বিনোদন Archives - Page 5 of 9 - Dhaka Today

dt008639.jpg

বলিউডের অন্যতম খ্যাতিমান অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। এই অভিনেতা নিজের একটি বইয়ে সাবেক মিস ইন্ডিয়া নিহারিকা সিং-এর সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন। তাদের দু’জনের রগরগে যৌন সম্পর্কের কাহিনিও ছিল বইতে। কিন্তু সে সময় অনুমতি ছাড়া ব্যক্তিজীবন বইতে প্রকাশ করা নিয়ে আইন আদালতের আশ্রয় নেয়ার কথা জানান।
এবার নওয়াজউদ্দিনের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ করলেন নিহারিকা। অভিনেত্রীর অভিযোগ, ‘মিস লাভলি’-র শুটিংয়ের সময় নওয়াজের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করি। কিন্তু বন্ধুত্বকে অন্য পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছিলেন নওয়াজ।
তিনি আরও জানিয়েছেন, শুধু তাই নয়, নওয়াজ নাকি জোর করে তার সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হয়েছেন। শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য জোর করেছেন বার বার।
নিহারিকা অভিযোগ করে বলেন, ‘আনওয়ার কা আজিব কিসসা’ সিনেমার শুটিং চলাকালীন নওয়াজ একদিন আমাকে ফোন করেন এবং জানান, আমার বাড়ির কাছেই শুটিং করছেন। একথা শুনে আমার বাড়িতে আমন্ত্রণ জানাই তাকে। এ সময় সকালের খাবার গ্রহণে অনুরোধ করি। আমন্ত্রণ পেয়ে দ্রুতই বাড়িতে চলে আসেন নওয়াজ। কিন্তু দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে সে আমাকে জড়িয়ে ধরেন। বার বার চেষ্টা করেও ওই সময় নওয়াজের কাছ থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে নিতে পারিনি। খবর জি নিউজের।
নিহারিকার অভিযোগ শুধুমাত্র যৌনতার জন্যই নওয়াজ আমার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন।

priya-20181109132002.jpg

ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী প্রিয়া প্রকাশ ওয়ারিয়রের এক চোখের ইশারায় মাত হয়ে গিয়েছিল গোটা ভারত। আবারও নতুন লুকে হাজি হয়ে হুলুস্থুল কাণ্ড বাঁধিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ছবি শেয়ার করেন প্রিয়া। যেখানে একেবারে ভারতীয় লুকে দেখা যায় তাকে।

একটি অনুষ্ঠানে তোলা প্রিয়ার এই ছবি এরই মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে। হইচই পড়ে গেছে ভক্ত-দর্শকদের মাঝে। ছবিতে সোনালি রঙের পোশাকের সঙ্গে জমকালো কানের দুল পরা প্রিয়াকে দেখে মুগ্ধ অনেকেই।

মালায়লম ছবি ‘ওরু আদার লাভ’-এর একটি দৃশ্যের মধ্য দিয়ে প্রথম আলোচনায় আসেন প্রিয়া প্রকাশ। ওই সিনেমার একটি গানে অভিনেতা রওশন আবুল রউফের সঙ্গে তার রসায়ন নিয়ে তুমুল আলোচনা হয়। গানটির জন্য ভক্ত-সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছিল এই জুটি।

সেই থেকে শুরু। এরপর দক্ষিণের বেশ কিছু বিজ্ঞাপনেও দেখা যায় প্রিয়াকে। তবে বলিউডে কবে তার অভিষেক হতে যাচ্ছে, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

monisha-20181109172200.jpg

শুরু হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় সাহিত্য উৎসব ‘ঢাকা লিট ফেস্ট ২০১৮’। গতকাল ৮ নভেম্বর বাংলা একাডেমিতে এ উৎসব শুরু হয়। এবারের উৎসবে অংশ নিলেন বলিউড অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা। শুক্রবার এই উৎসবে যোগ দিয়েছেন তিনি। এই অভিনেত্রী তার জীবনের প্রথম গ্রন্থ ‘দ্য বুক অব আনটোল্ড স্টোরিজ’ প্রকাশের ঘোষণা দিয়েছেন। মূলত এই বইয়ের সূত্র ধরেই লেখকদের সমাবেশে তার যোগদান।

