বিনোদন Archives - Page 5 of 49 - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

arrahman.jpg

বোরখা পরে মঞ্চে উঠেছিলেন কন্যা। তা নিয়ে কটাক্ষ শুনতে হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার মোক্ষম জবাব দিলেন সুরকার এ আর রহমান। জানিয়ে দিলেন, স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে সকলের। তবে বাগবিতণ্ডায় যাননি তিনি। শধুমাত্র #ফ্রিডমটুচুজ় লিখেই কথা সেরেছেন।

ঘটনার সূত্রপাত চলতি সপ্তাহের শুরুতে। ‘স্লামডগ মিলিয়নেয়ার’ ছবির ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে মুম্বইয়ে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়েছিল। সেখানে বাবার সম্পর্কে দু’-চার কথা বলতে বোরখা পরে মঞ্চে ওঠেন রহমান-কন্যা খাতিজা। বিষয়টি সামনে আসতেই সমালোচনা শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এ দিকে বিশ্বব্রহ্মাণ্ড ঘুরে বেড়ান, অথচ মেয়েকে রক্ষণশীল জীবনযাপনে বাধ্য করেছেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন নেটিজেনদের একাংশ।

যদিও খাতিজার নামে তৈরি একটি আনভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টের তরফে যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করা হয়। বোরখায় স্বচ্ছন্দ বোধ করেন খাতিজা এবং নিজের ইচ্ছাতেই তিনি ওই পোশাক পরে মঞ্চে উঠেছিলেন বলে জানানো হয়। তবে তাতেও থামেনি বিতর্ক।

শেষমেশ জবাব দিতে এগিয়ে আসেন এ আর রহমান নিজে। বুধবার নিজের টুইটার হ্যান্ডলে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। তাতে শিল্পপতি মুকেশ অম্বানীর স্ত্রী নীতার সঙ্গে হাসিমুখে পোজ দিতে দেখা যায় রহমানের স্ত্রী সায়রাবানু এবং দুই কন্যা খাতিজা ও রহিমাকে। ছবিতে ওড়না মাথায় ছিল সায়রার। খাতিজার পরনে ছিল বোরখা। রহিমা অবশ্য মাথাও ঢাকেননি। পরেননি বোরখাও। ছবিটি পোস্ট করে রহমান লেখেন, ‘নীতা অম্বানীজির সাথে আমার পরিবারের তিন অমূল্য রত্ন নারী। #ফ্রিডমটুচুজ়।’

এমনিতে অল্প কথার মানুষ এ আর রহমান। পেশার তাগিদে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মুখ দেখালেও, প্রচারের আলো থেকে বরাবরই দূরে থাকেন অস্কারজয়ী এই সুরকার। তবে যেভাবে সমালোচনার জবাব দিয়েছেন তিনি, তাতে নেটিজেনদেরও অনেকেই তার প্রশংসা করেছেন।

সূত্র: জিএন

mimi8.jpg

টালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা মিমি চক্রবর্তী। সম্প্রতি টিকটক অ্যাপস-এ মেতেছেন এই নায়িকা। মিমির নানা রকম অঙ্গভঙ্গি ভক্তরা বেশ পছন্দ করেছেন।   কখনও তাকে বিভিন্ন ডায়লগের সাথে ঠোঁট মেলাতে দেখা যাচ্ছে। আবার কখনও বা নাচতে দেখা যাচ্ছে।

সব মিলে ভক্তরাও বেশ মজা পাচ্ছেন প্রিয় নায়িকাকে ভিন্নভাবে দেখার সুযোগ পেয়ে। আর মিমির সেসব ভিডিও রীতিমত ভাইরাল হচ্ছে। টালিউড তারকাদের মধ্যে মিমির পাশাপাশি টিকটকে আরেক জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত জাহানও এগিয়ে আছেন।

