খবর Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

Eyrin-khan.jpg

জাতিসংঘে মতপ্রকাশের স্বাধীনতাবিষয়ক বিশেষ দূতের দায়িত্ব পেলেন আইরিন জুবাইদা খান।

তিনি ২০১৪ সালে নিয়োগ পাওয়া ডেভিড কায়ির স্থলাভিষিক্ত হবেন।

আগস্ট থেকে তিন বছরের জন্য এই দায়িত্ব পালন করবেন সিলেটের মেয়ে আইরিন খান।

আইরিন খান লম্বা তালিকা পার হয়ে এই অবস্থানে আসেন। যদিও বাছাই পর্বের চূড়ান্ত শর্ট লিস্টে আইরিন খান ছিলেন এক নম্বরে।

এর আগে ২০০১ সালে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সপ্তম মহাসচিব হন অনেকগুলো প্রথমকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করে।

যেমন—প্রথম নারী, প্রথম বাংলাদেশি, প্রথম এশীয় এবং প্রথম মুসলিম হিসেবে।

জেনেভায় জাতিসংঘের হিউম্যান রাইটস কাউন্সিলের বৈঠকে আইরিন খানের নাম প্রস্তাব করা হলে সদস্য দেশগুলো তার নিয়োগ চূড়ান্ত করার পক্ষে মত দেন।

১৯৫৬ সালের ২৪ ডিসেম্বর আইরিন খান ঢাকাতে জন্মগ্রহণ করেন। আইরিন খান পূর্ব পাকিস্তানের একটি বিত্তবান পরিবারে বেড়ে ওঠেন।

তবে তার পূর্বপুরুষরা ছিলেন সিলেটের। তিনি পড়াশোনার জন্য ইংল্যান্ডে যান এবং সেখানে ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি অভ ম্যানচেস্টারে পড়ালেখা করেন।

সেখান থেকে তিনি হার্ভার্ড ল’ স্কুল-এ পড়তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গমন করেন।

সেখানে তিনি আন্তর্জাতিক আইন এবং মানবাধিকার নিয়ে গবেষণা করেন এবং ১৯৭৮ সালে স্নাতক লাভ করেন।

আইরিন খান ২০০২ সালে ফোর্ড ফাউন্ডেশন ফেলোশিপ, পিলকিংটন ওম্যান অভ দি ইয়ার পুরস্কার ২০০৬ সালে সিডনি শান্তি পুরস্কার লাভ করেছেন।

২০০৭ সালে গেন্ট বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে একটি প্রাতিষ্ঠানিক সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে।

ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন চ্যান্সেলর নির্বাচনের জন্য যে দুজন ব্যক্তি মনোনিত হন, তার মধ্যে তিনি একজন।

তিনি ২০০৯ সালের জুলাই মাসে স্যালফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিযুক্ত হন।

২০১০ সালে ইংরেজি দৈনিক দি ডেইলি স্টারে পরামর্শ দাতা সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন।

আইরিন খান অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মহাসচিব থাকাকালীন সময়ে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় ছিলেন বেশ সরব। সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন উক্ত বিষয় এবারও তিনি বিশেষ ভূমিকা রাখবেন।

hasina22.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জন্মাষ্টমী উৎসব শ্রীকৃষ্ণের ভক্তগণকে তাঁর জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে অনুপ্রাণিত করবে।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে দেয়া বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি আশা করি, এই জন্মাষ্টমী উৎসব শ্রীকৃষ্ণের ভক্তগণকে তাঁর জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে আরো অনুপ্রাণিত করবে।”

তিনি আরো আশা প্রকাশ করেন, ‘সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম-আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে।

প্রতিষ্ঠিত হবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আজীবন লালিত ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ’।

শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মদিবস জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বী সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, শ্রীকৃষ্ণের জীবনের উদ্দেশ্য ছিল মানুষে মানুষে ভ্রাতৃত্ব স্থাপন এবং সমাজে সাম্য প্রতিষ্ঠা।

তিনি আজীবন শান্তি, মানবপ্রেম ও ন্যায়ের জন্য কাজ করে গেছেন। শ্রীকৃষ্ণ তাঁর জীবনাচরণ এবং কর্মের মধ্য দিয়ে মানুষের আরাধনা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষ যুগ যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছে।

আমাদের সংবিধানে সকল মানুষের সমানাধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার।’

