চট্টগ্রাম Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

mamunii-5cb327b84eeb7.jpg

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায় এক প্রবাসীর স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার রাতে ফটিকছড়ির ভুজপুর থানার হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মামুনি ধর (২৪)। তিনি হারুয়ালছড়ি গ্রামের প্রবাসী রূপককান্তি দে’র স্ত্রী।

ভুজপুর খানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো আব্দুল্লাহ বলেন, শনিবার রাত দেড়টার দিকে দুই দুর্বৃত্ত ওই গ্রামের নরেন্দ্র কুমার দের বাড়িতে একতলা ভবনের সিঁড়ি ঘরের দেয়াল ভেঙে ঘরে ডুকে ঘুমন্ত গৃহবধূকে গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করে। তার চিৎকারে পাশের রুমে থাকা শ্বশুড় মিলন কান্তি দে এবং শাশুড়ি রত্মা দে এগিয়ে গেলে তাদের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে ওই গৃহবধূ মারা যায়। আহত মিলন কান্তিকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ne3.jpg

‘মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা, অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধরা’–এমন কল্যাণ প্রার্থনা দিয়েই শুরু আজ পহেলা বৈশাখ, বাঙালিদের দিন। বন্দরনগরী চট্টগ্রামের দিকে দিকে বৈশাখের জয়গান। উৎসবে মাতোয়ারা চট্টগ্রামবাসী।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালের নতুন সূর্যোদয়ের পরই চট্টগ্রাম নগরীতে শুরু হয়েছে বৈশাখের আবাহন। নগরীর ডিসি হিল, সিআরবির শিরীষতলা- এই দু’টি মূল ভেন্যু তো আছেই, নগরজুড়ে এমন কোনো সড়ক, জনপদ, অলিগলি নেই যেখানে বর্ষবরণের উন্মাদনার ছোঁয়া লাগেনি। বাজছে বৈশাখের গান, নতুন শাড়ি, নতুন পাঞ্জাবি জড়িয়ে অলি-গলিতে সরব পদচারণা উৎবসপ্রিয় বাঙালির।

সকালের দিকে ডিসি হিল-সিআরবিতে মানুষের আনাগোনা কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে রীতিমতো মানুষের ঢল নেমেছে। সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ডিসি হিলের প্রবেশপথে দর্শনার্থীদের সারি চেরাগি পাহাড়ের কাছাকাছি গিয়ে পৌঁছে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শিরীষতলায় প্রবেশে ইচ্ছুক দর্শনার্থীর সারিও ছিল মূল মঞ্চ থেকে অন্তত এক কিলোমিটার দূরে।

নানান বয়সী শিশু কিশোর, তরুণ তরুণী বৃদ্ধরাও নববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। পরস্পরের সঙ্গে নববর্ষেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তারা। সবার পরনে ছিল নতুন বছরের নতুন পোশাক।

নগরীর ডিসি হিলে এবার ৪১তম বর্ষবরণের আয়োজন করেছে সম্মিলিত পহেলা বৈশাখ উদযাপন পরিষদ। প্রতিবারের মতো এবারও তাদের স্লোগান ‘পহেলা বৈশাখ বাঙালির উৎসব, সবার যোগে জয়যুক্ত হোক’।

সকালে শ্রুতি-অঙ্গনের ভৈরবী রাগে ধ্রুপদ পরিবেশনের মধ্য দিয়ে ডিসি হিলে শুরু হয় বর্ষবরণের আয়োজন। এরপর থেকে চলছে বিভিন্ন সংগঠনের নাচ-গান ও আবৃত্তি পরিবেশনা। একক পরিবেশনাও চলছে মাঝে মাছে।

সম্মিলিত পহেলা বৈশাখ উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক আহমেদ ইকবাল হায়দার বলেন, ‘পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। আমাদের বড় পরিচয় আমরা বাঙালি। এই একটি উৎসবে আমরা ধর্ম নির্বিশেষে সব মানুষ একত্রিত হয়। কোনো বিধিনিষেধ দিয়ে বাঙালিকে তার এই প্রাণের আয়োজন থেকে দূরে সরিয়ে রাখা যাবে না।

