ফুটবল Archives - Page 3 of 17 - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

Fc-Barca-samakal-5c99e0cb73e90.jpg

মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে দেশবাসী। মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকার সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শহীদবেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাচ্ছে সর্বস্তরের মানুষ। বাংলাদেশের এই মহান স্বাধীনতা দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছে স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনাও।

বাংলাদেশের অনেক ফুটবলপ্রেমী স্প্যানিশ ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার সমর্থক। ওই ক্লাবে আর্জেন্টিনা তারকা লিওনেল মেসি খেলেন বলেও এই ক্লাবের ভক্ত অনেকে। বার্সেলোনার সেটা অজানা নয়। আর তাই বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছে তারা।

বার্সার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে দেওয়া হয়েছে ওই শুভেচ্ছা বার্তা। ছবিতে মেসি-সুয়ারেজ, কুতিনহো-জর্ডি আলবারা গোল উদযাপন করছেন। তাদের মাঝখানে বার্সার লোগো। আর ওপরে সবুজের আবরণ। তার মধ্যে গোলাকার সূর্যের লাল। সেই লাল-সুবজের মধ্যেই লেখা, ‘বাংলাদেশে আমাদের সকল ভক্তকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।’

তারা এই বার্তাটি তাদের ফেসবুক পেজে দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই অনেকের নজরে এসেছে। এরই মধ্যে ৫৬ হাজার মানুষ এটাতে পতিক্রিয়া জানিয়েছে। চার হাজারের বেশি মন্তব্য পড়েছে। ১২ হাজারের কাছাকাছি ভক্ত-সমর্থকরা বার্সার দেওয়া এই বার্তাটি শেয়ার দিয়েছে।

laligat.png

১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীর দমন অভিযানের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বাঙালি জাতি। আজ আমাদের মহান স্বাধীনতা দিবস। আর ৪৯তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করছে।বাঙালির শ্রেষ্ঠ অর্জন মহান স্বাধীনতা দিবসে শুভেচ্ছা জানিয়েছে স্পেনের পেশাদার ফুটবল লিগ- লা লিগা। দিনটি উপলক্ষে লা লিগা তার নিজস্ব ফেসবুক পেজে এক পোস্টের মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বাংলাদেশকে জানানো শুভেচ্ছায় তারা লিখেছে- ‘লা লিগা এর তরফ থেকে, সকলকে স্বাধীনতা দিবসের অনেক শুভেচ্ছা।’বাম পাশে স্বাধীনতা দিবস আর ডান পাশে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা পোস্ট করা হয়।

ফেসবুক পোস্টটি দেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত ৩৬ হাজার লাইক ও ২ হাজার ৪০০ মন্তব্য এসেছে এবং পোস্টটি শেয়ারের সংখ্যাও প্রায় ৬ হাজার ছাড়িয়েছে।

football-20190326210602.jpg

আগের দুই ম্যাচে বাহরাইন ও ফিলিস্তিনের বিপক্ষে দুর্দান্ত ফুটবল খেলেও ১-০ গোলের ব্যবধানে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দলকে। পরপর দুই ম্যাচ হেরে এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ও নিশ্চিত লাল-সবুজ জার্সিধারীদের।

মঙ্গলবার বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচ ছিল শ্রীলংকার বিরুদ্ধে। দেশের মানুষ যখন স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করছে তখন সে আনন্দে বাড়তি রং ছড়িয়েছেন ফুটবলাররা। মহান স্বাধীনতার দিনে দেশবাসীকে ২-০ গোলের উপহার দিয়েছেন লাল-সবজু জার্সিধারী অলিম্পিক ফুটবল দল।

বাহরাইনের খলিফা স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে কয়েক হাজার বাংলাদেশি জাতীয় পতাকা দুলিয়ে সমর্থন দিয়েছেন ফুটবলারদের। আগের দুই ম্যাচে ভালো খেলার পরও হেরে মন খারাপ করে ঘরে ফেরা প্রবাসী বাংলাদেশিরা মঙ্গলবার আনন্দ-উচ্ছ্বাস করেই সময় কাটিয়েছেন।

এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ চ্যাম্পিয়নশিপে এটি বাংলাদেশের প্রথম জয়। আরে আগে ৩ আসরে বাংলাদেশ ১০ ম্যাচ খেলে কোনো জয় পায়নি। ২০১৫ সালে ভারতের বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্রই ছিল সেরা সাফল্য। এবার ৩ ম্যাচ খেলে একটি জয় নিয়ে ঘরে ফিরছেন জেমি ডে’র শিষ্যরা। টুর্নামেন্টের ১৩ তম ম্যাচ জয় ধরা দিলো বাংলাদেশকে।

বাংলাদেশের প্রথম গোল করেছেন বিপলু আহমেদ ৫ মিনিটে। ১৮ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন টুটুল হোসেন বাদশা।

nher.jpg

লিওনেল মেসি ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে যতটা অপ্রতিরোধ্য, দেশ আর্জেন্টিনার হয়ে ততটা নন, তাকে এই অপবাদ অনেকবারই শুনতে হয়েছে।

গত শুক্রবার ভেনেজুয়েলার কাছে ৩-১ গোলে আর্জেন্টিনার হারে শুনতে হলো আবারও। ক্লাব বার্সেলোনার জার্সি গায়ে বর্তমানে অবিশ্বাস্য ফর্মে রয়েছেন মেসি। সর্বশেষ ৩ ম্যাচে করেছেন ৬ গোল।

কিন্তু সেই মেসিই আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ফিরে হয়ে থাকলেন নিজের ছায়া। দলের হার ঠেকাতে গোল করা দূরের কথা, পুরো ম্যাচে উল্লেখযোগ্য কোনো অবদানই রাখতে পারেননি তিনি।

কেন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে বার্সেলোনার অপ্রতিরোধ্য মেসির দেখা মেলে না? কেন তিনি দেশের জার্সি গায়ে প্রয়োজনের সময় জ্বলে উঠতে পারেন না? ক্লাব বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনার হয়ে তার পারফরম্যান্স বিশ্লেষণ করে অনেকে অনেক রকম কারণই খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছেন। কেউ বলেন, মেসি জাতীয় দলের হয়ে দেশবাসীর প্রত্যাশার চাপটা সামলাতে পারেন না।

স্নায়ুচাপে ভুগে সবকিছু গড়বড় করে ফেলেন। আবার কেউ বলেন, বার্সেলোনার সতীর্থদের সঙ্গে মেসির বোঝাপড়া যতটা ভালো, জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে ততটা নয়। ক্লাব বার্সায় সতীর্থদের কাছ থেকে যেভাবে সমর্থন পান, জাতীয় দলে তা পান না।

বার্সেলোনার হয়ে মেসির খেলা সর্বশেষ ম্যাচ এবং শুক্রবারের জাতীয় দলের হয়ে খেলা ম্যাচটির পারফরম্যান্স বিশ্লেষণ করে দ্বিতীয় এই কারণটাই ফুটিয়ে তুলেছে স্পেনের জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক মার্কা।

পত্রিকাটি দুটো ম্যাচের একই রকম দুটো ঘটনা বিশ্লেষণ করে দেখিয়েছে, আসলে সতীর্থদের সমর্থন ও বোঝাপড়ার বিষয়টিই মেসিকে বার্সেলোনা ও জাতীয় দলে ‘আলাদা সত্ত্বা’ বানিয়ে রেখেছে!

বার্সেলোনায় সতীর্থদের সঙ্গে মেসির বোঝাপড়াটা অসাধারণ। সতীর্থরা বল পেলেই বুঝতে পারেন, মেসি কোথায় থাকবেন। কিভাবে পাস বাড়ালে মেসির কাছে পৌঁছাবে। কিন্তু আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে বোঝাপড়ার ঘাটতিটা স্পষ্ট। সতীর্থরা তো মেসির অবস্থান বুঝতে পারেন-ই না, মেসি নিজেও বুঝে উঠতে পারেন না, ঠিক কোন জায়গায় গেলে তাকে যথাযথভাবে পাস দেওয়া হবে।

গত রোববার লা লিগায় রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছেন মেসি। তার একটি গোল তিনি করেছেন উরুগুইয়ান ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেজের পাস থেকে। উরুগুইয়ান তারকা বল নিয়ে বেটিসের বক্সে ঢুকে পড়েন। মেসিও দৌড়ে এসে ফাকায় অবস্থান নেন।