সরকার দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘শ্রীকৃষ্ণের আদর্শ ও শিক্ষা বাঙালির হাজার বছরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরো সুদৃঢ় করবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বর্তমানে বিশ্ব বিপর্যস্ত। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে মহামারী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। তিনি এ প্রেক্ষাপটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সবাইকে এবারের জন্মাষ্টমী উদযাপনের আহ্বান জানান।

তিনি জন্মাষ্টমী উপলক্ষে দেশের সকল নাগরিকের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করেন।

Tapos2.jpg

ডিসেম্বরের মধ্যে রাজধানীতে অবৈধভাবে টানানো উন্মুক্ত ক্যাবলের জঞ্জাল অপসারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

দুপুরে রাজধানীর মহানগর মহিলা কলেজের গর্ভনিংবডির সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

ক্যাবল জট অপসারণের কাজ চলমান থাকবে জানিয়ে মেয়র বলেন, শিগগিরই রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিরসনের মহাপরিকল্পনা প্রনয়ন করা হবে।

এ লক্ষ্যে আগামি সপ্তাহে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানান তিনি।

মেয়র তাপস বলেন, আবশ্যকীয়তা ছাড়া সকল ধরনের তার আমরা অপসারণ করবো।

ব্যাপকভাবে যে জঞ্জাল সৃষ্টি করা হয়েছে, সেটা খুলতেও অনেক সময় লেগে যায়।

তারপরও আমরা লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে ঢাকা শহরকে তারের জঞ্জালমুক্ত করবো।

গত ৫ আগস্ট ডিএসসিসি ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অবৈধ ক্যাবল সংযোগ উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করেছে।

মেয়র বলেন, দক্ষিণ ঢাকাকে নিয়ে আমাদের মহাপরিকল্পনা প্রণয়নের কাজ চলছে। এ নিয়ে আগামী বুধবার একটি কর্মশালা হবে।

সেখানে আরো ব্যাপক উপস্থাপনা হবে। আমরা মহাপরিকল্পনার আওতায় দীর্ঘমেয়াদি জলাবদ্ধতা নিরসনের দিকে এগিয়ে যাবো।

এসময় দিনের বেলা রাস্তার ওপর উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য না ফেলতে নগরবাসীর প্রতি আহবান জানান মেয়র।

এর আগে, কলেজ প্রাঙ্গনে মুজিব কর্ণারের শুভ উদ্বোধন মেয়র।

tajul6.jpg

দেশের উন্নয়নে অবকাঠামো ও নির্মাণ প্রকল্পে গুনগতমান নিশ্চিত করতে কোন বাঁধার কাছে নতি স্বীকার না করতে নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় সরকার. পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

সোমবার মন্ত্রণালয়ের নিজ কক্ষ থেকে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতাধীন মাঠ পর্যায়ে কর্মরত প্রকৌশলীদের নিয়ে আয়োজিত এক অনলাইন সভায় সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, কাজের গুণগত মান সবসময় নিশ্চিত করতে হবে। নিম্নমানের কাজ, অনিয়ম-দূর্নীতি কোন অবস্থাতেই সহ্য করা হবে না বলে সতর্ক করেন মন্ত্রী। অনিয়ম-দূর্নীতির সাথে যেই জড়িত থাকুক না কেন তাদেরকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর মাঠ পর্যায়ে যাবতীয় উন্নয়নমূলক কাজের গুণগত মান নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ৬৪ টি জেলার নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরে মাননিয়ন্ত্রণ ল্যাবরেটরি স্থাপন করেছে। যেখানে উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত নির্মাণসামগ্রীর গুণগত মান পরীক্ষা করা হয়।

তাজুল ইসলাম বলেন, অনেক সময় দেখা যায় সম্পূর্ণ রাস্তায় বক্স একবারে কেটে ফেলে রাখা হয়, এটি করা যাবে না এবং বক্স কেটে বেড ফিলিং করে অবশ্যই রোলার করতে হবে।

দেশে পেশাদার ঠিকাদার তৈরি করার উপর গুরুত্বারোপ করে ঠিকাদারদের নিম্নমানের কাজের জন্য তাদের শাস্তির আওতায় আনতে একটি গাইডলাইন প্রস্তুত করতে সংশ্লিদের নির্দেশও দেন মন্ত্রী।