গুনী এই অভিনেত্রী বাংলা একাডেমীতে ঢাকা লিট ফেস্ট ২০১৮’ এর অনুষ্ঠানে এসে শুনিয়েছেন ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করার এক অন্যরকম গল্প। শুক্রবার সকাল ১১টার সময় শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের লিট ফেস্ট। দুপুরে মনীষা আগত লেখক ও শ্রোতাদের শুনিয়েছেন তার গল্প।

ঢাকা লিট ফেস্টে মনীষা তার বই এবং জীবনের নানা গল্প নিয়ে দুই ঘণ্টার একটি সেশনে অংশ নিয়েছেন।এই সময় তার সঙ্গে ছিলেন ‘রিকশা গার্ল’ বইয়ের লেখিকা ও অভিনেত্রী নন্দিতা দাস। বেশ জমে উঠে ছিল তাদের আড্ডা।

MONISHA-(2)

নেপালি কন্যা বলিউড নায়িকা মনীষা কৈরালা ‘১৯৪২ অ্যা লাভ স্টোরি’ ছবির মাধ্যমে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে যাত্রা শুরু করেছিলেন। ক্যান্সারের সঙ্গে অনেক দিনে লড়াই করে জিতে ফিরে এসেছেন তিনি। রাজকুমার হিরানি নির্মিত সঞ্জয় দত্তের বায়োপিকে অভিনয় করেন মনীষা।

অন্যদিকে নন্দিতা দাস চলচ্চিত্র অভিনেত্রী, পরিচালকই ও সামাজকর্মী। লিট ফেস্টে তিনি এসেছেন নিজের পরিচালিত নতুন চলচ্চিত্র ‘মান্টো’ নিয়ে। গতকাল বৃহস্পতিবার উদ্বোধনী দিনে ছবিটির বাংলাদেশ প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দেশ-বিদেশের দুই শতাধিক সাহিত্যিক, অভিনেতা, রাজনীতিক, গবেষক, সাংবাদিক, প্রকাশক, চিন্তাবিদ, ইতিহাসবিদ প্রায় ১০০টি সেশনে অংশ নিচ্ছেন এই আয়োজনে। আয়োজনের বড় অংশ জুড়ে থাকছে দেশের সাহিত্যিকদেরও অংশগ্রহণ। লিট ফেস্ট শেষ হবে ১০ নভেম্বর।

asif-bhai-l-20181108143141.gif

কেউ অভিনয় করে মুগ্ধতা ছড়িয়ে যাচ্ছেন আবার কেউ গান গেয়ে মন ভরাচ্ছেন। তারা আমাদের প্রিয় তারা। মজার ব্যাপার হলো এই মানুষগুলোর আরও একটি পরিচয় আছে। কোনো না কোনো কারেণ তারা সাংবাদিকতার সঙ্গেও জড়িয়েছেন।

কেউ সাংবাদিকতার সূত্রে শোবিজে এসেছেন, কেউ আবার তারকাখ্যাতির খাতিরে সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। এমন তারকাদের অনুসন্ধান করতে গিয়ে তালিকায় দেখা গেল অনেক জনপ্রিয় নামের ভিড়। আর সংখ্যাটাও কম নয়।

এমনই বেশ কজন তারকাকে নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন-

আসাদুজ্জামান নূর
অভিনেতা, আবৃত্তিশিল্পী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, মন্ত্রী- অনেক পরিচয়ে মহিমান্বিত একটি নাম আসাদুজ্জামান নূর। তিনি নব্বই দশকের শুরুতে হুমায়ূন আহমেদের ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে ‘বাকের ভাই’ চরিত্রে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পান।

তবে হয়তো অনেকেই জানেন না একজন সাংবাদিক হিসেবেই নিজের কর্মজীবন শুরু করেছিলেন আসাদুজ্জামান নূর। তিনি ১৯৭২ সালে বহুল প্রচারিত সাপ্তাহিক চিত্রালীতে কাজ করার মধ্যদিয়ে কর্মে প্রবেশ করেন।

