জাতীয় Archives - Page 5 of 34 - Dhaka Today

hsrwa.jpg

বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের পর আজও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয় এলাকায়। সংঘর্ষের ঘটনায় তিনটি মামলায় এখন পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে গ্রেফতার আতঙ্ক বিরাজ করলেও নেতাকর্মীদের স্লোগানে ফের মুখর বিএনপি কার্যালয়।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) সকাল ১০টায় নয়াপল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। সকাল থেকে দলের কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল হাতে গোনা। তবে বেলা বাড়ার সাথে তা বাড়তে থাকে। তারা দলীয় নেতাদের নামে ব্যানার ফেস্টুন এবং ধানের শীষ নিয়ে শোডাউন করছেন।

এদিন ফরিদপুর-২ আসনের মনোনয়নপত্র জমা দিতে পল্টন পার্টি অফিসে আসেন সাবেক বিএনপি নেতা কে এম ওবায়েদুর রহমানের মেয়ে শামা ওবায়েদ।

দুপুর পৌনে ১২টায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে গাড়িতে উঠার সময় দলীয় কর্মীরা তাকে ঘিরে ধরে সেলফি তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। কাউকে না করছেন না তিনি। অনেকক্ষণ রোদে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার আবদার রক্ষা করেন। একটু পর অবশ্য ব্যাগ থেকে রোদচশমা বের করে চোখে দেন।

তিনি কে জানতে চাইলে একজন কর্মী বলে উঠেন, আপারে চিনেন না! দল ক্ষমতায় গেলে আপা কনফার্ম মন্ত্রী হবে। উনি শামা ওবায়েদ, সাবেক বিএনপি নেতা কে এম ওবায়েদুর রহমানের মেয়ে।

শুধু শামা ওবায়েদ নন, যারাই মনোনয়ন দিতে আসেন তাদের সঙ্গে নেতাকর্মীরা প্রমাণ রাখতে সেলফি তুলে রাখছেন। কাউকে কাউকে মিস্টি খাওয়ার আবদার করতে দেখা যায়। নেতারা তাদের আবদার রক্ষা করার চেষ্টা করেছেন যথাসাধ্য।

উল্লেখ্য, ১২ নভেম্বর (সোমবার) দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নতুন তফসিল ঘোষণা করেন। নতুন তফসিলে ভোটগ্রহণ হবে ৩০ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর।

ec-helal-20181109150937-1.jpg

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই সেনা মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ। বলেছেন, সংসদ নির্বাচনের দুই থেকে তিনদিন অথবা সাত থেকে দশ দিন আগে নির্বাচনী এলাকায় সেনাবাহিনী মোতায়েন থাকবে। ওই সময় বিজিবিও মোতায়েন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে ইসি সচিবালয়ের অডিটরিয়ামে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশে দেয়া ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এদিন ব্রিফিংয়ে চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশাল বিভাগের সহকারী রিটানিং কর্মকর্তারা অংশ নেন।

হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, ইসি থেকে যে পরিপত্র জারি করা হয়েছে তা হুবহু মানতে হবে। যারা এর ব্যাত্যয় ঘটাবে তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, আগাম নির্বাচনী ব্যানার-পোস্টার-ফেস্টুন নামাতে যে সময় দেওয়া হয়েছে তার মধ্যে একাজ শেষ করতে হবে। নির্দেশ না মানলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে কমিশন।

ইসি সচিব বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর।

এ সময় সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশে সভাপতির বক্তব্যে হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, কোথায় প্রিসাইডিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে সেটা এখন থেকে ঠিক করে রাখতে হবে। এবং যেখান থেকে ফলাফল ঘোষণা করা হবে এখন থেকে ঠিক করে রাখতে রাখতে হবে। আর কোথায় থেকে নির্বাচনী মালামাল সরবরাহ করা হবে। সেখানে নিরাপত্তা জোরদার এখন থেকেই করতে হবে বলে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন ইসি সচিব।

তিনি বলেন, গতকাল নয়াপল্টনে শোডাউনকে কেন্দ্র করে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে । এটা যেন আর পুনরাবৃত্তি না হয়। আচরণবিধি ঠিকভাবে যেন পালন হয় সেদিকে আপনারা নজর রাখবেন।

অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, এবার নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মুখ দেখানো যাবে না।

তিনি বলেন, কোনো কর্মকর্তা শিথিলতা দেখালে তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে। নির্বাচনের পরিবেশ ভালো থাকবে বলেও আশা প্রকাশ করেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

