Ashraful Islam, Author at 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

pm8.jpg

কুয়েতে মানব ও অবৈধ মুদ্রা পাচারের অভিযোগে আটক লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শহীদুল হোসেন পাপুলের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কুয়েতের সে নাগরিক কি-না, সে বিষয়ে কুয়েতের সঙ্গে আমরা কথা বলছি।

আর যদি এটা হয়, তার পদটি খালি করে দিতে হবে। সবকিছু আইন অনুযায়ী চলবে।

আজ বুধবার (৮ জুলাই) সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের বক্তব্যের জবাবে তিনি একথা বলেন।

এর আগে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে পাপুল কুয়েতের নাগরিক কিনা তা খতিয়ে দেখতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

পাপুলের বিষয়ে বিএনপির হারুন বলেন, সংবিধান অনুযায়ী বিদেশি নাগরিকত্ব অর্জনকারী বা আনুগত্য গ্রহণকারী সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার যোগ্য নন।

পাপুল কুয়েতের নাগরিক হিসেবে গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে গণমাধ্যমে এসেছে।

তিনি সত্যিই যদি কুয়েতের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেই থাকেন তাহলে এ বিষয়ে স্পষ্ট ব্যাখ্যা দরকার।

তিনি নিশ্চয়ই সরকারি (বাংলাদেশ) পাসপোর্টে সে দেশে যাননি। তাহলে তিনি নিঃসন্দেহে বিদেশি নাগরিক।

তিনি নির্বাচনের সময় তথ্য গোপন করেছেন। আজকে অপকর্মের সঙ্গে জড়িত।

এ ব্যাপারে সংবিধান অনুযায়ী আপনার (স্পিকারের) যে দায়িত্ব আশা করবো আপনার জায়গা থেকে সুস্পষ্ট ঘোষণা আসবে।

পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি (পাপুল) কিন্তু স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য। সে আমাদের নমিনেশন চেয়েছিল আমি কিন্তু তাকে নমিনেশন দেইনি।

কিন্তু সে স্বতন্ত্র ইলেকশন করে এসেছে। ওই আসনটি আমরা জাতীয় পার্টিকে দিয়েছিলাম।

জাতীয় পার্টির নমিনেশন পেয়েছিল, সে ইলেকশন করেনি।

এর ফলে ওই লোকটি জিতে আসে। এরপর তার ওয়াইফ (সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম), সেও যেভাবেই হোক আসে।

কাজেই এখানে আমাদের করার কিছু নেই।  তিনি (পাপুল) কুয়েতের নাগরিক কিনা সেই বিষয়ে আমরা কুয়েতে কথা বলছি। সেটা দেখবো।

আর সেটা হলে তার ওই সিট হয়তো খালি করতে হবে। কারণ যেটা আইনে আছে সেটা হবে। তার বিরুদ্ধে আমরা দেশেও তদন্ত করছি।

রিজেন্ট হাসপাতালের অনিয়ম প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, ‘ যে তথ্য দেয়া হয়েছে তা কিন্তু আমরা সরকারের পক্ষ থেকেই ধরেছি।

প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই কিন্তু সরকার উদ্যোগ নিয়েছে। অপরাধীদের ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করেছি।

মাননীয় সংসদ সদস্য এই তথ্যটা আগেভাগে জানাতে পারলে আমরা খুশি হতাম। এই তথ্যটা অন্য কেউ কিন্তু জানায়নি।

আমরা সরকারের পক্ষ থেকেই এটা খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নিয়েছি। সেখানে র‌্যাব গিয়েছে। এসব খুঁজে বের করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।’

হারুন তার বক্তব্যে ৫০ লাখ পরিবারকে সরকারি আর্থিক সহায়তার জন্য তালিকা তৈরিতে দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন।

এ বিষয়ে কে কোন দলের তা বিবেচনায় না নিয়ে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

করোনাকালীন সময়ে প্রণোদনার দুর্নীতির জবাব দিতে গিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, অন্ততপক্ষে ৫০ লাখ পরিবারকে আমরা যে সহযোগিতা দেব, সেই তালিকা যাচাই করা হয়েছে।

সেই সঙ্গে তাদের আইডি কার্ড, ভোটার লিস্টের নাম সবকিছু মিলিয়ে এই তালিকায় আমরা খুঁজে খুঁজে বের করছি।

