খবর Archives - Page 4 of 41 - Dhaka Today

dt008718.jpg

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলছে।
আজ বুধবার দুপুর পৌনে একটার দিকে এই সংঘর্ষ বাধে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুঁড়ছে। বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করছে।বিএনপি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সোমবার (১২ নভেম্বর) থেকে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু করে। গত দুদিন মনোনয়নপত্র নিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল। এতে করে বিএনপি অফিসের সামনে ও তার আশপাশের এলাকায় যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তাই আজ বুধবার (১৪ নভেম্বর) যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতেই সকাল থেকেই দেখা যায় সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য।তাৎক্ষণিকভাবে জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি কেন্দ্র করে সড়কে বিএনপি নেতাকর্মীরা ভিড় করছিলেন। এতে সড়কে যান চলাচল ব্যাহত হওয়ায় পুলিশ সড়ক খালি করার চেষ্টা করছিল। এ থেকেই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বেশকয়েকজনের আহত হওয়া খবর পাওয়া গেছে।বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল থেকে চলছে তৃতীয় দিনের মনোনয়নপত্র বেচা-কেনা। ঢোল-বাদ্য নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে নেতাকর্মীরা  জমায়েত হচ্ছিল কার্যালয়ের সামনে। কিন্তু দুপুরে বিএনপি নেতাকর্মীদের টিয়ারশেল ও লাঠিচার্জ করে পুলিশ।এদিকে বিএনপি কার্যালয়ের ভেতর থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে তিনটি গেট।    

dt-AL-1.jpg

৩০০ আসনের ৪০২৩ মনোনয়নপত্র বিক্রি হলেও আওয়ামী লীগ হাইকমান্ড প্রায় ২০০ আসনে প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছে প্রার্থী। প্রায় একশ’ আসনে বাদ পড়ছেন পুরাতন এমপিরা। এসব আসনে জায়গা পাচ্ছেন তরুণ ও নারী প্রার্থীরা।
৯ নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে শুরু হয় দলের মনোনয়নপত্র বিক্রি। বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে প্রার্থীরা টানা চারদিন ধরে মনোনয়নপত্র নেন।
দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এবার মোট ৪০২৩টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়েছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার শেষে চুড়ান্তভাবে দলের প্রার্থী ঘোষণা দেবে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর একজন সদস্য আরটিভি অনলাইনকে জানান, আড়াই বছর ধরে চলা জরিপের মাধ্যমে সম্ভাব্য প্রার্থীদের তথ্য নেয়া হয়েছে। সে হিসেবে এবার তিনশোর মধ্যে একশো আসনে প্রার্থী পরিবর্তন হতে পারে। এলাকায় জনপ্রিয় ও আওয়ামী পরিবারের সদস্যদেরই মনোনয়ন দেয়া হবে।
তিনি বলেন, সংসদে সব পেশার প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে এবার খেলোয়ার, মিডিয়া ব্যক্তিত্বসহ বিভিন্ন পেশাজীবীদের মনোনয়ন দেয়া হবে।

dt008677.jpg

তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিএনপির কার্যালয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি। গত দুই দিনে তিন হাজারের বেশি ফরম বিক্রি হয় বলে বিএনপির পক্ষ থেকে জানানো হয়।
বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ে সকাল ১০টায় ফরম বিক্রির কথা থাকলেও এর আগেই ফরম সংগ্রহ ও জমা দেয়ার জন্য নেতাকর্মীরা ভিড় করেন।
সকালে কার্যালয়ে নেতাকর্মীর উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি।
প্রথম দিন ১ হাজার ৩২৬টি ও দ্বিতীয় দিনে ১ হাজার ৮৯৬টি ফরম সংগ্রহ করেছেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। আগামী ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত বিএনপির মনোনয়ন ফরম নেয়া ও জমা দেয়ার কার্যক্রম চলবে।