তারকাদের পাশাপাশি তরুণ প্রজন্মও টিকটক ভিডিওতে মেতেছেন। ‘বাপি বাড়ি যা’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন মিমি। ‘বোঝে না সে বোঝে না’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে রাতারাতি তারকা বনে যান তিনি।এরপর ‘বাঙালি বাবু ইংলিশ মেম’, ‘যোদ্ধা-দ্য ওয়ারিয়র’, ‘শুধু তোমারি জন্য’, ‘গল্প হলেও সত্যি’, ‘খাদ’, ‘জামাই ৪২০’, ‘কাঠমাণ্ডু’, ‘কেলোর কীর্তি’, ‘গ্যাংস্টার’সহ আরও কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেন মিমি।

jullu.jpg

শাহরুখ কন্যা সুহানা খান জুলিয়েটের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। বিখ্যাত রোমিও জুলিয়েট নাটকের সেই জুলিয়েট হয়েছেন তিনি। নাটকের একটি দৃশ্যের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ছবি নিয়ে চলছে আলোচনা।

ছোট বা বড় পর্দার কোন নাটক নয়। সুহানার কলেজের একটি অনুষ্ঠানে নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। সুহানার বিপরীতে রোমিও হয়েছেন তারই এক সহপাঠী।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে চরিত্রের মধ্যে সম্পূর্ণরূপে ডুবে আছেন সুহানা। পরনে দীর্ঘ সাদা পোশাক, চোখে-মুখে উদ্বেগ, আর এলোমেলো চুল বলে দিচ্ছে সুহানা হারিয়েছে সুদূর অতীতে। এই ছবি দেখে অনেকেই মন্তব্য করছেন ‘বাপ কা বেটি’ বলে।

ইন্সটাগ্রাম একাউন্টে আপলোড করা এই ছবি দেখে প্রশংসা করেছেন কিং খান নিজেই। মেয়ের ছবিটিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন তিনি।

সুহানা আগেই জানিয়েছেন তিনি অভিনয় জগতে আসতে চান। পেশা হিসেবে অভিনয়কে বেছে নিতে চেয়েছিলেন তিনি। বর্তমানে তিনি যুক্তরাজ্যে পড়াশুনা করছেন। এছাড়া সম্প্রতি জিরোর পরিচালক আনন্দ এল রায়ের সঙ্গে সহপরিচালক হিসেবে কাজ করেছে তিনি।

সুহানার বর্তমান কার্যক্রম দেখে ভক্তরা ধারণা করছেন বেশ পাকাপোক্তভাবে অভিনয় জগতে প্রবেশ করবেন তিনি

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

bpl85.jpg

মিরপুর জাতীয় স্টেডিয়ামে বিপিএলের ঢাকা ডায়নামাইটস বনাম রংপুর রাইডার্সের ম্যাচের খেলা চলছিল। হঠাৎ টেলিভিশনের পর্দায় ভেসে ওঠে বেশ কয়েকজন তারকার ছবি। খেলার মাঠে তারকাদের উপস্থিতি দর্শকমনে নিয়ে আসে আলাদা আমেজ। তবে বিনোদন জগতের তারকারা হঠাৎ মাঠে কেন এ নিয়ে দর্শক মনে তৈরি হয় কৌতূহল।

গেল ৬ ফেব্রুয়ারি বুধবার সন্ধ্যায় নুসরাত ইমরোজ তিশা, ফজলুর রহমান বাবু, রওনক হাসান, সাজু খাদেম উপস্থিত হয়েছিলেন মিরপুর জাতীয় স্টেডিয়ামে। অবশ্য তারকারা হঠাৎ মাঠে যাবার কারণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে ভক্তদের জানিয়েছেন। ‘ফাগুন হাওয়ার’ প্রচারের জন্য তাদের এই যাত্রা। অভিনেতা সাজু খাদেম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন লেখেন, ‘ফাগুন হাওয়ায় বিপিএল উত্তেজনায়’। তারকাদলের সদস্য রওনক হাসান ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন লেখেন, ‘বিপিএল এর মাঠে ফাগুন হাওয়ায় টিম।’

সিনেমা প্রসঙ্গে অভিনেতা সাজু খাদেম আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে নির্মিত সিনেমা। ১৯৫২ সালে মফস্বল শহর থেকে পুরো বাংলাদেশে কীভাবে যোগাযোগ রক্ষা করা হয়েছিল, তার একটা চিত্র এখানে আছে। আমি অভিনয় করেছি মফস্বল শহরের ডানপিটে ছেলের চরিত্রে। ডানপিটে ছেলের সঙ্গে ওইসময়ের পাকিস্তানি দারোগার একপ্রকার টম অ্যান্ড জেরি খেলাকে আমার চরিত্রের মধ্যমে উপস্থাপন করা হয়েছে। এখানে দুরন্তপনা আছে। সিনেমাটি দেখলে ভাষা আন্দোলন সম্পর্কিত বিশেষ কিছু বার্তা পাওয়া যাবে।’