সঞ্জীব চৌধুরী
কথা প্রধান গান, আর গানে গানের মানুষের সুখ-দুঃখ ফেরী করে বেড়ানো এক শিল্পীর নাম সঞ্জীব চৌধুরী। ‘আমি তোমাকেই বলে দেব’, ‘ভাঁজ খোলো আনন্দ দেখাও’, ‘তোমার বাড়ির রঙের মেলায়’সহ বহু জনপ্রিয় গান তিনি উপহার দিয়েছেন।

প্রয়াত এই শিল্পী একজন খ্যাতনামা সাংবাদিকও ছিলেন। বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্র আজকের কাগজ, ভোরের কাগজ ও যায়যায়দিনে কাজ করেছেন তিনি। আমৃত্যু যুক্ত ছিলেন সাংবাদিকতার সঙ্গে।

হাসান মাসুদ
নিউ নেশান, ডেইলি স্টার ও বিবিসি সব মিলিয়ে ১৫ বছরের অধিক সময় সাংবাদিকতার সঙ্গে ছিলেন অভিনেতা হাসান মাসুদ। এর আগে ছায়ানট থেকে নজরুল সংগীতের উপর ৫ বছরের একটি কোর্স সম্পন্ন করেন।

১৯৮৫ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে ক্যাডেট হিসেবে যোগ দেন এবং ১৯৯২ সালে অধিনায়ক হিসাবে অবসর গ্রহণ করেন। তিনি নিউ নেশনম এবং পরবর্তীতে ডেইলি স্টারে ক্রীড়া প্রতিবেদক হিসেবে কাজ করেন।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পচিালিত ব্যাচেলর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে তার পথচলা শুরু হয়। পরবর্তীতে তিনি মেড ইন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র এবং অনেক নাটকে অভিনয় করেন। তার প্রথম সংগূীত অ্যালবাম ‘হৃদয়ঘটিত’ ২০০৬ সালে প্রকাশ পায়। বর্তমানে অভিনেতা হিসেবেই অধিক পরিচিত তিনি।

তাজিন আহমেদ
গত ২২ মে বিকেল ৪ টা ৩৪ মিনিটে তিনি না ফেরার দেশে পাড়ি জমান একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন। অভিনেত্রী হিসেবেই সবাই চেনেন তাকে। বিটিভির স্বর্ণালী সময়ে টিভিনাটকে অভিনয় করে দর্শকের কাছে প্রিয় হয়ে ওঠেন তাজিন আহমেদ।

রেডিও এবং টেলিভিশনে উপস্থাপনাও করতেন তাজিন। লেখালেখিও করতেন তিনি। তাজিনের লেখা ও পরিচালনায় তৈরি হয় ‘যাতক’ ও ‘যোগফল’ নামে দুটি নাটক। তার লেখা উল্লেখযোগ্য নাটকগুলো হচ্ছে ‘বৃদ্ধাশ্রম’, ‘অনুর একদিন’, ‘এক আকাশের তারা’, ‘হুম’, ‘সম্পর্ক’ ইত্যাদি।

তবে কর্ম জীবন শুরু করেছিলেন তিনি সাংবাদিক হিসেবে। তাজিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর করে ভোরের কাগজের সাংবাদিক হিসেবে যোগ দেন। এরপর প্রথম আলোসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সাংবাদিকতা করেছেন। আনন্দ ভুবন ম্যাগাজিনের কলামিস্টও ছিলেন তিনি।

মাহফুজ আহমেদ
ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা মাহফুজ আহমেদ। সিনেমাতে অভিনয় করেও মানুষের মন জয় করেছেন তিনি। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুুরস্কার। মজার ব্যপার হলো মাহফুজ আহমেদও তার কর্মজীবন শুরু করেছিলেন সাংবাদিকতা দিয়ে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে পড়াশোনাকালীন বিনোদন পাতায় লিখতেন। কাজ করেছেন তিনি পূর্ণিমা নামের একটি ম্যাগাজিনে। সেখানে কাজের সুবাদে ইমদাদুল হক মিলনের সঙ্গে পরিচয়। তারই পরামর্শে জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘কোন কাননের ফুল’ এ ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করার মধ্য দিয়ে টিভি নাটকে নাম লেখান।

এরপর হুমায়ূন আহমেদের বিখ্যাত ধারাবাহিক ‘কোথাও কেউ নেই’-এ বাকের ভাইয়ের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেয়া মতি চরিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি পান। নব্বই দশকে অনেক জনপ্রিয় অভিনেতার ভিড়ে তিনি মূলত পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করতেন।