শুধু কাউন্সিলর, মেম্বার, চেয়ারম্যানদের তালিকা আসছে।

তাদের তালিকা ধরে ধরে ফোন নম্বর ও ন্যাশনাল আইডি কার্ড মিলে বাংলাদেশ ব্যাংকে একটা সিস্টেম করে দিয়েছি।

ওখান থেকে যাচাই-বাছাই করে করে তাদের সাহায্য দেয়া হবে।

pm777.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন,  মানবপাচারের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে সরকার।

তিনি বলেছেন, ইতোমধ্যে মানবপাচারের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির মুখোমুখি করা হয়েছে।

দেশে-বিদেশে অবস্থানরত অন্যদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে সচেতন হওয়ার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাই।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য বেনজীর আহমদের প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার এই সময়ে বিদেশে বাংলাদেশ মিশনের শ্রম কল্যাণ উইংয়ের মাধ্যমে আমরা দুস্থ ও কর্মহীন হয়ে পড়া প্রবাসী কর্মীদের মধ্যে প্রায় ১১ কোটি টাকার ওষুধ, ত্রাণ ও জরুরি সামগ্রী বিতরণ করেছি।

করোনা ভাইরাসের কারণে বিভিন্ন দেশে কর্মহীন হয়ে পড়া বাংলাদেশিরা যাতে করোনা পরবর্তী সময়ে পুনরায় কর্মে নিয়োগ পেতে পারেন, সেজন্য বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

করোনার কারণে চাকরিচ্যুত হয়ে কিংবা অন্য কোনও কারণে বিদেশ ফেরত কর্মীদের সহজ শর্তে ঋণ দিতে এরই মধ্যে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের অনুকূলে ৫০০ কোটি টাকার বরাদ্দ অনুমোদন করেছেন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে বিদেশ থেকে আসা কর্মীদের এবং প্রবাসে করোনায় মৃতদের পরিবারের উপযুক্ত সদস্যকে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে বিনিয়োগ ঋণ দিতে আমরা ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড থেকে ২০০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছি। এ সংক্রান্ত নীতিমালা  এরই মধ্যে প্রণয়ন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রতিবেশী অন্যান্য দেশসমূহে যেখানে প্রায় লক্ষাধিক প্রবাসী শ্রমিক ফিরে এসেছেন, সেখানে আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত মাত্র ২২ হাজার প্রবাসী শ্রমিক দেশে ফিরে এসেছেন।

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত সময়োচিত কূটনৈতিক উদ্যোগের ফলে ফিরে আসা প্রবাসীর সংখ্যা এখনও কম রয়েছে।

আমাদের সরকার ফিরে আসা প্রবাসী কর্মীদের টেকসই পুনর্বাসনের লক্ষ্যে সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ এবং প্রবাসীদের যথাযথ সহায়তা প্রদানের জন্য একটি ডাটাবেজ নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

এছাড়া যারা পুনরায় বিদেশে যেতে সক্ষম তাদের জন্য উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়নের কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।

kader3x.jpg

করোনার নমুনা পরীক্ষা, সনদ, প্লাজমা ডোনেশনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এক শ্রেণির অসাধুচক্র প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে এবং মানুষ ঠকাচ্ছে।

সরকার এসব প্রতারণা ও অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে।

এ ধরনের প্রতারণা মানুষের অসহায়ত্ব নিয়ে নির্মম বাণিজ্য ছাড়া কিছু নয়।

বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার (৮ জুলাই) সকালে নিজের সরকারি বাসভবনে অনলাইন ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

আসন্ন ঈদে করোনা সংক্রমণ রোধে সবাইকে ‘সচেতনতার জনযোদ্ধা’ হিসেবে কাজ করার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংক্রমণ লুকিয়ে তথ্য গোপন করে কিছু মানুষ চলাফেরা করছেন।

আবার কেউ করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে বিদেশে গিয়ে বিমানবন্দরে পজিটিভ হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছে।

বিদেশে যাওয়ার তীব্র প্রতিযোগিতা এবং সত্য গোপন রাখায় বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হচ্ছে এবং লাখ লাখ প্রবাসীকে অবিশ্বাস আর অনিশ্চয়তার আঁধারে ঠেলে দিচ্ছে।

লক্ষণ দেখা দিলে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেয়ার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, তথ্য গোপনের সঙ্গে দেশের ইমেজ, লাখ লাখ প্রবাসীর ভাগ্য এবং ভবিষ্যতও অনিশ্চয়তায় আবর্তিত হবে।