এসময়, গ্রামীন রাস্তাঘাট নির্মাণের সময় যাতে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার না হয় সেজন্য মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করতে মাঠ পরযায়ের প্রকৌশলীদের নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।

Sifat-Sipra.jpg

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে প্রত্যেকটি সত্য তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন শিপ্রা দেবনাথ।

এ সময় শিপ্রা দেবনাথ বলেন, হঠাৎ করে সব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাগুলো ঘটে যাওয়ায় আমরা ট্রমাটাইজড।

আমাদের সঙ্গে যা হয়েছে, যে অন্যায়টা হয়েছে; দেশবাসী সবসময় আমাদের সঙ্গে ছিলেন। আমরা তাদের উদ্দেশে বলব- ‘প্লিজ, প্রে ফর আস।

সিফাত এবং আমি আপনাদের প্রতি অনেক কৃতজ্ঞ। আপনারা আমাদের পাশে ছিলেন, পাশে থাকবেন। আপাতত এতটুকুই বলার আছে।

আমরা প্রত্যেকটা কথা বলব। প্রত্যেকটা সত্যি বলব। একটু সময় দেন। প্রচুর গুজব শোনা যাচ্ছে। আমরা বিভ্রান্তিমূলক নিউজ চাই না।

এদিকে সাহেদুল ইসলাম সিফাত বলেন, মানসিকভাবে শারীরিকভাবে আমি সম্পূর্ণ সুস্থ আছি।

একটা গুজব ছড়িয়েছিল যে হয়তো আমার পায়ে গুলি লেগেছিল। আসলে এ রকম কিছু হয়নি। আমি সম্পূর্ণ সুস্থ আছি।

আশা করি সুষ্ঠু তদন্ত হবে। সুষ্ঠু বিচার হবে। আর তো কিছু চাওয়ার নাই। আর যিনি চলে গেছেন তাকে তো আর ফেরানো যাবে না।

প্রসঙ্গত, ঈদের আগের রাতে (৩১ জুলাই) কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ রোডে টেকনাফের বাহারছড়া চেকপোস্টে তল্লাশির সময় পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন সাহেদুল ইসলাম সিফাত। ভ্রমণ বিষয়ক তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্য মেজর (অব.) সিনহা, শিপ্রা, সিফাত ও তাসকিন ৩ জুলাই থেকে কক্সবাজারে অবস্থান করছিলেন।

Minni.jpg

করোনার কারণে বন্ধ থাকার পাঁচ মাস পর পুনরায় শুরু হয়েছে আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার বিচারিক কার্যক্রম।

সোমবার সকালে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে প্রাপ্তবয়ষ্ক আসামিদের বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়।

এ সময় জামিনে থাকা আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ১০ আসামি হাজির হন।

রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট এম মজিবুল হক কিসলু বলেন, আদালতে আসামিদেরকে ৭৬ জন সাক্ষীর দেয়া সাক্ষ্য পড়ে শোনানো হবে।

এছাড়াও আসামিদের সাফাই সাক্ষী গ্রহণ ও কোনো কাগজপত্র জমা দেয়া হবে কিনা জানতে চাওয়া হবে।

কোনো আসামির পক্ষে কাগজপত্র জমা দেয়ার না থাকলে আজকেই আদালতে বিচারিক কার্যক্রম শেষ হতে পারে।

রিফাত হত্যা মামলায় মোট ২৪ জনকে আসামি করে দুটি ভাগে চার্জশিট দেয় পুলিশ। এর মধ্যে ১০ জন প্রাপ্তবয়স্ক ও ১৪ জন শিশু।

মামলায় প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে মিন্নি ও শিশু আসামিদের মোট আটজন জামিনে আছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে বন্ড গ্রুপ।

এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে দেশব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি হয়।

Jonmastomi.jpg

সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের আরাধ্য ভগবান শ্রী কৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী আজ।

দিনটি দেশের হিন্দু সম্প্রদায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে জন্মাষ্টমী পালন করবেন।

তবে এবার জন্মাষ্টমী অনুষ্ঠান যথারীতি ধর্মীয় রীতি অনুসরণ করে পূজা-অর্চনার মাধ্যমে পালিত হবে।

