‌‌‌‘তারা জয় শ্রীরাম বলতে নির্দেশ দিয়ে পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলে’

ভারতের গুরুগ্রামে মসজিদে নামাজ শেষে বাসায় ফিরছিলেন মোহাম্মদ বারাকাত আলম নামের ২৫ বছর বয়সী এক যুবক। কিন্তু পথেই তিনি হামলার শিকার হয়েছেন। হিন্দুত্বাবাদী ভারতীয় জনতা পার্টি(বিজেপি) শাসিত হরিয়ানার পাশেই এই শহরটির অবস্থান।-খবর এনডিটিভি অনলাইনের

ভারতের গুরুগ্রামে মসজিদে নামাজ শেষে বাসায় ফিরছিলেন মোহাম্মদ বারাকাত আলম নামের ২৫ বছর বয়সী এক যুবক। কিন্তু পথেই তিনি হামলার শিকার হয়েছেন। হিন্দুত্বাবাদী ভারতীয় জনতা পার্টি(বিজেপি) শাসিত হরিয়ানার পাশেই এই শহরটির অবস্থান।-খবর এনডিটিভি অনলাইনের

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পার্লামেন্টের সেন্ট্রাল হলে দেয়া এক ভাষণে সংখ্যালঘুদের মধ্যে আস্থা অর্জনে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স(এনডিএ) নেতা, আইনপ্রণেতা ও মুখ্যমন্ত্রীদের অনুরোধ জানিয়েছেন।

তার এই বক্তব্য দেয়ার একদিন পর গুরুগ্রামে এমন হামলার ঘটনা ঘটেছে। বারাকাত আলম বলেন, মাগরিবের নামাজ শেষে তিনি মসজিদ থেকে ফিরছিলেন। তখন চার-পাঁচজনের একটি দল তার ঝাঁপিয়ে পড়েন।

তিনি বলেন, তারা আমার মাথা থেকে টুপি ফেলেন দেন এবং আমাকে জয় শ্রীরাম বলতে নির্দেশ দেন।

কিন্তু তিনি বলতে অস্বীকার করলে তারা তাকে মারধর করেন বলে জানিয়েছেন গুরুগ্রামের ওই মুসলমান যুবক।

এনডিটিভিকে তিনি বলেন, তারা আমাকে জানান-আমার টুপি পরার অনুমতি নেই। কিন্তু আমি সেটা খুলতে অস্বীকার করলাম। তখন তারা আমার পেছন থেকে মাথায় আঘাত করলে সেটা নিচে পড়ে যায়। এরপ হামলাকারীরা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন।

‌‘এসময় আশপাশের লোকজনের কাছ থেকে আমি সাহায্য চাইলাম। কেউ এগিয়ে আসলেন না। তারা আমাকে জয় শ্রী রাম বলতে বলেন। আমি বললাম, কেন আমি বলবো? তখন তারা আমাকে মরধর শুরু করেন এবং আমার পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলেন।’

এরপর হামলকারীরা পালিয়ে যান। প্রথমে কয়েক পা হেঁটে গিয়ে মোটরসাইকেলে ওঠেন।

এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ সিসিটিভির ফুটেজ জব্দ করেছে। তবে হামলাকারীদের কেউ শনাক্ত কিংবা গ্রেফতার হননি।

Premium WordPress Themes Download
Download WordPress Themes Free
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
online free course