কিন্তু সুয়ারেজের দুই পাশেই বেটিসের দুজন ডিফেন্ডার ছিলেন। কিন্তু তাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে সুয়ারেজ ঠিকই ব্যাক-হিল করে বল পাস বাড়ান মেসিকে। আর্জেন্টাইন তারকা অনায়াসেই বল জড়িয়ে দেন জালে।

বার্সা ও আর্জেন্টিনার মেসির পার্থক্য ফুটিয়ে তুলতেই কিনা শুক্রবার ভেনেজুয়েলার ম্যাচে ঠিক এ্কই রকম একটা ঘটনা ঘটে। আসলে ঘটনা পুরোটা ঘটেনি। বোঝাপড়াটা এক রকম হলে ঘটতে পারত আর কি! যাই হোক, ভেনেজুয়েলার বক্সের সামনে বল পেয়ে যান বোকা জুনিয়র্সের ফরোয়ার্ড দারিও বেনেদেত্তো। ঠিক তার একটু পেছনেই পাসের অপেক্ষায় ছিলেন মেসি।

৫ বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি হয়তো ভেবেছিলেন, বেনেদেত্তো ঠিকই তাকে পাস বাড়াবেন। বেনেদেত্তো ব্যাক-হিল করেছিলেনও। কিন্তু মেসির অবস্থান তিনি ঠিকঠাক বুঝতে পারেননি। তার ব্যাক-হিল মেসির কাছে যায়নি। গেলে হয়তো মেসি অনায়াসেই বল জালে জড়াতে পারতেন।

কারণ, তখন তার সামনে ভেনেজুয়েলার কোনো ডিফেন্ডারই ছিল না। উপযুক্ত জায়গায় পজিশন নিতে গিয়ে তাদের আগেই বোকা বানান মেসি। কিন্তু বেনেদেত্তোর পাস তাকে খুঁজে না পাওয়ায় মেসি নিজেই বোকা বনে যান!

তবে মার্কার এই বিশ্লেষণধর্মী যুক্তির দ্বার ধারছেন না ড্যানিয়েল প্যাসারেলা। আর্জেন্টিনার সাবেক এই ডিফেন্ডার বরং ধুয়ে দিয়েছেন মেসিকে। আর্জেন্টিনার হয়ে দু’টি বিশ্বকাপ জেতা ৬৫ বছর বয়সী সাবেক এই ডিফেন্ডার স্পষ্ট কণ্ঠেই বললেন, ক্লাব বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে মেসির মনোভাব সম্পূর্ণ ভিন্ন।

প্যাসারেলা বলেছেন, ‘সে গ্রেট খেলোয়াড়। যেকোনো দলকেই সে অনেক কিছু দিতে পারে। কিন্তু সে যখন বার্সেলোনার হয়ে খেলে, তার মনোভাব, মুভমেন্ট তাকে সম্পূর্ণ ভিন্ন। সেখানে সে অনেক বেশি ভালো। আমি বলতে পারব না, এমন কেন। তবে এটা আপনাকেই (মেসিকে) উপলব্ধি করতে হবে।’

messi-injury-20190323104056.jpg

শুক্রবার রাতে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ দিয়ে দীর্ঘ আট মাস পর জাতীয় দলে ফিরেছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। কিন্তু ম্যাচে ১-৩ গোলে হেরে যাওয়ায় ফেরাটা সুখকর হয়নি তার।

ম্যাচ শেষে পেয়েছেন আরও এক ধাক্কা। অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্দা মেট্রোপলিটনে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচটিতে পুরো ৯০ মিনিটই খেলেছেন মেসি।

কিন্তু ম্যাচ শেষে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে পুনরায় মাঠের বাইরে ছিটকে গিয়েছেন দলের অধিনায়ক মেসি। কুচকির ইনজুরির কারণে মরক্কোর বিপক্ষে মঙ্গলবারের প্রীতি ম্যাচটি খেলা হবে না মেসির।

এদিকে মেসি ছাড়াও ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে পড়েছেন দলের মিডফিল্ডার গঞ্জালো মার্টিনেজ। ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচে বাম ঊরুর পেশিতে চোট পেয়েছেন তিনি।

football-20190323003442.jpg

আগামী বছর জাপানের টোকিও অলিম্পিক গেমস ফুটবলে খেলার টিকিট পেতে এশিয়ার দেশগুলোর লড়াই শুরু হয়েছে। সে লড়াইয়ে আছে বাংলাদেশও।