তবে শেষের দিকে ‘সবুজ ছায়া’ ধারাবাহিকে অভিনয় করে বেশ আলোচিত হন, ততদিনে তিনি হয়ে উঠেন হুমায়ূন আহমেদের আস্থাভাজন অভিনেতা। বর্তমানে অভিনয় ও পরিচালনা দুই নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি।

এলিটা
গানের জগতের জনপ্রিয় মুখ এলিটা করিম। নিয়মিতই গান গেয়ে যাচ্ছেন তিনি। বিভিন্ন কনসার্টে ও টেলিভিশনের গানের অনুষ্ঠানে নিয়মিত তার দেখা পাওয়া যায়। তিনি সাংবাদিক। ইংরেজি দৈনিক ‘ডেইলি স্টার’- এ দীর্ঘদিন ধরেই সাংবাদিকতা করছেন তিনি।

ফেরদৌস
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ে পড়াশুনা করেছেন ফেরদৌস। আনন্দ আলো ম্যাগাজিনেও সাংবাদিক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। কিন্তু ছোটবেলা থেকেই মডেলিং ও অভিনয়ের প্রতি টান ছিল তার। সেই টান থেকেই তিনি হয়ে উঠেছেন আজকের নায়ক ফেরদৌস।

তার চলচ্চিত্রে আগমন ঘটে প্রয়াত নৃত্য পরিচালক আমির হোসেন বাবু’র হাত ধরে। তখন আমির হোসেন বাবু পরিচালক হিসেবে নাচভিত্তিক একটি চলচ্চিত্র ‘নাচ ময়ূরী নাচ’ নির্মাণের পরিকল্পনা করছিলেন। কিন্তু আমির হোসেন বাবু সেই ছবির কাজ আর শুরু করতে পারেননি। তাই ফেরদৌস অভিনীত মুক্তি পাওয়া প্রথম চলচ্চিত্র প্রয়াত নায়ক সালমান শাহের অসমাপ্ত কাজ ‘বুকের ভিতর আগুন’। এটির পরিচালক ছিলেন ছটকু আহমেদ।

আসিফ আকবর
‘বাংলা গানের যুবরাজ’খ্যাত আসিফ আকবরও বেশ কিছুদিন সাংবাদিকতা করেছেন। কয়েক বছর আগে মানবজমিন প্রত্রিকায় বিশেষ সংবাদদাতা হিসেবে তার অনেক লেখা প্রকাশিত হয়েছে। বর্তমানেও তার তত্বাবধানে আর্ব নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম নামে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল রয়েছে। লেখালেখির প্রতি ভালোবাসা থেকেই এই পোর্টালটি করেন তিনি।

এছাড়া ক্রিকেটসহ নানা বিষয়ে নিয়মিত কলাম লেখেন তিনি। বলার অপেক্ষা রাখে না, গানের মতো লেখাতেও জনপ্রিয় এই সংগীত তারকা।

মৌসুমী
প্রিয়দর্শিনী অভিনেত্রী মৌসুমী। ঢাকাই সিনেমা তিনি মাতিয়ে রেখেছেন সৌন্দর্য আর অভিনয়ে। ৩ নভেম্বর ছিল তার জন্মদিন। এই দিনে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সম্পাদক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন তিনি। নিউজ পোর্টালটির নাম ‘ইয়েসনিউজবিডিডটকম’।

এখানে কেবলমাত্র শোবিজের খবর পাওয়া যাবে। মৌসুমী বলেন, ‘সাংবাদিকতার প্রতি অনেক আগে থেকেই আগ্রহ ছিল। পেশাজীবনে অনেক সাংবাদিকের সঙ্গে মিশেছি। সেই জন্য এই পেশার প্রতি ভালো লাগা আরও বেশি। আশা করি অভিনয়ের মতো সাংবাদিক ক্যারিয়ারেও সবাইকে পাশে পাবো।’

মৌসুমী বেশ কয়েক বছর আগে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন ‘প্রিয়জন’-এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