আক্রান্তদের চিকিৎসায় সম্মুখসারিতে থেকে যারা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তাদের আবারও অভিনন্দন জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা ত্যাগ, মনোবল এবং সংকটে সহমর্মিতার যে নজির স্থাপন করেছেন জাতি তা শ্রদ্ধাবনত চিত্তে স্মরণ করবে।

ইতোমধ্যে অনেক চিকিৎসক, পুলিশ,সাংবাদিক, নার্স, টেকনেলজিস্ট, মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তা, সেনাসদস্য প্রাণ হারিয়েছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

jhor.jpg

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে আজ দেশের ১৪টি অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হতে পারে।

এসব অঞ্চলের নদীবন্দরকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

বুধবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- রংপুর, দিনাজপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী, পাবনা, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এদিকে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমসাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। পরবর্তী ৭২ ঘণ্টায় দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, মৌসুমী বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ হাজার ৪৮৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

এ নিয়ে বাংলাদেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৭২ হাজার ১৮৯ জনে।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ হাজার ১৯৭ জনে।

আজ বুধবার (৮ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।

অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

harvard-5d6776b53e7e1.jpg

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ভয়ে হার্ভার্ডের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কোর্সের ক্লাস অনলাইনে নেওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘হাস্যকর’ বলে মন্তব্য করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আগামী সেমিস্টার থেকে যুক্তরাষ্ট্রের স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া যায় কি-না এ নিয়ে মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে এক গোলটেবিল বৈঠকে হার্ভার্ড প্রসঙ্গে ট্রাম্প এ কথা বলেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ট্রাম্প বলেন, “আমি মনে করি, এটা (হার্ভার্ডের অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত) হাস্যকর। এটা খুবই সস্তা উপায়।

এমন সিদ্ধান্তের জন্য তাদের নিজেদেরই লজ্জা পাওয়া উচিত।” নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী নির্বাচনেও লড়ছেন ট্রাম্প।

তাই করোনাভাইরাস সংক্রমণ উঠতির দিকে থাকলেও দেশের অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখতে সব ধরনের বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেওয়ার পক্ষে তার সরকার।

এমনকি স্কুলগুলোও খুলে দিতে চান ট্রাম্প। তার দাবি, সবাই চাচ্ছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়া হোক।

“সবাই এটা চাচ্ছেন। মায়েরা চাচ্ছেন, বাবারা চাচ্ছেন, বাচ্চারা চাচ্ছে। স্কুলগুলো খুলে দেওয়ার সময় এসেছে।

আমরা আমাদের স্কুলগুলো খুলে দিতে চাই, খুব দ্রুতই খুলে দিতে চাই। শরতের দিকে এটা খুলে দিলে খুব ভালো হয়।”

অথচ ট্রাম্প এমন মন্তব্য করার আগের দিন তার প্রশাসন ভিন্ন কথা শুনিয়েছিল।

ইউএস ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইসিই) এজেন্সি জানিয়েছে, করোনা সংকটের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যদি সব ক্লাস অনলাইনে নেয় তাহলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের আর যুক্তরাষ্ট্রে থাকতে দেওয়া হবে না।

করোনা সংক্রমণের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইন ক্লাসে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে।

ক্যামব্রিজ ও ম্যাসাচুসেটসভিত্তিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো জানিয়েছে, তারা তাদের ক্যাম্পাসে মোট শিক্ষার্থীদের ৪০ শতাংশকে থাকার অনুমতি দেবে।

অন্যদের ক্লাস অনলাইনে হবে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি প্রতিদিনই খারাপের দিকে যাচ্ছে।

সবশেষ চব্বিশ ঘণ্টায় রেকর্ড ৬০ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

তাতে যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত এখন ৩১ লাখ ছুঁই ছুঁই, যা বিশ্বের মোট আক্রান্তের প্রায় এক-চতুর্থাংশ।

মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লাখ ৩৩ হাজার, যা বিশ্ব সর্বোচ্চ। যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের হটস্পট এখন দেশটির দক্ষিণাঞ্চল।

সংক্রমণ বাড়তির দিকে থাকায় বিধিনিষেধ শিথিল করার পরিকল্পনা থেকে সরে আসছে অনেক অঙ্গরাজ্য।

Asia_Cup_.jpg

করোনাভাইরাস সংকটের কারণে এবার এশিয়া কাপ আর হচ্ছে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড- বিসিসিআই’র সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।