শুক্রবার রাতে বাহরাইনের ইসা টাউনের খলিফা স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলেছে স্বাগতিকদের বিরুদ্ধে। মধ্য প্রাচ্যের দেশটির সঙ্গে লড়াই করে হেরে গেছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ২০ মিনিটের করা গোলটি ধরে রেখে ১-০ ব্যবধানে জিতে মাঠ ছেড়েছে স্বাগতিক দলটি।

বাহরাইনে হচ্ছে বাছাইয়ের ‘বি’ গ্রুপের খেলা। প্রথম দিনে অন্য ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ফিলিস্তিন ও শ্রীলঙ্কা। ফিলিস্তিন জিতেছে ৯-০ গোলে। এবার গ্রুপে শ্রীলঙ্কা থাকায় এই প্রথম জয় পাওয়ার সম্ভাবনা আছে বাংলাদেশের।

এশিয়ার ৪৭ দেশের মধ্যে পাকিস্তান, ভুটান, গুয়াম ও নর্দান মারিয়ানা ছাড়া সবাই অংশ নিচ্ছে অলিম্পিক ফুটবলের বাছাইয়ে। ১১ গ্রুপে ভাগ হয়ে বাছাই পর্ব খেলার পর প্রতি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন, সেরা ৪ রানার্সআপ দল ও আয়োজক থাইল্যান্ড খেলবে চূড়ান্ত পর্বে। আগামী বছর ৮ থেকে ২৬ জানুয়ারি থাইল্যান্ডে হবে চূড়ান্ত পর্ব। সেখান থেকে শীর্ষ ৩ দল পাবে টোকিও অলিম্পিকের টিকিট।

এএফসির এই যুব টুর্নামেন্ট হয়ে আসছে ২০১২ সাল থেকে। বাংলাদেশ কখনোই গ্রুপ পর্ব টপকাতে পারেনি। এমনকি এ পর্যন্ত ১১ ম্যাচ খেলে জয়েরও মুখ দেখেনি। ২০১৫ সালে ঢাকায় ভারতের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করতে পারাটাই এখন পর্যন্ত এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের সেরা সাফল্য।

fifa5.jpg

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) দুর্নীতি ও অনিয়মের প্রমাণ দিয়ে ফিফাকে চিঠি দিয়েছিলেন সাবেক ফুটবলার শামসুল আলম মঞ্জু। ফিফা সেই চিঠি আমলে নিয়ে মঞ্জুর কাছে জবাব পাঠিয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ফুটবলের যাবতীয় কর্মকাণ্ড ফিফার নজরে রয়েছে। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগ কাজ করছে।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এই সাবেক ফুটবলার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুগান্তরকে বলেন, ‘আমি ২০১৬ সালে ২৪ মার্চ ফিফার কাছে বাফুফের অনিয়ম ও দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে চিঠি দিয়েছিলাম। লিখেছিলাম, বাফুফে গত তিন বছর সাধারণ সভা করেনি। দুর্নীতি বৈধ করার জন্য ঢাকার বাইরে বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) করে অডিট রিপোর্ট অনুমোদন করিয়েছে। তিন বছরের অডিট রিপোর্টে গুরুতর অনিয়ম ও দুর্নীতি রয়েছে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের নামে লোপাট হয়েছে অর্থ। সিলেট বিকেএসপি ফুটবল একাডেমি, মিডিয়া ও পাবলিসিটি খাত, বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আয়োজন, কম্পিউটার ইকুইপমেন্ট, গাড়ির জ্বালানি, মহিলা ফুটবল, ফিফার নিষিদ্ধ সভাপতি সেপ ব্লাটারের সফরকে পুঁজি করে কোটি কোটি টাকা লুটপাট হয়েছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছি।’