পুনঃনির্ধারিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন ২ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ ডিসেম্বর এবং ভোটের দিন ৩০ ডিসেম্বর।

bnplogoi.jpg

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরাও ধানের শীষ প্রতীকে অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে মতিঝিলে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের মতিঝিলের চেম্বারে বৈঠক শেষে তিনি এ কথা জানান। এতে সভাপতিত্ব করেন ফ্রন্টের প্রধান ড. কামাল হোসেন।

গতকাল বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সমনে পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের প্রেক্ষিতে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, জোটবদ্ধভাবে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সরকারি দল নির্বাচন না পেছাতে নির্বাচন কমিশন কে হুমকি দিচ্ছে। অন্যদিকে গতকাল আওয়ামী লীগ নেতা এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে ইসির কথা বলেছে।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ক্ষমতায় গেলে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন- তার চিন্তা সরকারি দলের না করলেও চলবে।

hasina-rehna.jpg

বিজয় সরণিতে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর প্রাঙ্গণে নবনির্মিত তোষাখানা জাদুঘর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ছোটবোন শেখ রেহানাও। ছোটবোনকে কাছে পেয়ে আপ্লুত হয়ে পড়েন শেখ হাসিনা। তিনি ছোটবোনকে আদর করে চুমুও দেন।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) এভাবেই ছোটবোন শেখ রেহানাকে আদর করে বুকে টেনে নেন শেখ হাসিনা।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর ছোটবোনের এমন আদরের দৃশ্য সামাজিকমাধ্যমে মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

এদিনের অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা শুধু আমাদের স্বাধীনতাই দিয়ে যাননি, তিনি আমাদের একটি স্বতন্ত্র দেশ উপহার দিয়ে গেছেন।

তিনি আরও বলেন, জাতি হিসেবে আমাদের তিনি মর্যাদা দিয়ে গেছেন। সেই মর্যাদা আমাদের রক্ষা করতে হবে। এই দেশকে আমাদের গড়ে তুলতে হবে। ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত সোনার দেশ গড়ে তুলতে হবে। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

pm8hj.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করবো এবং ওই সময়ের মধ্যে দেশকে আমরা ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত করে গড়ে তুলবো। আর ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে দক্ষিণ এশিয়ার একটি উন্নত সমৃদ্ধ দেশ।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) নবনির্মিত তোশাখানা জাদুঘরের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা আমাদের স্বাধীনতা ও মর্যাদা দিয়ে গেছেন। এই মর্যাদাকে আমাদের সমুন্নত রাখার কাজ আমাদেরই করতে হবে।

এদিন তিনি দেশের মর্যাদা সমুন্নত রাখতে এবং দেশকে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত করতে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, গত ১০ বছরে জনগণের জীবন-মান অনেক উন্নত হয়েছে এবং এই জীবন-মানের আরও উন্নয়ন ঘটাতে চাই।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ রেহানাসহ মন্ত্রী পরিষদ সদস্য, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, কূটনীতিক কোরের সদস্য, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ecty.jpg

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানো আর সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে তিনি এ তথ্য জানান।

এর আগে বুধবার (১৪ নভেম্বর) ইসির সঙ্গে বৈঠকের পর ঐক্যফ্রন্টের নেতা ড. কামাল হোসেন জানিয়েছিলেন, সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর ব্যাপারে ইসি বিবেচনা করে তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে কমিশন বৈঠক করে এই ভোটের দিন আর না পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয়।

অন্যদিকে গতকালই ইসির সঙ্গে বৈঠক করে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল। বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের কো-চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিকবিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) পরিষ্কার বলেছি, ৩০ তারিখ পর্যন্ত নির্বাচন পিছিয়েছেন। আর নয়। একদিনও নয়, এক ঘণ্টাও নয়।

উল্লেখ্য, ১২ নভেম্বর (সোমবার) দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নতুন তফসিল ঘোষণা করেন। নতুন তফসিলে ভোটগ্রহণ হবে ৩০ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর।

dt008735.jpg

আসন্ন নির্বাচন নিয়ে সরকারের অবস্থান ও নির্বাচন কমিশনের প্রস্তুতির বিষয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের জানাতে যাচ্ছে সরকার।

আজ বিকালে এ নিয়ে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এক ডিপ্লোম্যাটিক ব্রিফিং এর আয়োজন করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাহমুদ আলী ছাড়াও ব্রিফিং-এ প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম উপস্থিত থাকতে পারেন।