ইলিয়াস কাঞ্চন
বাংলাদেশের সবচেয়ে ব্যবসা সফল ‘বেদের মেয়ে জোছনা’ সিনেমার নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। অংখ্য জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজ সেবক হিসেবেও তিনি খ্যাতিমান।

২৫ বছর ধরে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন করে আসছেন। পেয়েছেন একুশে পদক। আরও একটা পরিচয় আছে তারা। নিরাপদ নিউজ নামের একটি অনলাইন নিউপোর্টালের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

শবনম বুবলী
অনার্স পড়েছেন ইকোনোমিক্সে। এরপর মার্কেটিংয়ে এমবিএ। টেলিভিশনে অন্যদের খবর পড়া দেখতে দেখতেই এই পেশার প্রতি আগ্রহ তৈরি হয় তার। বুবলীর বোনও নিউজ প্রেজেন্টার ছিলেন। তাকে দেখেই অনুপ্রাণিত হন বুবলী।

অনার্স সেকেন্ড ইয়ার পার হওয়ার পরেই নিউজ প্রেজেন্টের উপর কোর্স করেন। এরপর বাংলাভিশনে সংবাদপাঠিকা হিসেবে কর্ম জীবন শুরু করেন। বেশ সফলতার সঙ্গেই চলছিল তার এই পেশা।

এরই মধ্যে শাকিব খানের সঙ্গে অভিনয় করার সুযোগ পান। তার পরের গল্পটা সবার জানা। এখন নায়িকা হিসেবেই সবাই চেনেনে তাকে।

এছাড়াও সৈয়দ হাসান ইমাম মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন দৈনিক ইত্তেফাকসহ বাংলাদেশ বেতারে নানাভাবে সাংবাদিকতার সঙ্গে জড়িয়ে ছিলেন। মামুনুর রশীদ মুক্তিযুদ্ধের সময়ে সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। আলী যাকেরও মুক্তিযুদ্ধের সময় বিবিসিতে যুদ্ধ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেছেন।

অভিনেত্রী শমী কায়সার বড় হয়েছেন সাংবাদিকতার আবহে। নিজেও লিখতে ভালোবাসেন। ভোরের কাগজে একসময় নিয়মিতই দেখা যেত তার কলাম। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে গায়ক বাপ্পা মজুমদার ও জয়া আহসানও ভোরের কাগজে ফিচার লিখেছেন। সাম্প্রতিককালে কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবীও কলাম লিখছেন বেশ কিছু গণমাধ্যমে।

আফজাল হোসেন, বিপাশা হায়াত ও তৌকীর আহমেদ লেখা নিয়ে সাংবাদিকতার সঙ্গে না থাকলেও দীর্ঘদিন ধরে তারা বিভিন্ন পত্রিকায় কার্টুন, গ্রাফিক্স, ইলাস্ট্রেটরের কাজ করেছেন।

নির্মাতা ও নাট্যকার অরুণ চৌধুরী দীর্ঘদিন ধরে সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ম্যাগাজিন আনন্দধারার। চ্যানেল আইতে এখন কাজ করছেন তিনি।

মুশফিকুর রহমান গুলজার ১৯৮৭ সালে ‘বাংলার বাণী’ পত্রিকায় কাজ শুরু করেন বিনোদন সাংবাদিক হিসেবে। বিনোদন সাংবাদিকতা করতে গিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহী হন।

অভিনেতা সুমন পাটোয়ারি গানের মানুষ হিসেবেও পরিচিত। তবে তিনি সাংবাদিক হিসেবেও কাজ করেছেন অনেকদিন। দৈনিক প্রথম আলোতে সাংবাদিকতা করেছেন তিনি।

dt008615.jpg

চিকিৎসা ও অসহায়ত্ব দূর করতে দেশের চার গুণী শিল্পীর পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার। এরা হলেন অভিনেতা প্রবীর মিত্র, রেহানা জলি, নূতন ও কণ্ঠশিল্পী কুদ্দুস বয়াতি।

বৃহস্পতিবার এই চার গুণী শিল্পীকে সকাল ১০ টার দিকে গণভবনে ডেকে ৯০ লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চার শিল্পী উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে এই অনুদান গ্রহণ করেছেন।

