাছাকাছি কোনো খনি থেকে সংগ্রহ করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইসলামের প্রথম চার খলিফার শাসনকালের পর শুরু হয় উমাইয়া শাসনামল। খুলাফায়ে রাশেদিনের পর খেলাফাতের পরিচালনা করেন উমাইয়ারা। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর সাহাবি এবং তৃতীয় খলিফা হযরত উসমান (রা.) উমাইয়া বংশের একজন সদস্য ছিলেন।

৩৭ লাখ ২০ হাজার পাউন্ডে ইসলামের খলিফা শাসনামলের একটি দুর্লভ মুদ্রা বিক্রি হয়েছে। বাংলাদেশি টাকায় যা দাঁড়ায় ৪০ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। গত ২৪ অক্টোবর লন্ডনে এক নিলামের মাধ্যমে মুদ্রাটি বিক্রি হয়। তবে যিনি মুদ্রাটি কিনেছেন তার নাম পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজের প্রতিবেদনে জানা যায়, ১ পাউন্ড কয়েনের আকৃতির মুদ্রাটি স্বর্ণের তৈরি। ইসলামি শাসনামলের প্রথম দিকে উমাইয়া খিলাফাতের সময়ের দিনার সেটি। মুদ্রাটির ১০৫ হিজরি বা ইংরেজি ৭২৩ সালের বলে জানা গেছে।

সংবাদমাধ্যমটিতে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, দুর্লভ এই মুদ্রাটি এর আগে বিক্রি হওয়া ইসলামি মুদ্রাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দাম পেয়েছে। কারণ, ঐতিহাসিকভাবে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এই মুদ্রা মাত্র ডজনখানেকই ছিল।

মুদ্রাটির গায়ে খোদাই করে ‘মাদিন আমির আল-মুমিনিন বিল-হিজাজ’ কথাটি লেখা আছে। ইসলামের বেশ কয়েকজন খলিফার মালিকানায় সেটি ছিল বলে বিশ্বাস করা হয়।

মুদ্রাটিতে ব্যবহৃত সোনা সৌদি আরবের মক্কা ও মদিনার কাছাকাছি কোনো খনি থেকে সংগ্রহ করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইসলামের প্রথম চার খলিফার শাসনকালের পর শুরু হয় উমাইয়া শাসনামল। খুলাফায়ে রাশেদিনের পর খেলাফাতের পরিচালনা করেন উমাইয়ারা। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর সাহাবি এবং তৃতীয় খলিফা হযরত উসমান (রা.) উমাইয়া বংশের একজন সদস্য ছিলেন।

Download Premium WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
udemy course download free