৫০ এর আগেই হার্ট অ্যাটাকের বৈজ্ঞানিক কারণ

এখন হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। তবে যাদের ৫০ পেরিয়েছে তারা বেশি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকেন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি যেন বদলে গেছে।  খুব অল্প বয়সেই হার্ট অ্যাটাকে অনেকেই মারা যান। গত দশ বছর ধরে অপেক্ষাকৃত কম বয়সীদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা প্রতিবছর ২ শতাংশ হারে বেড়েছে। এক গবেষণায় বলা হয়েছে, এক বিশেষ জেনেটিক ব্যধি ‘হাইপারকোলেস্টেরোলেমিয়া (এফএইচ)’ এর কারণে হয়ে থাকে। এই রোগ সাধারণত উচ্চমাত্রার কোলেস্টেরলের জন্য হয়ে থাকে।

এখন হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। তবে যাদের ৫০ পেরিয়েছে তারা বেশি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকেন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি যেন বদলে গেছে।  খুব অল্প বয়সেই হার্ট অ্যাটাকে অনেকেই মারা যান। গত দশ বছর ধরে অপেক্ষাকৃত কম বয়সীদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা প্রতিবছর ২ শতাংশ হারে বেড়েছে। এক গবেষণায় বলা হয়েছে, এক বিশেষ জেনেটিক ব্যধি ‘হাইপারকোলেস্টেরোলেমিয়া (এফএইচ)’ এর কারণে হয়ে থাকে। এই রোগ সাধারণত উচ্চমাত্রার কোলেস্টেরলের জন্য হয়ে থাকে।

যারা ৫০ এর আগেই হার্ট অ্যাটাকের শিকার হন তাদের ১০ শতাংশেরই এফএইচ রয়েছে। আর প্রথম হার্ট অ্যাটাকের এক বছর বাদে তাদের কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়তে থাকে। গবেষক দল দেখেছেন, এফএইচে আক্রান্ত ৫০ শতাংশ রোগী হার্ট অ্যাটাকের আগে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ সংশ্লিষ্ট থেরাপি নেন। আবার অনেক হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়েও এ নিয়ে তেমন সচেতন থাকেন না।

বিশেষজ্ঞরা ব্রিগহ্যাম এবং ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হসপিটাল থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করেন। যে রোগীদের তথ্য নেয়া হয় তাদের সবাই ২০০০ সাল থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়েছিলেন ৫০ বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই। আর তরুণদের প্রতি ১০ জনের মধ্যে একজনেরই এফএইচ সমস্যা রয়েছে।

এফএইচ রোগীদের দেহে গড়ে ১৮০ মিলিগ্রাম/ডেসিলিটার ক্ষতিকর এলডিএল কোলেস্টেরল থাকে। প্রথম হার্ট অ্যাটাকের পর অর্ধেকের মতো এফএইচ রোগীদের হাই-ডেনসিটি স্ট্যাটিন থেরাপির পরামর্শ দেয়া হয়। এই থেরাপির মাধ্যমে ক্ষতিকর ফ্যাটের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। অধিকাংশেরই হার্ট অ্যাটাকের এক বছর পর দেহে উচ্চমাত্রায় কোলেস্টেরল বিরাজ করে।

Download Best WordPress Themes Free Download
Free Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
online free course