৪৫ ইসরায়েলি গুপ্তচরকে আটক করেছে হামাস

হামাসের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইয়াদ আল-বোজুম জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় গাজা উপত্যকার খান ইউনিস শহরের পূর্বাঞ্চল থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ইসরায়েলের ৪৫ গুপ্তচর ও সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে। ইসরায়েলের নিয়োগ করা এসব ফিলিস্তিনিকে গত নভেম্বরে গ্রেফতার করা হয় এবং তাদের বিরুদ্ধে এখন তদন্ত চলছে।

হামাসের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইয়াদ আল-বোজুম জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় গাজা উপত্যকার খান ইউনিস শহরের পূর্বাঞ্চল থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ইসরায়েলের ৪৫ গুপ্তচর ও সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে। ইসরায়েলের নিয়োগ করা এসব ফিলিস্তিনিকে গত নভেম্বরে গ্রেফতার করা হয় এবং তাদের বিরুদ্ধে এখন তদন্ত চলছে।

গ্রেফতারকৃতরা অঞ্চলটিতে ইসরায়েলের পক্ষ থেকে সরাসরি আক্রমণ চালিয়েছিল কিংবা কোনো আক্রমণে পরোক্ষভাবে ভূমিকা পালন করেছিল কি না তা এই বিবৃতিতে নির্দিষ্ট করে বলেননি ইয়াদ আল-বোজুম। তাদেরকে ফোন ও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ব্ল্যাকমেইল করে গুপ্তচরবৃত্তিতে রাজি করানো হয়। গত কয়েক বছরে হামাস এই ধরনের অনেক গুপ্তচরকে গ্রেফতার করেছে।

খান ইউনিস শহরে একজন হামাস কমান্ডার এবং একজন ইসরায়েলি লেফটেন্যান্ট কর্নেলের মৃত্যুর ঘটনায় প্রথমে ইসরায়েলের সৈন্য এবং হামাসের কর্মীদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। কিন্তু দ্রুতই তা সীমান্ত যুদ্ধে রূপ নেয়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে হামাস এবং ইসলামিক জিহাদ মুভমেন্ট দক্ষিণ ইসরায়েলে ৪০০ রকেট ও প্রজেক্টাইল ছোড়ে। জবাবে ফিলিস্তিনের ১৫০টি ভবন ও স্থাপনাতে হামলা চালায় ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্স (আইডিএফ)।

এসব ঘটনার পর দুই পক্ষের বিরোধ নিষ্পত্তির জেরে পদত্যাগ করেন ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাভিগদোর লিবারম্যান। তিনি মিশরের মধ্যস্থতায় হামাস ও ইসরায়েলের যুদ্ধবিরতি চুক্তির প্রস্তাবটি প্রত্যাখ্যান করেন।

Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
online free course