Ashraful Islam, Author at 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live - Page 2 of 3489

উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৯৫৪ জন শিক্ষক-কর্মচারী। এর মধ্যে স্কুলের ৬৭১ জন এবং কলেজের ২৮৩ জন। সোমবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে (মাউশি) এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভায় এসব শিক্ষক-কর্মচারীর উচ্চতর গ্রেড দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

সভা সূত্রে জনা যায়, স্কুলের ৬৭১ জন শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৪০ জন, চট্টগ্রাম অঞ্চলের ৪২ জন, কুমিল্লার ২২ জন, ঢাকা অঞ্চলের ১৩৮ জন, খুলনার ৭৪ জন, ময়মনসিংহ অঞ্চলের ৬৫ জন, রাজশাহীর ১০৭ জন, রংপুরের ১৩৭ জন এবং সিলেট অঞ্চলের ৪৬ জন রয়েছেন।

অপরদিকে উচ্চতর গ্রেড পাওয়া কলেজের ২৮৩ শিক্ষক-কর্মচারীর মধ্যে বরিশাল অঞ্চলের ৫২ জন, চট্টগ্রাম অঞ্চলের ২৬ জন, কুমিল্লার ৪৫ জন, ঢাকার ৪৪ জন, খুলনা অঞ্চলের ২৮ জন, ময়মনসিংহ অঞ্চলের ৪৩ জন, রাজশাহীর ৮ জন, রংপুর অঞ্চলের ২৯ জন এবং সিলেটের ৮ জন রয়েছেন।

monir444.jpg

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে হেনস্তার অভিযোগে জড়িতদের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করার কথা জানিয়েছে তার পরিবার। মঙ্গলবার সকালে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণে রোজিনা ইসলামের স্বামী মনিরুল ইসলাম মিঠু সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

রোজিনার স্বামী মনিরুল ইসলাম মিঠু বলেন, ‘অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেসা বেগম, সহকারী সচিব জাকিয়া পারভীন, পুলিশ কনস্টেবল মিজানসহ যারা জড়িত ছিলেন তাদের নামে মামলা করব। আমরা আমাদের উকিলের সাথে কথা বলেছি। তিনি আসার পর তার সাথে আলোচনা করে মামলা করব।’

গতকাল সোমবার দুপুরে পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে গেলে সেখানকার কর্মকর্তারা রোজিনা ইসলামকে অবরুদ্ধ করেন। পাঁচ ঘণ্টা অবরুদ্ধের পর তাকে শাহবাগ থানায় নেয়া হয়। রাতে তার বিরুদ্ধে অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টে মামলা করা হয়। রাত ১১টার পর মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে ‘অনুমতি ছাড়া মোবাইল ফোনে সরকারি গোপনীয় নথির ছবি তোলা এবং আরও কিছু নথি লুকিয়ে রাখার’ অভিযোগ আনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের করা মামলায় বলা হয়, বেলা ২টা ৫৫ মিনিটে রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে সচিবের একান্ত সচিবের দপ্তরে ঢোকেন। তখন একান্ত সচিব দাপ্তরিক কাজে সচিবের কক্ষে অবস্থান করছিলেন। সে সময় রোজিনা ইসলাম দাপ্তরিক গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র শরীরের বিভিন্ন স্থানে লুকানোর পাশাপাশি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ছবি তোলেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে সাংবাদিকেরা বিকেলে সচিবালয়ে এবং রাতে শাহবাগ থানার সামনে বিক্ষোভ করেন। তারা রোজিনা ইসলামকে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানান। এছাড়া এর নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট (সিপিজে), অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংগঠন।

heatwave-052418.jpg

দেশের বেশকিছু অঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সেই সঙ্গে কিছু এলাকায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর এ কথা জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, ঢাকা, ময়মনসিংহ এবং সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

রাঙ্গামাটি, কুমিল্লা, চাঁদপুর, মাজঈদীকোর্ট, ফেনী, রাজশাহী, পাবনা এবং সিরাজগঞ্জ জেলাসহ ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে ৩৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ময়মনসিংহে ২২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সোমবার ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত টাঙ্গাইলে সর্বোচ্চ ৩০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া সিলেটে ২৯ এবং ময়মনসিংহে ২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

india-3.jpg

টানা দুদিন তিন লাখের নিচে সংক্রমণ হলেও ভারত করোনাভাইরাসে (কভিড-১৯) একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড গড়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৩২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে যা করোনা প্রাদুর্ভাবের পর দেশটিতে সর্বোচ্চ।