‘ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে নির্মিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ সিনেমা। এর নির্মাতা তৌকীর আহমেদ। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইমপ্রেস টেলিফিল্মস। গেল ২০ জানুয়ারি সিনেমার ট্রেলার প্রকাশিত হয়েছে। পিন্টু ঘোষ ও সুকন্যার কণ্ঠে ‘আমি বারবার হাজারবার’ শিরোনামের সিনেমার একটি গানও প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়া গেল ৩ ফেব্রুয়ারি বিনা কর্তনে সিনেমাটির সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। সিনেমাটি মুক্তি পাবে ১৫ ফেব্রুয়ারি।

জানা গেছে, ‘ফাগুন হাওয়ায়’ সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে বসে উপভোগ করার সম্মতি দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ।

এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিশা, সিয়াম, আবুল হায়াত, আফরোজা বানু, সাজু খাদেম, ফারুক হোসেন, আজাদ সেতু, বলিউড অভিনেতা যশপাল শর্মা প্রমুখ। টিটো রহমানের ‘বউ কথা কও’ গল্পের অনুপ্রেরণায় নির্মিত হয়েছে ‘ফাগুন হাওয়ায়’ সিনেমাটি।

priay78.jpg

চোখ মেরে নয়, চুম্বনের কারণে এ বার ভাইরাল হল প্রিয়ার নতুন একটি ভিডিও।চোখ মেরে গত বছরই বিখ্যাত হয়েছিলেন প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়র।। খুনসুটির সেই ছোট্ট ভিডিওটি নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছিল। নতুন ভিডিওতে সহ অভিনেতা রোশন আব্দুল রউফকে চুম্বন করছেন তিনি।

মালয়লম ছবি ‘ওরু আধার লাভ’-এর নতুন একটি ভিডিও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেখানে রোশন আর প্রিয়াকে স্কুলের পোশাক পরে একসঙ্গে চুম্বন করতে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওটি ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয়নি।

সম্প্রতি বলিউডেও পা রেখেছেন প্রিয়া। ‘শ্রীদেবী বাংলো’ ছবিতে মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে। আর চলতি মাসের ১৪ তারিখ মুক্তি পাবে ‘ওরু আধার লাভ’ ছবিটি। এই ছবির ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিওই গত বছর জনপ্রিয়তার শিখরে নিয়ে গিয়েছিল ১৯ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীকে।

ভিডিওটি বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বদৌলতে। প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়র ভারতের কেরালা রাজ্যের তৃশার এলাকার তরুণী। তার বয়স মাত্র ১৮ বছর। প্রিয়া তৃশার একটি মহিলা কলেছে বিকম পড়ছেন। এর আগে তিনি কিছু দিন মুম্বইয়ে থাকতেন। প্রিয়া একজন ক্লাসিক্যাল ড্যান্সার। তিনি মডেলিং পেশায় রয়েছেন। এর আগে তিনি বেশকিছু শর্ট ফিল্মে অভিনয় করেছেন। ‘ওরু আধার লাভ’ তার প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য বাণিজ্যিক ছবি। ইন্টারনেট দুনিয়ার তার চোখ মারার ভিডিওর দৃশ্যটি ছড়িয়ে পড়ামাত্র ৪৮ ঘণ্টায় তার ফলোয়ার হয়েছিল ১৮ লাখ।

টুইটারে তিনি লিখেছেন, আমাকে ভালোবাসার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। সবার মন্তব্যের জবাব দেয়া আমার পক্ষে সম্ভব না। তবে ভালো কাজের মাধ্যমে অবশ্যই আমি সবার কাছে পৌঁছাব।

awards1-20190206174644.jpg

‘পপ সম্রাট আজম খানকে একুশে পদক দেওয়া হোক’ এই দাবি উঠেছিল অনেক দিন আগে থেকেই। প্রয়াত কণ্ঠশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা আজম খানের ভক্তকুলের সেই দাবি পূর্ণ হলো। এবার মরনোত্তর একুশে পদক পাচ্ছেন আজম খান। তার গাওয়া ‘বাংলাদেশ’, ‘রেল লাইনের ঐ বস্তিতে’, ‘ওরে সালেকা, ওরে মালেকা’, ‘আলাল ও দুলাল’, ‘অনামিকা’, ‘অভিমানী’, ‘আসি আসি বলে’ এর মতো অসংখ্য গান এখনো হৃদয়ে দোলা দিয়ে যায়।