মঞ্জুর কথা, ‘সবচেয়ে বড় দুর্নীতি হয়েছে সিলেট বিকেএসপির নামে দুই কোটি ৬৬ লাখ টাকার খরচ দেখানো। সিলেট বিকেএসপি বাফুফের অনুকূলে বরাদ্দ দেয়ার পর ২০১২ সাল পর্যন্ত চালুই করা হয়নি। ওই বছর জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ নিজেদের অর্থে প্রায় দুই কোটি টাকা খরচ করে সিলেট বিকেএসপি সংস্কার করে বাফুফেকে হস্তান্তর করেছিল। ফিফার দেয়া সাত লাখ ডলার নয়-ছয় হয়েছে। দুর্নীতির ভয়াবহ চিত্র ফুটে উঠেছে নিষিদ্ধ ফিফার সাবেক সভাপতি সেপ ব্লাটারের ঢাকা সফরে খরচের হিসাবে। ৯০ লাখ টাকা খরচ দেখানো হয় অডিট রিপোর্টে। ব্লাটারের একদিনের সফরে মিডিয়া ও পাবলিসিটি খাতে খরচ ৫৫ লাখ টাকা, আপ্যায়ন বাবদ সাড়ে চার লাখ টাকা, উপহার সোয়া লাখ টাকা। আশ্চর্য হলেও সত্যি যে, ব্লাটারকে নাকি ভাতা হিসেবে ৯২ হাজার টাকা, টিএ/ডিএ এক লাখ আট হাজার টাকা দিয়েছে বাফুফে।’

এই সাবেক ফুটবলার বলেন, বাড্ডা জাগরণী সংসদের কোনো সাধারণ সদস্য না হওয়া সত্ত্বেও বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের ঘনিষ্ঠ মাহফুজা আক্তার কিরনকে ডেলিগেট করা হয়েছে। তার দাবি, সবচেয়ে আলোচিত দুর্নীতির উৎস হল- ব্যাংক হিসাব থেকে কোটি কোটি টাকা নগদ লেনদেন। প্রিমিয়ার ব্যাংকের মতিঝিল শাখায় বাফুফের অ্যাকাউন্টস পর্যালোচনা করে এ তথ্য মিলেছে। চিঠি পেয়ে ফিফা নড়েচড়ে বসেছে বলে জানান মঞ্জু। তার কথা, ‘আমি এদেশের ফুটবলের ধ্বংস নয়, উন্নতি দেখতে চাই। এজন্যই ফুটবল থেকে বাজে লোকদের বিতাড়িত করা উচিত। ফুটবল না বাঁচলে আমাদের কোনো মূল্য থাকবে না।

messi-20190320191754.jpg

বিশ্বের নানা রহস্য উন্মোচনে নিরন্তর প্রচেষ্টা থাকে বিজ্ঞানি মহলে। তাদের আবিস্কারই পৃথিবীকে এনে দাঁড় করিয়েছে আজকের প্রযুক্তির এই উৎকর্ষতার যুগে।

এর ফলে একজন মানুষের ভেতর থেকে তারই আদলে আরেকজন মানুষ পর্যন্ত জন্ম দিতে সক্ষম হচ্ছেন বিজ্ঞানিরা। যাকে বলে ক্লোনিং পদ্ধতি।

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসিকে ভিনগ্রহের বলা হয়ে থাকে। কেউ কেউ তাকে এলিয়েন বলেও সম্বোধন করে থাকেন। জাদুকরি এই ফুটবলারের বিকল্প আর কখনও তৈরি হবে বলেও বিশ্বাস করেন তার ভক্তরা।

তবে বিজ্ঞানীরা জানিয়ে দিয়েছেন, ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে সম্ভব, আরেকজন মেসি তৈরি করা। আধুনিক টেকনিক এবং টেকনোলজি ব্যবহার করে মেসির ক্লোন তৈরি করা সম্ভব বলে দাবি করেছেন বিখ্যাত জেনেটিক বিশেষজ্ঞ আরকাদি নাভারো। যিনি আবার ইউরোপিয়ান জেনোম আরকাইভের প্রধানও বটে।

চলতি মৌসুমে অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। ৩০ বছর বয়স পার হয়ে যাওয়ার পরও মেসিকে দেখে যে কেউ বলবে, ২০ বছরের এক টগবগে তরুণ। বিশেষ করে এই সপ্তাহের শুরুতেই এস্টাডিও বেনিতো ভিয়ামারিনে বেটিসের বিপক্ষে অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখানোর পর তো বিশ্বব্যাপি প্রশংসায় ভাসছেন বিশ্বসেরা এই ফুটবলার।

কিউ থি জুগেস নামক একটি পত্রিকার সঙ্গে সাক্ষাৎকারে কথা বলতে গিয়ে ইউরোপিয়ান জেনোম আর্কাইভের প্রধান নাভারো মেসির চেয়েও বেশি ম্যাজিক দেখিয়ে ফেললেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা অবশ্যই মেসির মত হুবহু আরেকজন খেলোয়াড় মেসিকে পেতে পারি। বর্তমানে যে টেকনিক ব্যবহার করা হয় সেটা ব্যবহার করে আমরা তার ক্লোন তৈরি করতে সক্ষম হবো। যেটা দেখতে মনে হবে যেন মেসির জমজ কোনো ভাই।’