ব্রিফিং এ বিদেশী কূটনীতিক ও উন্নয়ন সংস্থার প্রতিনিধিরা তাদের জিজ্ঞাসা জানতে প্রশ্ন করার সুযোগ পাবেন বলে জানা গেছে।

dt-khaleda-3.jpg

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল থেকে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিট আবেদনের ওপর আদেশের দিন পেছাল। আদেশের জন্য আগামী রোববার দিন ধার্য করেছেন আদালত।

খালেদা জিয়ার সম্পূরক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন নির্ধারণ করেন।

এর আগে মঙ্গলবার হাইকোর্ট বেঞ্চ আদেশের জন্য আজ বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেছিলেন।

আদালতে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রমুখ।

আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোখলেছুর রহমান।

গত রোববার খালেদার পক্ষে আইনজীবী ব্যারিস্টার নওশাদ জমির সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি করেন।

বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিতে নির্দেশনা চেয়ে এর আগে খালেদা জিয়ার করা রিট আবেদনটি গত ৪ অক্টোবর নিষ্পত্তি করে কিছু নির্দেশনা ও পর্যবেক্ষণসহ আদেশ দেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের আদেশের পর চিকিৎসার জন্য ৬ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়। এর পর থেকে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। প্রায় এক মাস চিকিৎসার পর গত ৮ নভেম্বর বিএসএমএমইউ থেকে তাকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়। এখন তিনি সেখানেই আছেন।

বিএনপি নেতারা খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষ না করেই কারাগারে নেয়ার প্রতিবাদ জানান। তাদের দাবি, মেডিকেল বোর্ডের ছাড়পত্র ছাড়াই অসুস্থ খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়া হয়।

রোববার আইনজীবী নওশাদ জমির খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, কারা কর্তৃপক্ষ, বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষসহ ৯ জনকে রিটে বিবাদী করা হয়।

সেই রিটের ওপর আজ আদেশের দিন নির্ধারিত ছিল। কিন্তু এ মামলায় খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা কিছু সম্পূরক তথ্য দাখিল করায় আদালত আদেশের জন্য পুনরায় রোববার দিন নির্ধারণের আদেশ দেন।

dt-rizvi.jpg

গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক নির্বাচনী আচরণবিধির ১৪ (২) ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
আজ বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
রিজভী বলেন, গণভবনে আওয়ামী লীগের প্রায় সাড়ে চার হাজার প্রার্থী সাক্ষাৎকার ও সেখানে সম্মিলিত হওয়ার দলীয় সভার আয়োজন করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। অথচ এ রকম একটি রাষ্ট্রীয় স্থাপনায় ও সরকারি অর্থায়নে সম্পূর্ণরূপে নিয়মবহির্ভূত। আর এ বিষয়ে নিশ্চুপ নির্বাচন কমিশন। এখন প্রধান নির্বাচন কমিশনার টু শব্দটিও করেননি।
তিনি বলেন, গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক নির্বাচনী আচরণবিধির ১৪ (২) ধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।
ওই ধারা অনুযায়ী, রাষ্ট্রীয় সুবিধাভোগী ব্যক্তিরা রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেন না। শেখ হাসিনার জন্য কোনো আইনই প্রযোজ্য নয়।
তিনি অভিযোগ করেন, গণভবনের আশপাশের রাস্তায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ভিড়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কোনো আক্রমণ চালায়নি। শাসকগোষ্ঠীর চোখের ইঙ্গিতেই পুলিশ নড়াচড়া করে। ভোটারশূন্য করে রক্তাক্ত পথেই তারা নির্বাচন পার করতে চায়।
তিনি বলেন, নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর অস্ত্র জমা দেয়ার ব্যাপারে এখনও কোনো নির্দেশনা দেয়নি নির্বাচন কমিশন। বিগত ১০ বছরে আওয়ামী লীগের ক্যাডারদের হাতে প্রচুর পরিমাণ বৈধ-অবৈধ অস্ত্র দেয়া হয়েছে।
নির্বাচনকালীন অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও বৈধ অস্ত্র জমাদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং জরুরি হলেও নির্বাচন কমিশন নির্বিকার ভূমিকা পালন করছে। এতে প্রমাণিত হয়-নির্বাচন কমিশন বিশেষ দলের পক্ষেই নির্বাচনী মাঠ সমতল করছে, বলেন রিজভী।

dt008732.jpg

২০ দলীয় জোটের প্রধান সমন্বয়ক এলডিপির সভাপতি কর্নেল অলি আহমদ বলেছেন, বর্তমান অবস্থা চলতে থাকলে নিরপেক্ষ নির্বাচন অসম্ভব এবং সেক্ষেত্রে বলতে চাই ২০ দল নির্বাচনে আসুক সরকার সেটা চায় কি না তাতে সন্দেহ আছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