dt-AL-1.jpg

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ধানমন্ডি ৩/এ’তে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে যে সাক্ষাৎকারগ্রহণ কর্মসূচি ছিল, তা বাতিল করা হয়েছে।
এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচনের প্রথম তফসিল ঘোষণার পরদিন শুক্রবার (৯ নভেম্বর) থেকে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়।
টানা ৪ দিন যাবত ৮ বিভাগের জন্য পৃথক পৃথক ৮টি বুথ থেকে সর্বমোট ৪ হাজার ২৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।
শেষ দিনে ঢাকা বিভাগে ৯০টি, রাজশাহী বিভাগে ২৯টি, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৮টি, রংপুর বিভাগে ২৬টি, সিলেট বিভাগে ৭টি, বরিশাল বিভাগে ৩০টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ৮৬টি ও খুলনা বিভাগে ৪৬টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়েছে।

dt-khaleda-2.jpg

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দুটি দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হলেও দলটির নেতারা আশাবাদী- তাদের নেত্রী তিনটি আসনে নির্বাচন করবেন। তারা বলছেন, খালেদা জিয়া নিজেও নির্বাচন করতে চেয়েছেন।
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় হাইকোর্ট সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর করেছেন। কয়েক দিন আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিশেষ জজ আদালতে তার সাত বছরের সাজা হয়েছে।
যদিও দুর্নীতিতে সাজা হওয়ার কারণে আদৌ তার প্রার্থিতা গৃহীত হবে কিনা- তা নিয়ে বিস্তর সন্দেহ ও বিভ্রান্তি রয়েছে। তা হলে কোন ভরসায় খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে চাইছেন?
অনিশ্চয়তা ও বিভ্রান্তি থাকলেও বিএনপি নেতাদের অনেকে বলছেন, দলের নেতাকর্মী ও ভোটারদের উদ্বুদ্ধ করার রাজনৈতিক কৌশল থেকে খালেদা জিয়াকে প্রার্থী করা হচ্ছে।
এ ক্ষেত্রে তারা আওয়ামী লীগের নেতা মহীউদ্দীন খান আলমগীরের উদাহরণ টেনে নেন।
সাজা হওয়ার পর ২০০৮ সালের নির্বাচনে অংশ নিয়ে মহীউদ্দীন খান আলমগীর সংসদ সদস্য হয়েছিলেন এবং তিনি আওয়ামী লীগ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও হয়েছিলেন।
সেই সময়ের নির্বাচন কমিশনের কমিশনার ছিলেন এম সাখাওয়াত হোসেন। কমিশন তখন মহীউদ্দীন খান আলমগীরের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছিল।
বিএনপি নেতারা বলছেন, মহীউদ্দীন খান আলমগীরের দুই বছরের বেশি সাজা হয়েছিল নিম্নআদালতে এবং তিনি তখন জামিনে ছিলেন। সেটি যখন রিটার্নিং অফিসার বাতিল করল, তিনি আপিল করেছিলেন নির্বাচন কমিশনে। কমিশনও তার আবেদন বাতিল করে দিয়েছিল। পরে তিনি উচ্চতর আদালতে চেম্বার জাজের কাছে গিয়েছিলেন, চেম্বার জাজ তাকে নির্বাচন করার পক্ষে রায় দিয়েছিলেন। এর পর নির্বাচন কমিশন তাকে নির্বাচন করতে দিয়েছিল।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বিষয়টিতে ভিন্ন ভিন্ন আইনি ব্যাখ্যা থাকলেও তাদের নেত্রী নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে যোগ্য হবেন বলেই তারা বিশ্বাস করেন।
তবে খালেদা জিয়ার দুটি মামলারই পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি না পাওয়ায় বিএনপি নেত্রীর পক্ষে এখনও আপিল করা সম্ভব হয়নি।
এখন মনোনয়নপত্র দাখিলের সময়ের মধ্যে রায়ের কপি পাওয়া এবং আপিলের সুযোগ কম বলে অনেক বিএনপি নেতা মনে করছেন।
একই সঙ্গে তারা বলছেন, এ ধরনের ইস্যুতে আপিল বিভাগের আগের রায় আছে, সেই রায়ের আলোকে নির্বাচন কমিশনই তাদের নেত্রীকে নির্বাচনে যোগ্য ঘোষণা করতে পারে।
আইনজীবীদের দুরকমই ভাষ্য আছে। যেমন একপক্ষ বলছেন, এটি পারবেন না। আরেক পক্ষ বলছেন, পারবেন। বিএনপি নেতাদের অনেকেই মনে করছেন, এটি বাধা হবে না। তিনি নির্বাচন করতে পারবেন। বিএনপি নেতারা একটি ব্যাখ্যা দাঁড় করিয়েছেন, তারা বলছেন-রায়ের সার্টিফায়েড কপি না পাওয়া পর্যন্ত তারা যদি আপিল করতে না পারেন, সেই পরিস্থিতিতে নির্বাচন কমিশনও বলতে পারে যে, তারা রায়ের কপি পায়নি।
ফলে কমিশন প্রার্থী হিসেবে বিবেচনা করতে পারে। ভিন্নমত বা ভিন্ন ব্যাখ্যা যে আছে, সেটিও বিএনপি নেতারা বিবেচনায় রাখছেন। তবে তারা শুধু নিজেদের ব্যাখ্যার ওপর ভিত্তি করে খালেদা জিয়াকে প্রার্থী করছেন।
দলটির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, আদালতে পুরনো রায় এবং আগের সংসদগুলোর অভিজ্ঞতার ওপরও ভরসা করছেন তারা।
তিনি বলেন, আমরা মনে করি- এটি একটি ব্যাখ্যার বিষয়। কোনো সাজাপ্রাপ্ত আসামির মামলা যদি আপিল বিভাগে নিষ্পত্তির অপেক্ষায় থাকেন, তা হলে তিনি নির্বাচন করতে পারেন। এর সুযোগ নিয়ে বর্তমান সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী বা এমপি আছেন।
তিনি আরও বলেছেন, আমরা চাই আমাদের নেত্রী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক এবং উনিও নির্বাচন করতে চান। সে জন্য মনোনয়নপত্র নেয়া হয়েছে এবং মনোনয়নপত্র দাখিলও করা হবে।