মঙ্গলবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, একদিনে আরও ২ লাখ ৬৩ হাজার ৫৫৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

এ নিয়ে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যাও আড়াই কোটি ছাড়িয়ে গেল। এখন পর্যন্ত ভারতে মোট সংক্রমিত হয়েছেন ২ কোটি ৫২ লাখ ২৮ হাজার ৯৯৬ জন। মারা গেছেন ২ লাখ ৭৮ হাজার ৭১৯ জন।

আনন্দবাজার জানায়, মহারাষ্ট্র, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, বিহার, কেরালার মতো রাজ্যগুলোতে সংক্রমণ কমেছে। তবে বেড়েছে তামিলনাড়ু, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশে। পশ্চিমবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ৩ জন।

সংক্রমণ পরিস্থিতির লাগাম টানতে চলছে টিকাদান কর্মসূচি। যদিও টিকার পর্যাপ্ত জোগান না থাকারও অভিযোগ উঠেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় টিকা পেয়েছেন ১৫ লাখ ২৬ হাজার ৬৮৯ জন। এ নিয়ে মোট টিকা দেওয়া হয়েছে ১৮ কোটি ৪৪ লাখ ডোজ।

bd-corona-218398.jpg

করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে এখনো পর্যন্ত ভারতে প্রাণ হারিয়েছেন ২৪৪ জন চিকিৎসক। যার মধ্যে রবিবারই ৫০ জন মারা গেছেন।

আতঙ্কিত হওয়ার মতো এই তথ্য দিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন তথা আইএমএ।

আইএমএর জেনারেল সেক্রেটারি ডা. জয়েশ লেলে দেশটির সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক যে আমরা গত রবিবার ভারতজুড়ে ৫০ জন এবং এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের পর থেকে দ্বিতীয় ঢেউয়ে ২৪৪ জন চিকিৎসককে হারিয়েছি।”

চলতি বছর সবচেয়ে বেশি চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে বিহারে। সেখানে ৬৯ জন চিকিৎসক প্রাণ হারিয়েছেন করোনাভাইরাসে। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উত্তরপ্রদেশ। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে ৩৪ জন চিকিৎসক করোনার বলি হয়েছেন। রাজধানী নয়াদিল্লিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ২৭ জন চিকিৎসক।

আইএমএ থেকে জানানো হয়েছে, গত বছর করোনা সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ে ভারতে ৭৩০ জন চিকিৎসক মারা যান। যদিও সরকারি হিসাবে এ সংখ্যা ছিল চার ভাগের এক ভাগ।

সংস্থার প্রেসিডেন্ট জে এ জয়লাল বলেন, “গত বছর করোনায় প্রায় ৭৩০ জন চিকিৎসককে হারিয়েছিলাম আমরা। এবার খুব অল্প সময়ের মধ্যে ২৪৪ জনকে হারিয়েছি। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ সকলের কাছেই প্রাণঘাতী হয়ে উঠছে, বিশেষ করে যারা সামনের সারিতে থেকে পরিস্থিতির মোকাবিলা করছেন তাদের জন্য। আমাদের সমস্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের করোনার প্রতিষেধক নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।”

আইএমএ বলছে, মৃত চিকিৎসকদের মধ্যে বয়সে সবচেয়ে ছোট ২৫ বছরের আনাস মুজাহিদ। নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর হাসপাতালের জুনিয়র আবাসিক চিকিৎসক ছিলেন তিনি। করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মারা যান আনাস। সবচেয়ে প্রবীণ বিশাখাপত্তনমের এস সত্যমূর্তি, ৯০ বছর বয়সী এ চিকি৭সক ইএনটি বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন।

ferry7.jpg

ঈদ শেষে রাস্তায় নানামুখী ভোগান্তি নিয়ে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট দিয়ে ঢাকায় ফিরছেন কর্মজীবী হাজার হাজার মানুষ। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ছোট যানবাহনের কয়েকগুণ বেশি ভাড়া দিয়ে ফিরতে হচ্ছে তাদের। যাত্রাপথে ভেঙে ভেঙে ঘাটে গিয়ে ফেরিতেও উঠতে হচ্ছে গাদাগাদি করে। ফলে চাইলেও সামাজিক দূরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মানতে পানতে পারছেন না অনেকে।