কর্নেল অলি বলেন, নির্বাচন হবে কি না, আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো কি না সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে সরকারের ওপর। কারণ এই নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নাই। গত পরশু নির্বাচন কমিশন আইজিকে এক নির্দেশে বলেছে, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় কোনো মিছিল যাতে না হয় সে ব্যাপারে ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য। বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মনোয়নপত্র জমা দিতে আসা সারা দেশের লাখ নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশ বিনা উস্কানিতে হামলা চালায়। এতে নারী কর্মীসহ বিএনপির প্রায় ৬০/৭০ জন মারাত্মক আহত হন। এ সময় খালেদা জিয়ার মনোয়নয়নপত্র জমা দিতে আসা তার উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, গ্রাম সরকার বিষয়ক সম্পাদক গাইবান্ধা জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আনিসুজ্জামান খান বাবু, খুলনা জেলা বিএপির সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খানসহ নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করেছে।

তিনি বলেন, ঘটনার পর বিএনপি কার্যালয় যখন জনশূন্য তখন একদল হেলমেটধারী লোক গাড়ী ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।এই হেলমেট বাহিনী নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী কিশোর ছাত্র-ছাত্রীদের ওপরও হামলা চালিয়েছিল। তখন কর্তব্যরত সাংবাদিকদের অত্যাচার করেছিল।

তিনি বলেন, গাড়ীতে আগুন ধরিয়ে দেয়া যার ছবি পাওয়া গেছে সে ছেলেটি ছাত্রলীগের কর্মী বলে অনেকে অভিযোগ করেছেন।

মাত্র কয়েকদিন আগে ক্ষমতাসীন দল চার হাজারেরও বেশি মনোনয়নফরম বিক্রি করেছে। কেউ কেউ হাতি নিয়ে ঢাকঢোল বাজিয়ে মিছিল সহকারে এসেছে। নির্বাচন কমিশন তখন কোনো নির্দেশনা বা কোনো আদেশ জারি করেনি। প্রশাসন ও পুলিশ কোনো বাধা দেয়নি, কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। অন্যদিকে বিএনপির জনসমাগম দেখে তারা সঙ্কিত, কম্পমান, তারা হয়তো মনে এবার আর ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। গদি ছাড়তে হবে। এই ভয়ে তারা নিরাপরাধ নেতাকর্মীদের ওপর চড়াও হলো। এর দুদিন আগে লাখ লাখ নেতাকর্মী শান্তিপূর্ণভাবে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছে। কিন্তু হঠাৎ করে এমন কি হলো যে গতকাল হামলা চালাতে হলো। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সময় সমর্থকদের সংঘর্ষে দুজন মারাগেছে। তাতে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি বলেন, সরকার লেভেল প্লেইংফিল্ডের কথা। কিন্তু মাঠে ময়দানে যখন আমরা যাই তখন দেখি মন্ত্রীরা এখনও পুলিশ পাহাড়ায় চলে। কয়েক দিন আগে এরশাদ রংপুরে গিয়েছিল, সেখানে তাকে পুলিশের এসপি নিরাপত্তা দিয়েছে। তাহলে বিএনপি ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদেরও পুলিশের নিরাপত্তা দিতে হবে। অন্যথায় এজন্য নির্বাচন কমিশনকে এক সময় জনগণের কাছে জবাব দিতে হবে।

জাতীয় রাজনৈতিক দল ও জোটের সাথে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী কথা দিয়েছিলেন যে, নির্বাচনী তফসীল ঘোষণার পর কোন রাজনৈতিক মামলা দেয়া যাবে না, রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করা হবে না এবং গায়েবী ও মিথ্যা মামলাগুলো প্রত্যাহার করা হবে। কিন্তু বাস্তবতা হলো তিনি একথা বলার পরেও শতশত রাজনৈতিক ও গায়েবী মামলা হয়েছে এবং হাজার হাজার রাজনৈতিক নেতা-কর্মীকে আসামী করে ঘর-বাড়ি ছাড়া করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ২০ দলের শীর্ষ নেতারা।


About us

DHAKA TODAY is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and 7 days in week. It focuses most on Dhaka (the capital of Bangladesh) but it reflects the views of the people of Bangladesh. DHAKA TODAY is committed to the people of Bangladesh; it also serves for millions of people around the world and meets their news thirst. DHAKA TODAY put its special focus to Bangladeshi Diaspora around the Globe.


CONTACT US

CALL US ANYTIME


Newsletter