প্রবীণ অভিনেতা প্রবীর মিত্র ও অসুস্থ অভিনেত্রী রেহানা জলি পেয়েছেন ২৫ লাখ করে অন্যদিকে অভিনেত্রী নূতন ও শিল্পী কুদ্দুস বয়াতি ২০ লাখ টাকা করে পেয়েছেন। সকলকে উক্ত মূল্যের সমমান সঞ্চয়পত্র তুলে দেয়া হয়েছে।

শিল্পী ঐক্য জোটের সভাপতি ও অভিনেতা ডি এ তায়েবের পরামর্শে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ও নাট্য নির্মাতা জিএম সৈকতের তত্ত্বাবধানে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন কুদ্দুস বয়াতি বাদে বাকি তিনশিল্পী। অনুদান গ্রহণের সময় শিল্পী ঐক্য জোটের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন নির্মাতা জিএম সৈকত।

অর্থের কারণে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল রেহেনা জলির চিকিৎসা। টাকা পেয়ে আবার চিকিৎসা শুরু করবেন এবং সুস্থ হয়ে খুব তাড়াতাড়ি কাজে ফিরবেন বলেও জানান রেহেনা জলি

hollywood.jpg

৯ নভেম্বর হলিউডের দুটি সাড়া জাগানো ছবি একসঙ্গে মুক্তি পাচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্সে। ছবিগুলো হলো ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’ এবং ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য ফোর রিয়ামস’। ছবি দুটি হলিউডের সিনেমাপ্রেমীদের আগ্রহের তুঙ্গে।

জনপ্রিয় ব্রিটিশ ব্যান্ড কুইনের ভোকাল অকালপ্রয়াত ফ্রেডি মার্কারির জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’। ব্যান্ডের জনপ্রিয় গান ‘বোহেমিয়ান রাপসোডি’ অনুসারে ছবিটির নাম রাখা হয়েছে। এটি পরিচালনা করেছেন ব্রায়ান সিঙ্গার।

অন্যদিকে আর্নেস্ট হফম্যানের ছোটগল্প ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য মাউস কিং’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ‘দ্য নাটক্র্যাকার অ্যান্ড দ্য ফোর রিয়ামস’। পরিচালনা করেছেন সুইডিশ পরিচালক লারস হালস্টর্ম এবং ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা : দ্য ফার্স্ট অ্যাভেঞ্জার’খ্যাত মার্কিন পরিচালক জো জনস্টন।

mithilanew.jpg

কর্মক্ষেত্রে নারী নির্যাতন, যৌন হেনস্তা ও বৈষম্য নিয়ে বর্তমানে সোচ্চার গোটা বিশ্ব। এসব ইস্যু নিয়ে হলিউডের পরে বলিউডে ওঠে #মিটু আন্দোলনের ঝড়। যে ঝড়ে এখনও টালমাটাল ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। চলতি বছরের শুরুতে সেই ঝড়ের বাতাস লাগে বাংলাদেশের শোবিজ জগতেও। সে সময় নাম প্রকাশ না করে এক প্রযোজকের বিরুদ্ধে কাস্টিং কাউচের অভিযোগ তোলেন অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিন।

সম্প্রতি দেশের প্রথমসারির একটি ইংরেজি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাতকারে সেই বিষয় নিয়েই কথা বললেন অভিনেত্রী ও উন্নয়নকর্মী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। তার মতে, শুধু বিনোদন জগতে নয়, যৌন হেনস্তা ও লিঙ্গ বৈষম্য সব মাধ্যমেই রয়েছে। তবে গত এক বছর ধরে এই চিত্রটা মিডিয়া জগতেই সবচেয়ে বেশি দেখা যাচ্ছে। আমাদের সচেতনার অভাবেই সেই মাত্রাটা আরও প্রকট হচ্ছে।’

মিথিলা বলেন, ‘হলিউড, বলিউডসহ বিভিন্ন ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নারী নির্যাতন ও যৌন হেনস্তার নানা ঘটনা #মিটু আন্দোলনের মাধ্যমে সামনে এসেছে। প্রতিদিন আরও অনেক ঘটনাই প্রকাশ পাচ্ছে। অনেক নারীই সাহস করে তাদের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে ঘটে যাওয়া নানা বাজে অভিজ্ঞতার কথা প্রকাশ করছেন। ইন্ডাস্ট্রির অন্য নারীরাও এগিয়ে এসে তাদেরকে সমর্থন দিচ্ছেন। এটা একটা ভালো দিক।’