যদিও এ ব্যাপারে আয়োজক পাকিস্তান, এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল বা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানের বসার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে টি-টোয়েন্টি এই টুর্নামেন্টটি নিয়ে অনেক দিন ধরেই অনিশ্চয়তার খবর ভেসে আসছিল।

এবার বিসিসিআই সভাপতি পরিষ্কার করেই জানিয়ে দিলেন আসরটি এবার আর হচ্ছে না।

৮ জুলাই নিজের ৪৮তম জন্মদিন উপলক্ষে কলকাতার বাংলা দৈনিক আনন্দবাজারকে দেওয়া বিশেষ এক সাক্ষাৎকারে এশিয়া কাপ নিয়ে সৌরভ বলেন, “এশিয়া কাপ বাতিল হয়ে গিয়েছে।

এ বারে আর হচ্ছে না। আমরা আইসিসি’র সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছি। দেখা যাক, কবে ওরা চূড়ান্ত ঘোষণা করে।”

“তার পরে আইপিএল নিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। আমরা মাথায় রাখছি, যদি অক্টোবর-নভেম্বরের দিকে পরিস্থিতির উন্নতি হলে আইপিএল করা যায়।

এই মুহূর্তে তার আগে ক্রিকেট শুরু হওয়ার সম্ভাবনা দেখছি না।”

এশিয়া কাপ নিয়ে যেমন দীর্ঘদিন ধরে অনিশ্চয়তার খবর আসছিল, তেমনি অনিশ্চয়তার গুঞ্জন আছে অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়েও।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে সৌরভ বলেন, “আইসিসি হয়তো চেষ্টা করছে, সব দিক ভালোভাবে দেখে নিতে যে, বিশ্বকাপ আয়োজনের আর কোনো সম্ভাবনা আছে কি-না।

বিশ্বকাপ থেকে হওয়া মুনাফা থেকে সব দেশকে আর্থিক অনুদানও দেওয়া হয়। তা থেকে ক্রিকেট উন্নয়নের অনেক কাজ হয়। নানা দিক নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। তাই হয়তো আইসিসি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে উঠতে পারেনি।”

bandarban_civil_surgeon.jpg

বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার কক্সবাজার মেডিকেলের ল্যাব থেকে টেলিফোনে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্টের কথা জানানো হয়েছে।

ডা. অংসুইপ্রু জানান, ‘মঙ্গলবার কক্সবাজার থেকে ওভার টেলিফোনে আমার পজিটিভ রিপোর্টের কথা বলেছে।

এরপর থেকেই আমি প্রয়োজন অনুযায়ী সতর্কতার ব্যবস্থা নিয়ে কাজকর্ম করছি।

অফিসিয়াল রিপোর্ট হাতে এলে তখন ঘোষণা দেব। আমার কোনো সমস্যা নেই, ভালো আছি’।

স্বাস্থ্য বিভাগের দাপ্তরিক কাজ এবং হাসপাতাল পরিদর্শনের দায়িত্ব পালন করায় কোনো উপসর্গ না থাকলেও সোমবার তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

মঙ্গলবার কক্সবাজার মেডিকেলের ল্যাব থেকে তাকে কোভিড-১৯ পজিটিভের কথা জানানো হয়।

PM-parlamt.jpg

করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত নির্বিশেষে সকল প্রবাসী কর্মীর পরিবারকে পুনর্বাসনের জন্য তিন লাখ টাকা প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা জানান।

লিখিত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘করোনার কারণে চাকরিচ্যুত হয়ে কিংবা অন্য কোনো কারণে বিদেশফেরত কর্মীদের সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের জন্য আমরা ইতোমধ্যেই প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের অনুকূলে ৫০০ কোটি টাকার বরাদ্দ অনুমোদন করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে বিদেশ প্রত্যাগত কর্মীদের এবং প্রবাসে করোনায় মৃত কর্মীর পরিবারের উপযুক্ত সদস্যকে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে বিনিয়োগ ঋণ প্রদানের জন্য আমরা ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড থেকে ২০০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছি। এ সংক্রান্ত নীতিমালা ইতোমধ্যে প্রণয়ন করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী শুধুমাত্র বৈধ ও নিবন্ধিত অভিবাসী মৃত কর্মীর পরিবারকে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের তহবিল থেকে ক্ষতিপূরণ বাবদ তিন লাখ টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