জন্মাষ্টমী সংশ্লিষ্ট সব অনুষ্ঠানমালা মন্দিরাঙ্গনে সীমাবদ্ধ থাকবে।

এ উপলক্ষে সর্ব প্রকার সমাবেশ, শোভাযাত্রা বা মিছিল করা থেকে বিরত থাকারও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সনাতন ধর্মালম্বীদের বিশ্বাস, প্রায় পাঁচ হাজার বছর পূর্বে অশুভ শক্তিকে দমন করে সত্য ও সুন্দরের প্রতিষ্ঠায় ধরাধামে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব ঘটেছিল।

তার আবির্ভাব বিশ্বের ইতিহাসে এক নতুন যুগের সূচনা করে।

নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষকে রক্ষায় তিনি পরিত্রাতার ভূমিকা পালন করেন, অন্ধকার সরিয়ে পৃথিবীকে আলোয় উদ্ভাসিত করেন।

পাশবিক শক্তি যখন ন্যায়নীতি, সত্য ও সুন্দরকে গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন সেই শক্তিকে দমন করে মানবজাতির কল্যাণ এবং ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠার জন্য মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব ঘটেছিল।

তাদের আরো বিশ্বাস, দুষ্টের দমন করতে এভাবেই যুগে যুগে ভগবান মানুষের মাঝে নেমে আসেন এবং সত্য ও সুন্দরকে প্রতিষ্ঠা করেন।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ ও জেলা, মহানগর শাখাসমূহের মধ্যে ভার্চ্যুয়াল সভার মতামতের আলোকে বৈশ্বিক করোনা অতিমারীজনিত পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে জন্মাষ্টমী অনুষ্ঠান যথারীতি ধর্মীয় রীতি অনুসরণ করে পূজা-অর্চনার মাধ্যমে পালন এবং জন্মাষ্টমী সংশ্লিষ্ট সব অনুষ্ঠানমালা মন্দিরাঙ্গনে সীমাবদ্ধ থাকার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী জানান, উৎসব উদযাপনে কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির প্রাঙ্গনে একদিনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

আজ সকাল ৮ টায় দেশ, জাতি ও বিশ্ব মঙ্গল কামনায় শংকর মঠ ও মিশন, সীতাকু-’র সন্ন্যাসীদের পরিচালনায় শ্রীশ্রী গীতাযজ্ঞ অনুষ্ঠিত হবে ও রাতে শ্রী শ্রী কৃষ্ণ পূজা অনুষ্ঠিত হবে। পুরো অনুষ্ঠান সরকার নিদের্শিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা রামকৃষ্ণ মঠে এ উপলক্ষে সকাল ৯টা থেকে ১১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত গীতা পাঠের আয়োজন করা হয়েছে।

গীতা পাঠ করবেন স্বামী দেবধ্যানানন্দ ও ব্রক্ষ্রচারী ভাস্কর। অন্যকর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ভজন ,দুপুরে মধ্যাহ্নে প্রসাদ বিতরন, রাত ৭ টা ৪০ মিনিটে গুরু মহারাজের বানীবর্চন ও রাত ৮ টায় শ্রীকৃষ্ণ পূজা।

মন্দিরে আসন গ্রহন ও প্রসাদ গ্রহনের সময় ভক্তদের স্বাস্থ্যগত ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা ও মাস্ক পরিধান আবশ্যক বলে মঠের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটি। বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনসহ বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে বিশেষ অনুষ্ঠান।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জন্মাষ্টমী উপলক্ষে পৃথক বাণীতে হিন্দু সম্প্রদায়কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

মহানবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মদিন জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত ও সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটারর্জী এবং মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্র নাথ মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট কিশোর রঞ্জন মন্ডল আজ এক বিবৃতিতে- জাতি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষকে জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

gas22.jpg

রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে ৬ ঘণ্টার জন্য গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

সোমবার তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে রুট অ্যালাইনমেন্ট এর মধ্যে বিদ্যমান ইউটিলিটি প্রতিস্থাপন/অপসারণ প্রকল্পের দ্বিতীয় ট্রাঞ্চের ২য় পর্যায়ে মহাখালী বাস টার্মিনাল হতে মগবাজার রেলক্রসিং পর্যন্ত গ্যাস পাইপ লাইন স্থানান্তর ও গ্রাহক সংযোগ প্রতিস্থাপন কাজের টাই-ইন করা হবে বর্ণিত সময়ে।