নাভারো বলেন, ‘ধরা যাক, আমরা দুই জোড়া মেসি তৈরি করে ফেলতে পারলাম। অর্থ্যাৎ মেসির ক্লোন তৈরি করতে গিয়ে একাধিক মেসির জন্ম দিলাম, তাহলে তাদের মধ্যে একজনকে আমরা টাইম চেম্বারে হিমায়িত করে রেখে দিতে পারবো।’

তাহলে কি হবে? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘তাহলে অন্তত ২০ কিংবা ৩০ বছর পর আবারও আমরা আরেকজন মেসিকে পেতে পারবো। যেটাকে হিমায়িত করে রাখা হবে, তাকে তার সঠিক সময়ে পৃথিবীতে নিয়ে আসা সম্ভব হবে। যদি সব কিছুই পরিকল্পনা মতো সঠিকভাবে এগোয়, তাহলে সেই মেসিও হবে প্রকৃত মেসির মত একই।’

কিন্তু জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ার নাভারো এটাও জানিয়ে দিয়েছেন যে, বার্সা অধিনায়কের ক্লোনিং করার পরিকল্পনার অর্থ এই নয় যে, বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ফুটবলারকে সারা বিশ্বের সামনে উন্মুক্ত করে দেয়া। তিনি বলেন, ‘জেনেটিক আমাদেরকে একটা সুযোগ দান করেছে শুধু। ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে যে ব্যক্তি তৈরি হবে, সে হতে পারে প্রকৃত মেসির মতই। কিন্তু দিন শেষে মেসি মেসিই।’

তার মতে, ‘তার (মেসি) ফুটবল কোয়ালিটির মধ্যে দুটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে। খুবই স্পষ্ট যে, একটি হচ্ছে তার জেনেটিক্যাল বা মজ্জাগত। অন্যটি হচ্ছে তার শিক্ষাগত, অবস্থানগত এবং পরিবেশষগত।’

তিনিও বলেন, ‘অর্থ্যাৎ মেসি হচ্ছেন সেই মেসি। যার মধ্যে ফুটবলের বর্তমান বৈশিষ্ট্য শুধুমাত্র জেনিটিক্যালি আসেনি। তিনি হচ্ছেন, তার সময়কার পরিবেশের একটি প্রোডাক্ট। যিনি গড়ে উঠেছে লা মাসিয়ায় এবং হরমোনাল চিকিৎসা গ্রহণ করে উঠে এসেছেন।’

তাহলে মেসির ক্লোন তৈরি করে আরেক প্রকৃত মেসি কিভাবে সম্ভব?

জবাবে নাভারো বলেন, ‘জেনেটিক্সের বিদ্যা এখন অনেক কিছুই সহজবোধ্য করে দিয়েছে। সম্ভাবনা তৈরি করেছে শুধু। মেসির ক্ষেত্রে এটা প্রজোয্য হতে পারে। তবে, সে ক্ষেত্রে যে মেসি তৈরি হবে তিনি মেসির পূর্ণাঙ্গ বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন হতেও পারেন আবার নাও পারেন। অবস্থানগত বিষয় এবং আমাদের চারপাশে যা ঘটছে, তার ভিত্তিতে আমরা শুধু চেষ্টা করে দেখতে পারি।’

ebnrf.jpg

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে জুমার নামাজের সময় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় ফুটবল দলের গোলরক্ষক আতা এলায়েন। পাঁচ বাংলাদেশিসহ নিহতের সংখ্যা কমপক্ষে ৫০ জন।

বন্দুকধারীর গুলিতে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইংল্যান্ড ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ)। তারা জানিয়েছে, ক্রাইস্টচার্চে বন্দুকধারীর হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে শুক্রবার। সেদিন ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইউরো বাছাইয়ে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও চেক প্রজাতন্ত্র।