‘তবে করোনা মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনায় বর্তমানে করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণকারী নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত নির্বিশেষে সকল প্রবাসী কর্মীর পরিবারকে পুনর্বাসনের জন্য আমরা তিন লাখ টাকা প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি’ যোগ করেন শেখ হাসিনা।

এ সময় তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে বিভিন্ন দেশে কর্মহীন হয়ে পড়া বাংলাদেশি কর্মীরা যাতে করোনা-পরবর্তী সময়ে পুনরায় কর্মে নিয়োগ পেতে পারেন সেজন্য বিদেশস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই অন্তর্বর্তী সময়ে বিদেশস্থ বাংলাদেশ মিশনের শ্রম কল্যাণ উইংয়ের মাধ্যমে আমরা দুস্থ ও কর্মহীন হয়ে পড়া প্রবাসী কর্মীদের মাঝে প্রায় ১১ কোটি টাকার ওষুধ, ত্রাণ ও জরুরি সামগ্রী বিতরণ করেছি।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো থেকে প্রবাসী শ্রমিকদের ফিরিয়ে নিয়ে আসার জন্য কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রয়েছে। তবে এ চাপ প্রশমিত করার জন্য আমাদের সরকার বিভিন্নমুখী কূটনৈতিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘আমাদের প্রতিবেশী অন্যান্য দেশসমূহে যেখানে প্রায় লক্ষাধিক প্রবাসী শ্রমিক ফিরে এসেছেন, সেখানে আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত মাত্র ২২ হাজার প্রবাসী শ্রমিক দেশে ফিরে এসেছেন।’

ted-avatar-on-f-222641.jpg

সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক নিয়ে এসেছে ব্যবহারকারীদের জন্য অ্যানিমেটেড ছবি তৈরির নতুন ফিচার অ্যাভাটার।

যে কোনো ব্যবহারকারী চাইলে এ ফিচার দিয়ে নিজের অ্যানিমেটেড অ্যাভাটার বা চরিত্র তৈরি করতে পারবেন।

ফেসবুক যুগের সঙ্গে তাল মেলাতে এবং ব্যবহারকারীদের নতুন নতুন ফিচারের সঙ্গে যুক্ত করার ধারাবাহিকতায় এবার আনলো ফিচার অ্যাাভাটার।

ফেসবুকে একাউন্ট আছে এমন যে কেউই এই অ্যাভাটার বানাতে পারবেন।

আরও পড়ুন: বলিউডের এই ছয় ব্যক্তির কারণেই আত্মহত্যা করেছেন সুশান্ত!

কী আছে ফেসবুক অ্যাভাটার এ:

এ ফিচারে নানা রকমের চুলের স্টাইল, মুখের শেপ এবং দারুণ দারুণ ড্রেসের বিকল্প মিলবে সহজেই। ব্যবহারকারীরা ফেস স্টিকার তৈরি করে তা তাদের বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবে।

যেভাবে অ্যাভাটার ব্যবহার করবেন:

স্মার্টফোনে ফেসবুক অ্যাপ খুলে যে কোনো কমেন্ট বক্সে গিয়ে ইমোজি বাটনে ক্লিক করতে হবে।

কমেন্ট বক্স থেকে Create Your Avatars এ ক্লিক করতে হবে।

এবার অ্যাভাটার ক্লিক করলে নতুন পেজ খুলে যাবে। এখানে অ্যাভাটার অপশনে ক্লিক করে নিজের পছন্দ মতো কার্টুন ফেস বেছে নিতে পারবেন। তার চোখ, নাক, ঠোঁট, চুল, ভ্রু, গোঁফ- সবই নিজের ইচ্ছা মতো সাজিয়ে নেয়া যাবে।

ব্যবহারকারী চাইলে নিজের পছন্দের পোশাকও বেছে নিতে পারবেন।

অ্যাভাটার প্রস্তুত হয়ে গেলে নিজের তৈরি অ্যাভাটারটি প্রোফাইল ছবি হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে।

শিগগিরই বাংলাদেশের ব্যবহারকারীদের জন্যও ফিচারটি অবমুক্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।


About us

DHAKA TODAY is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and 7 days in week. It focuses most on Dhaka (the capital of Bangladesh) but it reflects the views of the people of Bangladesh. DHAKA TODAY is committed to the people of Bangladesh; it also serves for millions of people around the world and meets their news thirst. DHAKA TODAY put its special focus to Bangladeshi Diaspora around the Globe.


CONTACT US

Newsletter