bnp-logo-3.gif

চার দিনের সফরে চীনের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে বিএনপির চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। ক্ষমতাসীন চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আমন্ত্রণে গতকাল রাতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর নেতৃত্বে দলটি ঢাকা ত্যাগ করে।
জানা গেছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের উপদেষ্টা ও বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবিরও এ দলে রয়েছেন।
তিনি চীনের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন লন্ডন থেকে। টুকুসহ প্রতিনিধি দলের অপর দুই সদস্য হলেন মানবাধিকারবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদ ও মেজর (অব) নূর হোসেন। সফর শেষে আগামী ১৮ নভেম্বর তাদের দেশে ফেরার কথা।

dt-AL-1.jpg

নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার প্রক্রিয়ার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে আজ বুধবার।এ উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডিতে রাজনৈতিক কার্যালয়ে বেলা ১১টায় যাবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার সম্পন্ন হবে।
এ বিষয়ে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় আওয়ামী লীগ নেতাদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
বৈঠকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম। খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী সদস্য আখতারুজ্জামান, নুরুল ইসলাম ঠান্ডু উপস্থিত ছিলেন।
তার আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামীকাল বেলা ১১টায় আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে।
এতে জানানো হয় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদীয় বোর্ডের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

fish-20181114001926.jpg

মঙ্গলবার ভোরে সেন্টমার্টিন দ্বীপের বাসিন্দা আব্দুল গনির নেতৃত্বে পাঁচ জেলে বঙ্গোপসাগরের মাছ শিকারে যান। সাগরে জাল ফেলার অনেক পরে জেলেরা জাল টানা শুরু করেন। জালে আটকা পড়ে বিশালাকার একটি মাছ। কূলে তুলে দেখা যায় পোয়া মাছ এটি।

ওজন দিয়ে দেখা যায় মাছটির ওজন ৩৪ কেজি। জেটিঘাটে আনলে মাছটি দেখতে ভিড় জমে উৎসুক মানুষের। এটি বিক্রি হয় ১০ লাখ টাকায়। এক মাছেই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হওয়ায় আনন্দে আত্মহারা জেলেরা।

কক্সবাজারের সেন্টমার্টিনে জেলেদের জালে ৩৪ কেজি ওজনের বিশালাকার এ পোয়া মাছটি ধরা পড়েছে।

দ্বীপের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ হাবিব জানান, মাছটি ফজল করিম নামে এক স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী আট লাখ টাকায় প্রথমে কিনে নেন। পরে তিনি চট্টগ্রামের এক মাছ ব্যবসায়ীর কাছে তা ১০ লাখ টাকায় বিক্রি করেন। একটি মাছেই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হওয়া জেলেদের সাধুবাদ জানাচ্ছেন সবাই।