আব্দুল কাদের নামের একজন যাত্রী জানান, স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে কর্মস্থল যাচ্ছি। ভেঙে ভেঙে ঘাটে এসেছি। ৩০০ টাকার ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ১৬০০ টাকা। যে জন্য গণপরিবহন বন্ধ তা কি সফল হচ্ছে? আবার ফেরিতে এসেও গাদাগাদি। এতে সরকারের কোনো লাভ হচ্ছে না, দেশেরও কোনো লাভ হচ্ছে না। উল্টো সংক্রমণ বাড়বে, মানুষেরও ভোগান্তি।

বিলকিস আক্তার নামের এক নারী এসেছেন বরিশাল থেকে। লঞ্চ বন্ধ থাকায় ভোগান্তির কথা জানালেন পাটুরিয়া ৪নং ঘাটে। সরকারের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। বিলকিস বলেন, আমার এক বছর বয়সী সন্তান নিয়ে যে দুর্ভোগ পোহাচ্ছি, তা অবর্ণনীয়। সবই তো চলছে। এসবের কোনো মানে হয় না।

ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাম হোসেন জানান, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও আরিচার–কাজির হাট নৌরুটে ২০টি ফেরি চলাচল করছে। কর্মস্থলে ফেরা যাত্রী ও যানবাহনের চাপ রয়েছে। সবগুলো ফেরি পারাপারে নিযোজিত রয়েছে।

journalist_rozina.jpg

অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট মামলায় গ্রেপ্তার প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার রোজিনা ইসলামকে রিমান্ড নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার তার জামিনের বিষয়ে শুনানি হতে পারে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে রোজিনা ইসলামকে ঢাকার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে তুলে পাঁচ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ।

বিচারক শুনানি শেষে রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

রোজিনা ইসলামের পক্ষের আইনজীবী এহসানুল হক সমাজি সাংবাদিকদের বিষয়টি জানিয়েছেন।

এর আগে ৮টার দিকে রোজিনা ইসলামকে শাহবাগ থানা থেকে ঢাকার সিএমএম আদালতে নেওয়া হয়। সেখানে প্রথমে তাকে আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়।

পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য গতকাল সোমবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে গেলে রোজিনা ইসলামকে সেখানে পাঁচ ঘণ্টার বেশি সময় আটকে রেখে হেনস্তা করা হয়। একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

রাত সাড়ে আটটার দিকে পুলিশ তাঁকে শাহবাগ থানায় নিয়ে যায়। রাত পৌনে ১২টার দিকে পুলিশ জানায়, রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টে মামলা হয়েছে। তাকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার কক্ষ থেকে ‘গুরুত্বপূর্ণ সরকারি নথি সরানো ও মোবাইলে নথির ছবি তোলার’ অভিযোগে দায়ের করা মামলাটির বাদী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব শিব্বির আহমেদ ওসমানী।

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আজ ৬৯-তম মিস ইউনিভার্সের আসরে বিজয়ী হলেন মেক্সিকোর অ্যান্দ্রে মিজা।

জানা গেছে, ৭৩ জন প্রতিযোগির সঙ্গে কঠিন লড়াইয়ের পর শেষ পর্যন্ত বিজয়ী হন তিনি। এবারের আসর বসেছিল ফ্লোরিডার সেমিনোল হার্ড রক হোটেল অ্যান্ড ক্যাসিনোতে।

সেখান থেকেই প্রায় ৩ ঘণ্টা ধরে টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয় এই অনুষ্ঠান। সাবেক মিস ইউনিভার্স দক্ষিণ আফ্রিকার জোজিবিনি তুনঝি অ্যান্দ্রের মাথায় মিস ইউনিভার্সের মুকুট পরিয়ে দেন। আয়োজনে ভারতীয় প্রতিযোগী অ্যাডলিন ক্যাসেলিনো তৃতীয় রানার-আপ নির্বাচিত হয়েছেন।