আজম খানসহ আরও জনপ্রিয় দুই কণ্ঠ শিল্পী সুবীর নন্দী, খায়রুল আনাম শাকিল শিল্পকলা ও সংগীত বিভাগে একুশে পদক পাচ্ছেন এবার।

শুধু গানের জগতের মানুষ নয়, অভিনয় জগতের তিন খ্যাতিমান ব্যক্তিও একুশে পদক পাচ্ছেন। শিল্পকলা অভিনয় বিভাগে এবার একুশে পদক পাচ্ছেন লাকী ইনাম, সুবর্ণা মুস্তাফা ও লিয়াকত আলী লাকী।

একুশে পদক প্রাপ্তির সংবাদ পেয়ে সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন,‘একটা জীবন অভিনয় করে গেলাম, এখনো অভিনয় করে যাচ্ছি। দর্শকের অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। এরপরও অভিনয়ের জন্য রাষ্ট্রের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছি শুনে অনেক ভালো লাগছে।’

কবি অসীম সাহা, আনোয়ারা সৈয়দ হক, হরিশংকর জল দাস, মইনুল আহসান সাবের, কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ২১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি চলতি বছর (২০১৯) একুশে পদক পাচ্ছেন এবার।

বুধবার সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রীয় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পদকপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করেছে। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে একুশে পদক তুলে দেবেন।

Subarna-Soud.jpg

বরেণ্য অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা আর জনপ্রিয় নির্মাতাদের একজন বদরুল আনাম সৌদ। প্রয়াত গুণী অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ পর ২০০৮ সালে নিমার্তা সৌদকে ভালোবেসে বিয়ে করেন সুবর্ণা। এ বিয়ে নিয়ে শোবিজ পাড়ায় শুরু থেকেই নানা গুঞ্জন চলে।

এবার তেমনই একটি গুঞ্জন সত্য হওয়ার পথেই এগুচ্ছে বলে ধারণা করছেন অনেকে। তবে এবার জোরালোভাবেই কথা উঠেছে, সুবর্ণা মুস্তাফা ও বদরুল আনাম সৌদের সংসার ভেঙে যাচ্ছে।

সুবর্ণা-সৌদের ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, বেশ ক’দিন ধরেই তাদের বনিবনা হচ্ছে না। ইদানিং তারা নাকি আলাদাও থাকছেন। সংসারে অশান্তির কারণে কিছুদিন আগে সৌদ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালেও ভর্তি হন। এবারও অভিযোগ উঠেছে, সৌদ নাকি নতুন প্রেমে মজেছেন। আর এ কারণেই সংসারে অশান্তি।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা ও নির্মাতা বদরুল আনাম সৌদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে দুজনের ফোনই বন্ধ পাওয়া যায়। এখন দেখার পালা, সংসার ভাঙনের খবরটি কি এবারও গুঞ্জন নাকি সত্যি।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ৭ জুলাই গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেন অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা। সৌদের বয়সের চেয়ে সুবর্ণা বড়, এ নিয়ে নাটকপাড়ায় চলে নানা আলোচনা-সমালোচনা। এক দশকের এই সংসার জীবনে, বেশ কয়েকবারই তাদের সংসারে ভাঙনের গুঞ্জন উঠেছিল।

popy8.jpg

মেকআপের ছবি প্রকাশের ঘটনায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলা ও নিউজের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমানের বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। মাহফুজুর রহমান তার গালে মেকআপ করে দিচ্ছেন- এমন ছবিটি তিনি প্রকাশ বা ছড়িয়ে দেননি বলে দাবি করেন পপি।

ড. মাহফুজুর রহমানের কথার ভিত্তিতে পপি বলেন, ‘ওনি আমার বাবার বয়সী, আমি যদি ভুল করে থাকি তাহলে আমি ক্ষমা চাইতে পারি। কিন্তু আমি কোন ভুল করিনি। আমি জানিনা কেন ওনি এই কথা বলছেন। আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন নারী। আমি মনে করি নারীর প্রতি সম্মান রেখে কথা বলা উচিত। আমি বলবো ওনার এই কথা ভিত্তহীন। আল্লাহ ওনার হেদায়েত দান করুন।’