টেকনাফ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন বলেন, পোয়া মাছের পেটের ভেতর ‘পদনা’ নামে বিশেষ একটি অংশ থাকে। স্থানীয় ভাষায় এটাকে ‘ফুলা’ বলে, যা ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। এই ‘পদনা’ শুকিয়ে ওষুধের কাঁচামাল হিসেবে বিদেশে রফতানি করা হয়। বড় মাছটি অনেক বয়সী হতে পারে। এর পদনাটির কার্যক্ষমতাও বাড়ন্ত থাকবে।

bal09.jpg

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রামের ১৬টি সংসদীয় আসনে নৌকার মাঝি হতে ২২৫ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। দলটির রাজনৈতিক ইতিহাসে এবারই সবচেয়ে বেশি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে।

এসব মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে যেমন প্রবীণ রাজনীতিবিদ রয়েছেন, তেমনি রয়েছেন একেবারে আনকোরা মুখও। রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন এমপি-মন্ত্রীর সন্তান, যুবনেতা, নারীনেত্রী, শিল্পপতি, সাংবাদিকও।

সবচেয়ে বেশি প্রার্থী চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি) আসনে

চট্টগ্রামের ১৬টি আসনের মধ্যে চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী) আসনে সবচেয়ে বেশি ২৬ জন আগ্রহী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এ আসনে প্রার্থী যেমন বেশি তেমনি রয়েছেন বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীও।

চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি) আসনে নৌকার মাঝি হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি ও তার ছেলে মুজিবুর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুলের মতো হেভিওয়েট প্রার্থীরা।

সবচেয়ে কম প্রার্থী ৪ জন

চট্টগ্রামের ১৬টি আসনের মধ্যে তিনটি আসনে সবচেয়ে কম সংখ্যক ৪ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। সেগুলো হলো চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান), চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) ও চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী)।

সরাসরি ভোটে লড়তে চান ১৮ নারী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রামের ১৬ সংসদীয় আসনের মধ্যে ১১টিতে এবার ১৮ জন নারী সদস্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এর আগে কখনও একসঙ্গে এত নারী সদস্য সরাসরি জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার ইচ্ছা পোষণ করেননি।

নৌকার মাঝি হতে চান ২৭ তরুণ

চট্টগ্রামের ১৬টি সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন অন্তত ২৭ জন নবীন ও তরুণ রাজনীতিবিদ। এদের মধ্যে কেউ ছাত্ররাজনীতি থেকে এসেছেন, কেউ শিল্পপতি আবার কেউ এমপি-মন্ত্রীর সন্তান।

কোন আসনে কত জন

গত তিনদিনে চট্টগ্রামের ১৬ সংসদীয় আসনে ২২৫ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসন থেকে ৯ জন, চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসন থেকে ২৫ জন, চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) আসন থেকে ১৩ জন, চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুণ্ড) আসন থেকে ১৭ জন, চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসন থেকে ১১ জন, চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসন থেকে ৪ জন, চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) আসন থেকে ৪ জন, চট্টগ্রাম-৮ (চান্দগাঁও-বোয়ালখালী) আসন থেকে ১৭ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

এ ছাড়া চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি) আসন থেকে ২৬ জন, চট্টগ্রাম-১০ (ডবলমুরিং) আসন থেকে ১৫ জন, চট্টগ্রাম-১১ (বন্দর-পতেঙ্গা) আসন থেকে ১৭ জন, চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসন থেকে ৯ জন, চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) আসন থেকে ৪ জন, চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ-সাতকানিয়া) আসন থেকে ২৩ জন, চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসন থেকে ১৮ জন, চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) আসন ১৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

courtg.jpg

কে হচ্ছেন বাংলাদেশের পরবর্তী অ্যাটর্নি জেনারেল। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টসহ দেশের আদালতপাড়ায় চলছে নানা গুঞ্জন। বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, পরবর্তী অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের জন্য সরকার চিন্তাভাবনা করছে। এক্ষেত্রে কয়েকজনের নাম খুব জোরেশোরেই উচ্চারিত হচ্ছে। তাদের মধ্যে আছেন- অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির ও সাবেক বিচারপতি মনসুরুল হক চৌধুরী।