নগরীর সিআরবির শিরীষতলায় ভায়োলিনিস্ট চিটাগং নামের একটি সংগঠনের বেহালা বাদনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বৈশাখ বরণের মূল আয়োজন। গানে-নাচে উৎসবমুখর পাহাড়ঘেরা নৈসর্গিক সিআরবি এলাকায় যেন মানুষের জোয়ার নেমেছে। রোদ্রের তীব্রতা ও গরম উপেক্ষা করে মানুষ ছুটছে প্রাণের উৎসবে।

সিআরবি’র আয়োজক সংগঠন নববর্ষ উদযাপন পরিষদের সংগঠক ডা.চন্দন দাশ বলেন, যুগে যুগে বাঙালি জাতির আবহমান উৎসবকে ধর্মের বিধিনিষেধ দিয়ে আটকানোর চেষ্টা হয়েছে। বাঙালি কখনোই রক্ষণশীলতা-পশ্চাৎপদতার কাছে পরাভব মানেনি। এবারও বর্ষবরণের আয়োজনে চট্টগ্রামে যে মানুষের ঢল নেমেছে, সেটা প্রমাণ করে যে বাঙালি তার জাতিসত্তার আবহমান ঐতিহ্যের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।

সিআরবিতে বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে ঐতিহ্যবাহী সাহাবুদ্দিনের বলীখেলা। সেই বলীখেলা দেখতে প্রতিবছর শত শত মানুষ ভিড় জমায়।

এদিকে, রোববার সকাল ১০টায় নগরীর সার্সন রোডে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে বের হয় বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা।

imperial.jpg

চট্টগ্রামে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ৩৭৫ শয্যা বিশিষ্ট আধুনিক এবং বহুমুখী বিশেষায়িত চিকিৎসা কেন্দ্র ‘ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল লিমিটেড’ আগামী এক মাসের মধ্যে কার্যক্রম শুরু করবে। সোমবার দুপুরে হাসপাতালে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের বোর্ড চেয়ারম্যান ও চিটাগাং আই ইনফারমারি এন্ড ট্রেনিং কমপ্লেক্স (সিইআইটিসি) ম্যানেজিং ট্রাস্ট্রি অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের বোর্ড মেম্বার ও সিইআইটিসি ট্রাস্ট্রি বোর্ডের চেয়ারম্যান এম এ মালেক, আমজাদুল ফেরদৌস চৌধুরী, পরিচালক সেলিম আহমেদ, হাসপাতালের এক্সিউটিভ ম্যানেজার রিয়াজ হোসেন, কমিশনিং কনসালটেন্ট  এড লি হ্যানসেন, ম্যানেজার (মার্কেটিং এন্ড পাবলিক রিলেশন) শেখ আবদুস সালাম প্রমুখ।

অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, ‘সাত একর জমিতে হাসপাতাল, নার্স, টেকনিশিয়ান প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং যাবতীয় আনুষাঙ্গিক সেবা সম্বলিত ৫টি ভবন নিয়ে মোট ৬ লাখ ৬০ হাজার বর্গফুট জায়গায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। হাসপাতালের প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক একটি বিখ্যাত স্থাপত্য সংস্থা এই হাসপাতালের মূল নকশা প্রণয়ন করে এবং একটি ইউরোপিয়ান কনস্যালটেন্ট গ্রুপ নকশানুযায়ী কাজ বাস্তবায়নে বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেমন- প্রকৌশল, তথ্য প্রযুক্তি এবং বায়োমেডিকেল বিষয়ে কারিগরি সহযোগিতা প্রদান করেছে। হাসপাতাল বাস্তবায়নে তিনটি বিষয়কে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে- সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ, রোগীদের নিরাপত্তা এবং কর্মীদের নিরাপত্তা। এখানে রয়েছে উন্নতমানের সার্বক্ষণিক ইমার্জেন্সি সেবা, কার্ডিয়াক, ট্রান্সপ্ল্যান্ট, নিউরো, অর্থোপেডিক ও গাইনি অবসসহ ১৪টি মডিউলার অপারেশান থিয়েটার, আছে ১৬টি নার্স স্টেশন ও ৬২টি কনস্যালটেন্ট রুম সম্বলিত বহির্বিভাগ এবং আধুনিক মানসম্পন্ন ৬৪টি ক্রিটিকাল কেয়ার বেড। নবজাতকদের জন্য ৪৪ শয্যাবিশিষ্ট নিওনেটাল ইউনিট এবং ৮টি পেডিয়াট্রিক আইসিইউ।’

বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, ‘ভারতের বিখ্যাত নারায়ণা হেলথ এবং ইমপেরিয়াল যৌথভাবে কার্ডিয়াক সেন্টার পরিচালনা করবে। ডাক্তার, নার্স ও টেকনিশিয়ানদের প্রশিক্ষণ প্রদান করবে। রোগী ও স্বজনদের জন্য হাসপাতাল পরিধির মধ্যে থাকার সুব্যবস্থা থাকবে। আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল রোগীদের জন্য ১০ শতাংশ শয্যা সংরক্ষিত আছে। পূর্ণাঙ্গ অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা এবং হাসপাতাল জৈব বর্জ্য নিষ্কাশনের জন্য সরকারি নীতিমালা অনুসরণ, পরিবেশ সংরক্ষণ, হসপিটালিটি বিভাগের মাধ্যমে যাবতীয় সেবা প্রদানের ব্যবস্থা, হাসপাতালের সমস্ত ডাক্তার, নার্স এবং সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘এ দেশে বিশেষ করে চট্টগ্রামে উন্নতমানের স্বাস্থ্য সেবার অপ্রতুলতার কারণে বহু সংখ্যক রোগী বিদেশে যেতে বাধ্য হচ্ছে। ফলে তাদেরকে আর্থিক, শারীরিক এবং মানসিক চাপের মুখে পড়তে হয়। এই অবস্থা থেকে কিছুটা পরিত্রাণের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ট্রাস্ট একটি আন্তর্জাতিক মানের জেনারেল হাসপাতাল স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করে। চট্টগ্রামের কিছু সমাজ সেবক এবং উদ্যোক্তা এই মহৎ উদ্যোগে সাড়া দিয়েছেন।’

ctg47.jpg

মহান স্বাধীনতা দিবসকে সামনে রেখে বন্দর নগরী চট্টগ্রামেও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় চলছে পুলিশের তল্লাশি।

রোববার (২৪ মার্চ) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান নিরাপত্তা জোরদারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নগরীর সব থানা এবং সিএমপি’র বিভিন্ন ইউনিট নির্দেশনা পেয়ে তাৎক্ষণিক মাঠে নেমেছে।

সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান বলেন, ২৬ মার্চ সামনে রেখে বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আজ (রোববার) সন্ধ্যায় পুলিশ সদর দফতরের নির্দেশনা পেয়েছি। এরপর প্রতিটি থানা এলাকায় তল্লাশি জোরদারের নির্দেশ দিয়েছি। বিশেষ করে আবাসিক হোটেল এবং রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোর সামনে বিশেষ নজরদারির কথা বলা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যার পর থেকে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড় ও পয়েন্টে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। বিভিন্ন যানবাহনের পাশাপাশি সন্দেহভাজন পথচারী দেখলেও তল্লাশি করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট থানা ছাড়াও নগর গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা এই কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, আমার থানা এলাকার মধ্যে অনেকগুলো আবাসিক হোটেল আছে। মার্কেট, বিপণীবিতান আছে। সব জায়গায় তল্লাশির পাশাপাশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সদীপ কুমার দাশ বলেন, দেওয়ান হাট ও বাদামতলী মোড়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। মোটরসাইকেল আরোহীদের যাচাইবাছাই করা হচ্ছে। এছাড়া কাউকে দেখে সন্দেহ হলে তল্লাশি করা হচ্ছে। তবে কেউ যাতে হয়রানির শিকার না হন, সেটি আমরা দেখছি।

পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উৎপল বড়ুয়া বলেন, আমার থানা এলাকার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা হচ্ছে বিমানবন্দর। সন্ধ্যা থেকে বিমানবন্দরের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিমানবন্দরের সামনে এবং কাটগড়ে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। বিমানবন্দরে আসা-যাওয়া করা যাত্রীদের নিরাপত্তায় আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি।