প্রসঙ্গত, কিছু দিন আগে সিনেমার শুটিংয়ের জন্য এফডিসিতে মেকআপ করছিলেন চিত্রনায়িকা পপি। হঠাৎ সেই সেটে হাজির হন মাহফুজুর রহমান। মেকআপম্যান ঠিকমতো মেকআপ করতে না পারায় মাহফুজুর রহমান নিজেই পপির মেকআপ ঠিক করে দেন।

এই ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সবখানে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয় ছবিটি। এ নিয়ে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়। সোমবার রাজধানীর কারওয়ানবাজারে এটিএন বাংলার কার্যালয়ে ‘সময় ও অসময়ের গল্প’ সিরিজের নাটকের সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে কথা বলেন মাহফুজুর রহমান।

naga-story_770.jpeg

আত্মহত্যার তালিকায় এবার নাম লেখালেন তেলেগু অভিনেত্রী নাগা ঝাঁসি। মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে হায়দরাবাদ শ্রীনগর নিজ বাসা থেকে ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রেমে ব্যর্থ হয়েই আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করছে পুলিশ।

ভারতের শীর্ষস্থানীয় এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, নাগাকে তার হায়দরাবাদের বাড়িতেই সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার রাত ৯টা নাগাদ শ্রী নগর কলোনির ফ্ল্যাটে তাকে ওই অবস্থায় দেখে সঙ্গে সঙ্গে সেকেন্দ্রাবাদের গান্ধী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি সুইসাইড নোট ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। অভিনেত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, গত ছয় মাস ধরে সূর্য নামে এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন অভিনেত্রী। তবে তার পরিবার এই সম্পর্কে সন্তুষ্ট ছিল না। সূত্রের দাবি, পরিবার ও বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ঝামেলার পরই আত্মহত্যার পথ বেছে নেন নাগা।

সম্প্রতি শেষ হওয়া টিভি শো ‘পবিত্র বন্ধমে’র মাধ্যমে জনপ্রিয়তা লাভ করেছিলেন অন্ধ্রপ্রদেশের কৃষ্ণা জেলার ভাদালি গ্রামের বাসিন্দা নাগা।

srk-al.jpg

শাহরুখ খান ও অক্ষয় কুমারকে যদি আবার একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখেন তাহলে আপনার কেমন লাগবে? নিশ্চয় সিনেমাপ্রেমীদের মতো খুশি হবেন আপনিও। তবে খুব অসম্ভব কিছু না ঘটলে তা হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। তাদের মধ্যে সম্পর্ক মোটেও সাপে-নেউলের মতো নয়। তাহলে তাদের কেন একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায় না? সেই রহস্য সম্প্রতি ভেদ করেছেন স্বয়ং শাহরুখ খান।

শাহরুখ ও অক্ষয়, দু’জন দুই ধরনের জীবনধারায় অভ্যস্ত। অক্ষয় যদি ভোরের পাখি হন, তাহলে শাহরুখ নিশ্চিতভাবে রাতের পাখি। প্রধানত এ জন্যই তাদের একসঙ্গে দেখা যায় না কোনো সিনেমায় অভিনয় করতে।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের পক্ষে অক্ষয় কুমারের সঙ্গে সিনেমা করার বিষয়টি নিয়ে কিং খানকে প্রশ্ন করা হয়। উত্তরে শাহরুখ বলেন, ‘আমি কী করে এ কথার উত্তর দেব? আমি ওর মতো অত সকালে উঠতে পারি না। আমি যখন ঘুমতে যাই তখন ঘুম থেকে উঠে পড়ে ও।’

এরপরই শাহরুখ নিজেকে নিশাচর বলেছেন। তবে শাহরুখ বলেছেন, ‘আমি আর অক্ষয় একসঙ্গে কোনো সিনেমায় অভিনয় করলে শুটিংয়ের ব্যাপারটা খুব ইন্টারেস্টিং হবে। কারণ কখনোই আমাদের সেটে দেখা হবে না। কারণ একজন শুটিং শেষ করে বাড়ি চলে গেলে অন্যজন শুটিংয়ের জন্য আসবেন।’