বলে রাখা ভালো, মেক্সিকো এ বছরের বিজয়ী মিলিয়ে মোট তিনবার মিস ইউনিভার্সের খেতাব জিতে নিল। এর আগে ১৯৯১ সালে লুপিটা জোনস এবং ২০১০ সালে জিমেনা নাভাররেতে মিস ইউনিভার্স হয়েছিলেন। এবারের প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছেন মিস ব্রাজিল জুলিয়া গামা এবং তৃতীয় হয়েছেন মিস পেরু জ্যানিক মাসেতা দেল কাসিলো।

mithila2.jpg

অভিনেতা তাহসান রহমান খানের সঙ্গে পাঁচ বছর আগে অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের পর প্রথমবারের মতো শনিবার (১৫ মে) রাতে ইভ্যালির আয়োজনে ‘স্যাটারডে নাইট সারপ্রাইজ’ শিরোনামে এক লাইভ শো’তে অংশ নেন সাবেক এ তারকা জুটি।

বিচ্ছেদের বিষয়টি নিয়ে ভক্তদের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া পেলেও তারকা সহকর্মীদের মধ্যেই কেউ কেউ এটিকে ‘ভালোভাবে নেননি’ বলে জানালেন মিথিলা। এমনকি দুইজন সহকর্মীর বুলিংয়ের শিকার হয়েছেন। সম্পর্ক, বিয়ে ও বিচ্ছেদ কোনও অপরাধ নয় বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

প্রতিনিয়ত সামাজিক মাধ্যমে ‘কুরুচিপূর্ণ’ মন্তব্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন সাবেক এ তারকা জুটি। রোববার এক ফেইসবুক স্ট্যাটাসে সেই সহকর্মীর নাম না উল্লেখ করে মিথিলা বলেছেন, “তাদের মধ্যে একজন লিখেছেন, ‘বিয়ে, ডিভোর্স…সব নাকি বেচে দিলাম।”

সহকর্মীর এমন মন্তব্যে প্রশ্ন তুলেছেন মিথিলা, ” আপনি চাইছেন, বিচ্ছেদের পর দুইজন মানুষ পেশাদার কোনও কাজে যুক্ত হতে পারবে না? পাবলিক ফিগাররা তাদের সম্পর্ক, বিয়ে ও বিচ্ছেদের কথা লুকিয়ে রাখবে? তারা এটা কেন করবে? এটা কোনও অপরাধ নয়! “আপনি চান, বিচ্ছেদের পর তারকাদের মুখ দেখাদেখি আজীবনের জন্য বন্ধ থাকবে? এটা কী আপনার জন্য স্বাভাবিক? ”

ফেইসবুক স্ট্যাটাসে বলছেন, “আরেকজন তারকা লিখেছেন, ‘ডিভোর্সের পর এত শ্রদ্ধা, বন্ধুত্ব, আগে কই ছিল এই সব?’

তাকে উদ্দেশ্য করে এ অভিনেত্রী বলেন, “ভাই, আগেও ছিল। এখনও আছে। তবে দুটো দুই রকম। এত ব্যাখ্যা আপনাকে দিতে পারছি না। আপনি নেতিবাচক কথা না ছড়িয়ে নিজের চরকায় তেল দিলে সমাজ ও জাতি উপকৃত হবে।”

২০১৭ সালের অক্টোবরে আনুষ্ঠানিকভাবে দাম্পত্যজীবনের ইতি টানার ঘোষণা দেন তাহসান-মিথিলা। তাদের একটি মেয়ে আছে।

shopping.jpg

করোনা সংক্রমণরোধে চলমান বিধি-নিষেধের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শপিংমল ও বাণিজ্যবিতান খোলা রাখার ঘোষণা দিয়েছে দোকান ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি।

সোমবার (১৭ মে) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংগঠনটির সভাপতি তৌফিক এহসান বলেন, সরকারের সব নির্দেশনা মেনে ঢাকাসহ সারাদেশের সব বাণিজ্য বিতান, শপিংমল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সরকার ঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৭ মে থেকে ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্য দপ্তরের নীতিমালা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নির্দেশাবলী পালন করে নিজে এবং ক্রেতাকে ঝুঁকিমুক্ত রেখে ব্যবসা পরিচালনা করতে চাইলে পারবেন। তবে কেউ যদি তার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখেন এটা তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।

এতে আরও বলা হয়েছে, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ‘মাস্ক নাই সেবা নাই’ সহ সরকারি সব নিষেধাজ্ঞা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে পরবর্তী সরকারের নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত ঢাকা শহরসহ সারাদেশের সব বাণিজ্য বিতান, শপিংমল খোলা থাকবে।

সংগঠনটির পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শপিংমল ও দোকানপাট খোলা রাখার অনুমোদন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।