এছাড়া আওয়ামী লীগপন্থী প্রভাবশালী এক আইনজীবীর নামও শোনা যাচ্ছে। তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদকও ছিলেন।

সংবিধানের ৬৪ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হইবার যোগ্য কোনো ব্যক্তিকে রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগদান করিবেন।’

বর্তমান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন- এমন খবর সর্বত্র। তিনি যদি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন তাহলে নিয়ম অনুযায়ী রাষ্ট্রের এই গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে। তাই, এ পদে অধিষ্ঠিত হওয়ার জন্য সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে জোর লবিং চালাচ্ছেন আইনজীবীরা।

সূত্রে জানা যায়, পরবর্তী অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের জন্য যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির, সাবেক সম্পাদক এ এম আমিন উদ্দিন এবং সাবেক বিচারপতি মনসুরুল হক চৌধুরীর নাম জোরেশোরে শোনা যাচ্ছে।

অন্যদিকে, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মনোনয়ন নিশ্চিত হলে পদত্যাগ করবেন বলে জানিয়েছেন। তাই আইনজীবীদের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে, কে হচ্ছেন পরবর্তী অ্যাটর্নি জেনারেল?

সংবিধানের ৬৪ অনুচ্ছেদ অনুসারে, রাষ্ট্রপতি কর্তৃক নিযুক্ত হন অ্যাটর্নি জেনারেল। সংবিধানের ৬৪ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হওয়ার যোগ্য কোনো ব্যক্তিকে রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগ দান করবেন। উপ-অনুচ্ছেদ ৪-এ বলা হয়েছে, তিনি রাষ্ট্রপতির সন্তোষ অনুযায়ী স্বীয় পদে বহাল থাকিবেন।’

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন এ প্রসঙ্গে জাগো নিউজেকে বলেন, তফসিল ঘোষণা এবং মনোনয়নপত্র কেনার পর বর্তমান রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তাকে পদত্যাগ করলেই হবে। এরপর রাষ্ট্রপতি অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগ দেবেন।

নির্বাচন কমিশনের আইনজীবী ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার ড. মোহাম্মদ ইয়াসীন খানও একই মন্তব্য করেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল হলো একটি সাংবিধানিক পদ। অ্যাটর্নি জেনারেল সরকারকে সংবিধান, সাধারণ আইন, আন্তর্জাতিক চুক্তি এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আইনগত পরামর্শ দেন। সরকারের পক্ষে আদালতে উপস্থিত থাকেন।

দীর্ঘ মেয়াদে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম

২০০৯ সালে ৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার দায়িত্বগ্রহণের এক সপ্তাহ পর অ্যাটর্নি জেনারেল পদে পরিবর্তন আসে। বিদায় নেন জরুরি অবস্থার সরকারের সময়ে নিয়োগ পাওয়া অ্যাটর্নি জেনারেল সালাহউদ্দিন আহমেদ। তার স্থলে ২০০৯ সালের ১৩ জানুয়ারি নিয়োগ পান সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম।

অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগের আগে তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার অ্যাসোসিয়েশন) এক মেয়াদের সভাপতি ছিলেন। ২০১৪ সালের ১৩ জানুয়ারি অ্যাটর্নি জেনারেল পদে পাঁচ বছর পূর্ণ হয় মাহবুবে আলমের। পরে আরও প্রায় পাঁচ বছর মিলিয়ে টানা প্রায় ১০ বছর অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। তার আগে এত দীর্ঘ মেয়াদের আর কোনো অ্যাটর্নি জেনারেল দেখা যায়নি বাংলাদেশে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট নেয়া হবে আগামী ৩০ ডিসেম্বর। এ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৯ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের শেষ দিন ২২ নভেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর। বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা ভোটগ্রহণের এদিন ঘোষণা করেন।


About us

DHAKA TODAY is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and 7 days in week. It focuses most on Dhaka (the capital of Bangladesh) but it reflects the views of the people of Bangladesh. DHAKA TODAY is committed to the people of Bangladesh; it also serves for millions of people around the world and meets their news thirst. DHAKA TODAY put its special focus to Bangladeshi Diaspora around the Globe.


CONTACT US

CALL US ANYTIME


Newsletter