এফএ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নিউজিল্যান্ডের ঘটনায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে ২২ মার্চ। সেদিন ইউরো বাছাইয়ে ইংল্যান্ড মুখোমুখি হবে চেক প্রজাতন্ত্রের। ক্রাইস্টচার্চের ঘটনায় আমরা প্রত্যেককে স্মরণ করব, যারা এই মর্মান্তিক ঘটনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

messi-mbappe-20190319192212.jpg

একযুগেরও বেশি সময় ধরে ফুটবল বিশ্বে চলছে কেবলমাত্র দুইজনের রাজত্ব। মেসি এবং রোনালদো। ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের দৌড়ে গত এক দশকে কেবলমাত্র একজনই হানা দিতে পেরেছিলেন, তিনি হচ্ছেন লুইস সুয়ারেজ। এছাড়া বাকি মৌসুমগুলোতে সেরা জায়গাটি দখলে ছিল মেসি কিংবা রোনালদোর।

কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে স্প্যানিশ লা লিগা ছেড়ে রোনালদো ইতালিয়ান সিরি-এ’তে চলে যাওয়ার পর মেসি যেন প্রতিদ্বন্দ্বীই হারিয়ে ফেলেছেন। এখন আর মেসি-রোনালদো দ্বৈরথ দেখা যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে, ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের লড়াইয়ে মেসি এবার নতুন প্রতিদ্বন্দ্বী পেয়ে গেলেন।

মেসির এই নতুন প্রতিদ্বন্দ্বীর নাম, বিশ্বকাপবিজয়ী তারকা কাইলিয়ান এমবাপে। পিএসজির এই তারকাকে অনেক ফুটবলবোদ্ধাই আগামীর সেরা তারকা হিসেবে অভিহিত করছেন। বলছেন, মেসির জায়গাটা দখল করবেন এমবাপেই।

তবে চলতি মৌসুমে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের লড়াইয়েই মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে পড়েছেন ফ্রান্সের এই তরুণ তারকা। সর্বোচ্চ গোলের বিচারে হয়তো মেসির চেয়ে পিছিয়ে তিনি, কিন্তু এখনও যে সময় বাকি, তাতে মেসিকে ছুঁয়ে ফেলাটাও অস্বাভাবিক কিছু হবে না এমবাপের জন্য।

সপ্তাহের শুরুতেই রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে মৌসুমের সম্ভবত সেরা পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন মেসি। এই পারফরম্যান্স মেসিকে নিয়ে যাচ্ছে আবারও গোল্ডেন বুট জয়ের দিকে। হয়তোবা টানা তৃতীয়বারের মত ইউরোপিয়ান সেরা গোলদাতার পুরস্কার জিততে যাচ্ছেন তিনি।

এস্টাডিও বেনিতো ভিয়ামারিনে স্বাগতিক সমর্থকদের কাছ থেকেই স্ট্যান্ডেনোভেশন পেয়েছেন মেসি। ওই ম্যাচের গোল নিয়ে চলতি মৌসুমে মেসির গোলের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৯টিতে। এখনও পর্যন্ত ২৮ রাউন্ড খেলা হয়েছে লা লিগায়। মেসি খেলেছেন ২৬ ম্যাচ। তাতেই প্রায় ৩০ ছুঁই ছুঁই তার গোল সংখ্যা।

তবে মেসির এই গোল্ডেন বুট কেড়ে নিতে পারেন কাইলিয়ান এমবাপে। যদিও দু’জনের মধ্যে পয়েন্টের ব্যবধান ৬ এবং গোলের ব্যবধান ৩। এমবাপের গোল সংখ্যা ২৬টি। যদিও ফ্রেঞ্চ লা লিগায় তিনি খেলেছেন কেবল ২২ ম্যাচ। এখনও ১০ রাউন্ড বাকি রয়েছে লিগ শেষ হতে।

মেসি-এমবাপে ছাড়াও গোল্ডেন বুট জয়ের তালিকায় রয়েছেন ফ্যাবিও কুয়াগলিয়ারেলা, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং ক্রিজেস্টপ পিয়াটেক। আর্জেন্টাইন তারকা কুন আগুয়েরোও রয়েছে এই তালিকায়।

গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে রয়েছেন যারা

নাম                   গোল     পয়েন্ট

লিওনেল মেসি          ২৯         ৫৮

কাইলিয়ান এমবাপে     ২৬         ৫২

ফ্যাবিও কুয়াগরিয়েলা    ২১         ৪২

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো   ১৯         ৩৮

ক্রিজেস্টপ পিয়াটেক     ১৯         ৩৮