তেজগাঁও রেলস্টেশন সংলগ্ন এলাকা, তেজকুনিপাড়া, পশ্চিম নাখালপাড়া এবং কাছাকাছি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এসব এলাকায় আবাসিক, বাণিজ্যিক, শিল্প ও সিএনজি গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

গ্রাহকবৃন্দের সাময়িক অসুবিধার জন্য তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

Sub-marine-cable.jpg

দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের পাওয়ার সাপ্লাইয়ের সংযোগ ক্যাবল কাটার অভিযোগে কুয়াকাটা পৌর মেয়রের ভাই হোসেন মোল্লাসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে তাদের গ্রেপ্তার করে মহিপুর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তার অন্য আসামি হলেন মাটি ব্যবসায়ী আবুল হোসেন।

এর আগে সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের নিরাপত্তা কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ ৫ জনের নাম উল্লেখ করে ৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন।

প্রসঙ্গত, রোববার অনুমতি ছাড়া কলাপাড়ার আলীপুরের গোড়া আমখোলাপাড়া গ্রামে বেড়িবাঁধের পাশে অবৈধভাবে স্কেবেটর দিয়ে মাটি কেটে জমি ভরাট করতে গিয়ে কেটে ফেলা হয় প্রায় দুই মিটার গভীরে থাকা সাবমেরিন ক্যাবলের সঞ্চালন লাইন। এতে সারাদেশে ইন্টানেটে ধীরগতি হয়ে পড়ে।

এরপর প্রায় ১১ ঘণ্টা ইন্টারনেট সংযোগ লাইন বিচ্ছিন্ন থাকার পর রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্বাভাবিক হয় ইন্টারনেট সরবরাহ।

Padma31.jpg

পদ্মা সেতুর দুপাশে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। নদী গতিপথ পরিবর্তন করে ভিতরে ঢুকে পড়ছে।

সেতুর ১ কি.মি. পূর্বে কুমারভোগে কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড এবং পশ্চিমে পুরাতন ফেরীঘাট এলাকায় গত কয়েক বছরে দুদফা ব্যাপক ভাঙন দেখা দেয়।

মূল সেতুর দুই পাশে এ ভাঙন পদ্মা সেতুর জন্য দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে

২০১৫ সালে ভাঙনে তিনটি জেটিসহ কোটি টাকার সম্পদ নদীগর্ভে বিলীন হয়। নদী তার গতিপথ পরিবর্তন করে প্রায় ৫০ মিটার ভিতরে ঢুকে পড়ে।

এ বছর আবারো সেখানে তীব্র ভাঙন দেখা দেয়। এতে পদ্মা সেতুর এবং রেল পথের রোড স্ল্যাব, গার্ডার ক্রেনসহ বিপুল অঙ্কের সম্পদ নদীগর্ভে বিলীন হয়।

একি অবস্থা মাওয়ায় পুরাতন ফেরী ঘাট এলাকাতেও। ইতোপূর্বে হঠাৎ তীব্র ভাঙনে ফেরীঘাট, দোকানসহ বিস্তৃর্ণ এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়।

সম্প্রতি নদী শাসন করতে গভীরতা ৭০ ফুট বৃদ্ধি করার পর চলতি বর্ষা মৌসুমে সেখানে আবারো ব্যাপক ভাঙন দেখা দেয়।

এতে কান্দিপাড়ার পশ্চিমে নদী কয়েকশত ফুট ভিতরে ঢুকে পড়েছে।

যে কোন সময় নদীর স্রোত সোজা পথে প্রবাহিত হয়ে পুরাতন ফেরীঘাটসহ বিস্তৃত এলাকা গ্রাস করতে পারে।

হুমকির মধ্যে পরতে পারে মূল সেতু এলাকা।

পদ্মার ভাঙনের চরিত্র বোঝা দায়। ফলে মাওয়া এলাকায় সেতুর পাইলিংয়ের নকশায় পরিবর্তন আনতে হয়।

কোন এক স্থানে হঠাৎ ঘূর্ণিপাকে ১৫/২০ ফুট নিচের মাটি সরে গিয়ে কয়েক কি. মি. এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

ইতোপূর্বে পদ্মার করাল থাবায় কয়েকদিনে লৌহজেং দিঘলীবাজার থেকে ঘোড় দৌড় বাজার পর্যন্ত কয়েক কি. মি. এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়।