বর্তমানে ব্র্যাক ইন্টারন্যাশানালের আর্লি চাইল্ডহুড ডেভেলপমেন্টের প্রধান হিসাবে কর্মরত আছেন মিথিলা। একজন উন্নয়নকর্মী তিনি মনে করছেন, এই সমস্যার মেঘ খুব শিগগিরই কেটে যাবে। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমার সংস্থাটি লিঙ্গ বৈষম্য এবং শিশুদের সুরক্ষা নিয়ে কাজ করে। আরও বহু উন্নয়নমূলক সংস্থাই এই সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছে। যার ফলে বর্তমানে বেশ ইতিবাচক পরিবর্তনও দেখা যাচ্ছে।’

মিথিলার কর্মজীবন শুরু হয়েছিল একজন পেশাদার উন্নয়নকর্মী হিসাবে। শিক্ষাজীবন শেষে তিনি গবেষক হিসেবে ব্র্যাকে যোগ দেন। এরপর আমেরিকায় গিয়ে বছরখানেক মিনিয়াপোলিস পাবলিক স্কুল ডিস্ট্রিক্টে কাজ করেন। বাংলাদেশে ফিরে স্কলাস্টিকা হাই স্কুলে কাজ শুরু করেন। নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকচারার হিসাবেও কাজ করেছেন তিনি। পাশাপাশি অভিনয়, নাচ এবং গানেও তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে।

dt008588.jpg

সালমান খানের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিল ক্যানসার আক্রান্ত এক শিশু। আর তা জানতে পেরে সালমান খান নিজেই তার সঙ্গে দেখা করতে চলে যান মুম্বাইর টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে। এখন অনলাইনে ঘুরছে শিশুটির সঙ্গে সালমানের সাক্ষাতের একটি ভিডিও। শিশুটির সঙ্গে আলাপচারিতার এক ফাঁকে মাথা নিচু করে কি চোখের জল লুকিয়েছেন সালমান খান?

জনহিতকর কাজে সুনাম আছে মারকুটে নায়ক সালমান খানের। তবে তাঁর এসব কাজ প্রচার পাক, তা কখনোই চাননি তিনি। শিশুদের প্রতি এই অভিনেতার রয়েছে অন্য রকম মমতা। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘুরে বেড়ানো ওই ভিডিওটি দেখে তা আবারও মনে পড়ে যায়। ইনস্টাগ্রামের ওই ভিডিওটি শেয়ার করেছে সালমান খানের ফ্যান ক্লাব। সেখানে দেখা যায়, টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে ছোট্ট একটি শিশুর সঙ্গে গল্প করছেন তিনি। ক্যানসারে আক্রান্ত শিশুটি চিকিৎসাধীন ওই হাসপাতালে। সালমানকে দেখতে চেয়েছিল সে। সালমানও সাড়া দিয়েছেন। কেবল শিশুটিই নয়, ওই ওয়ার্ডের সবার সঙ্গেই কথা বলেছেন তিনি।

এমন ঘটনা এটাই প্রথম নয়। এর আগে অভিনেতা কুমার আজাদের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে এসেছিলেন সালমান খান। যদিও কুমার আজাদকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই মারা যান তিনি। তবে সালমান খানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছিল কুমার আজাদের পরিবার।

সালমান খান এখন কাজ করছেন আলী আব্বাস জাফর পরিচালিত ‘ভারত’ ছবিতে। এ ছবিতে আরও অভিনয় করছেন ক্যাটরিনা কাইফ, টাবু, দিশা পাটানি, জ্যাকি শ্রফ প্রমুখ। ছবিটি আগামী বছর ঈদে মুক্তি পাবে। টাইমস অব ইন্ডিয়া

sarikk.jpg

সারিকা সাবরিন ২০০৮ সালে মডেলিং এর মাধ্যমে মিডিয়ায় পদার্পণ করেন। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন। তিনি টিভি নাটকেও অভিনয় করেছেন।

জনপ্রিয় এই মডেল ও অভিনেত্রীকে শিল্পী সুলভ আচরণ না করার জন্য ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস্ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ।

২৮ জুলাই সংঠগঠনটির কার্যনির্বাহী সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। সারিকাকে নিষিদ্ধ কার্যকর শুরু হয়েছে গত ১ আগস্ট থেকে।

সেপ্টেম্বর মাসে ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে নিজের এমন আচরণের জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন সারিকা। এরপর এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১ নভেম্বর থেকে তার ওপরে থাকা নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। এরপর গত ৩ নভেম্বর থেকে আবার ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

লিটু সাখাওয়াত এর রচনায় ও সকাল আহমেদের পরিচালনায় একটি নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি। নাটকের নাম ‘ব্রেকিং নিউজ’। এখানে সারিকার বিপরীতে অভিনয় করেছেন সজল।

zeroo-2h.jpg

ফিল্ম রিলিজ হবে ২০ ডিসেম্বর। ট্রেলার লঞ্চ হয়েছে মাত্র চার দিন আগে। আর তাতেই বিতর্কে শাহরুখ খান-এর ‘জিরো’। শিখ সম্প্রদায়ের রোষের মুখে পড়েছেন পরিচালক আনন্দ এল রাই এবং কিং খান।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, ট্রেলার বন্ধ করার দাবি জানিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন দিল্লির বিজেপি বিধায়ক মনজিন্দর সিং সিরসা। পাশাপাশি প্রোমো এবং ফিল্ম থেকে ওই অংশ বাদ দেওয়ার দাবিও তুলেছেন বিধায়ক। একই অভিযোগ পাঠিয়েছেন সেন্সর বোর্ডেও। দাবি না মানলে সিনেমা হলে বিক্ষোভ দেখানো এবং ছবি দেখানো বন্ধ করে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছেন তিনি।

ট্রেলারের একটি দৃশ্যে শাহরুখের পোশাক নিয়ে আপত্তি তুলেছে শিখ সম্প্রদায়। এক সেকেন্ডেরও ভগ্নাংশ সময়ে একটি দৃশ্যে শাহরুখ শর্টস পরে দৌড়চ্ছেন। কিন্তু তার গায়ে রয়েছে শিখদের ধর্মীয় আচরণের প্রতীক ‘গাত্র কৃপাণ’। এতেই আপত্তি শিখদের। বিধায়ক মনজিন্দর দিল্লির শিখ গুরুদ্বার ম্যানেজমেন্ট কমিটির সাধারণ সম্পাদকও।

মনজিন্দরের বক্তব্য, ওই দৃশ্যটি শিখ সম্প্রদায়ের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছে। তাই ওই দৃশ্য ট্রেলার এবং ছবি থেকে বাদ দেওয়া হোক।

অভিযোগপত্রে মনজিন্দর লিখেছেন, ‘এই দৃশ্যটি নিয়ে সারা বিশ্বের শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যেই ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বহু শিখ সংগঠনের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। সবারই অভিযোগ, তাদের ধর্মাচরণের রীতিতে আঘাত করেছে ওই দৃশ্য।’ এর পরই পুলিশকে অভিযোগ লিপিবদ্ধ করার নির্দেশ দেন বিধায়ক।

শিখ ধর্ম অনুসারে ‘অমৃতধারী’ বা একমাত্র ধর্মপ্রাণ শিখরাই এই ‘কৃপাণ’ বা ‘ছুরি’ পরতে পারেন। বিধায়কের অভিযোগ, সিনেমায় সেরকম কিছু দেখানো হয়নি।  সেই কারণেই এই পদক্ষেপ। শাহরুখকে পাঠানো চিঠিতে তাই তিনি লিখেছেন, ওই দৃশ্য ছবি থেকে বাদ না দিলে রিলিজের পর হলে হলে শিখ সম্প্রদায়ের মানুষজন বিক্ষোভ দেখাবেন। ছবির প্রদর্শন বন্ধ করার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন বিজেপি বিধায়ক।


About us

DHAKA TODAY is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and 7 days in week. It focuses most on Dhaka (the capital of Bangladesh) but it reflects the views of the people of Bangladesh. DHAKA TODAY is committed to the people of Bangladesh; it also serves for millions of people around the world and meets their news thirst. DHAKA TODAY put its special focus to Bangladeshi Diaspora around the Globe.


CONTACT US

CALL US ANYTIME


Newsletter