এর আগে, রোববার বিকেল থেকে ঢাকার বিভিন্ন কূটনৈতিক পাড়ায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। রাজধানীর গুলশান ক্লাব ও বনানী এলাকা দিয়ে গুলশানে ঢোকার সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন, চারদিকে অতিরিক্ত তল্লাশি চৌকি বসানো হয়েছে। এছাড়াও গুলশান ক্লাবের সামনে চেক পোস্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

customs4.jpg

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদকে) দায়ের করা মামলায় চট্টগ্রাম কাস্টমসের কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন হাজারি ও তার স্ত্রী হালিমা বেগম লিপিকে কারাগারে পাঠিয়েছে চট্টগ্রামের একটি আদালত।

মঙ্গলবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সিনিয়র স্পেশাল জজ আকবর হোসেন মৃধার আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে জানান দুদকের পিপি মাহমুদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, এর আগে মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে আমজাদ হাজারী ও হালিমা লিপি জামিনের আবেদন করলে আদালত তা না মঞ্জুর করেন। গত ৩ জানুয়ারি ৩ কোটি ২ লাখ ৩২ হাজার ৪৮১ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডবলমুরিং থানায় আমজাদ হোসেন হাজারী ও তার স্ত্রী হালিমা বেগম লিপির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শামসুল আলম।

তবে গত ১৪ জানুয়ারি এ মামলায় হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন বলে জানান মাহমুদুল ইসলাম।

yaba-detention-20190121112420.jpg

চট্টগ্রাম নগরীতে একটি পণ্যবাহী ট্রাক তল্লাশি করে ১৮ হাজার ২২৫ পিস ইয়াবাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব সদস্যরা। সোমবার (২১ জানুয়ারি) ভোরে বন্দর থানার নিমতলী বিশ্বরোড এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. মোজাম্মেল (৩০), মো. আব্দুর রহিম (৪০) এবং নুর ইসলাম (২৮)।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মিমতানুর রহমান বলেন, ‘টেকনাফ থেকে আসা একটি ট্রাক থামিয়ে তল্লাশি করে ইয়াবাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসব ইয়াবা নিয়ে তারা ঢাকায় যাচ্ছিল।’ তিনি আরও জানান, ‘প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে আটক হওয়া তিনজনের সবাই মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে মাদক বহন ও পাচার সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করা হবে।’

higtt.jpg

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, বহদ্দারহাট ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে হাইটেক পার্ক নির্মিত হলে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি আইসিটি বিশ্বে বাংলাদেশের আয় বাড়ার সুযোগ তৈরি হবে উল্লেখ্য করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, এ লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে।

তিনি শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে চান্দগাঁও বিসিক শিল্প এলাকায় হাইটেক পার্ক নির্মাণের জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রস্তাবিত জমি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

এর আগে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস থেকে মন্ত্রীকে নিয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চান্দগাঁও বিসিক শিল্প এলাকা এফআইডিসি রোড সংলগ্ন চসিকের নিজস্ব জমি পরিদর্শনে যান।

এ সময় মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘হাইটেক পার্কের জন্য চসিকের নিজস্ব জমি পার্ক কর্তৃপক্ষকে দেয়া হচ্ছে। এছাড়া আগ্রাবাদে চসিকের নিজস্ব একটি মার্কেট ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ করা হচ্ছে, যেখানে ষষ্ঠ থেকে দশম তলা পর্যন্ত ফ্লোরে হাইটেক পার্ক নির্মাণ করবে কর্তৃপক্ষ।’

উল্লেখ্য বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামে একটি ‘আইটি ভিলেজ’ নির্মাণ কাজ চলমান থাকলেও এখানে নেই কোন হাইটেক পার্ক। গত বছরের জুলাই মাসে নগরীতে একটি অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামে তিনটি হাইটেক পার্ক নির্মাণ করার কথা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ হাইটেক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হোসনে আরা বেগম।

জানা গেছে, চট্টগ্রামে ৩টিসহ সারাদেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক স্থাপনের উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে গাজীপুর, যশোর, ঢাকার কাওরান বাজারে হাইটেক পার্ক নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে।

dur.jpg

চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার মোড়ে বুধবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে কাভার্ড ভ্যান চাপায় এক তরুণী প্রাণ হারিয়েছেন। নিহত তরুণীর নাম মিতু বড়ুয়া। তিনি সিটি কলেজের প্রথমবর্ষের ছাত্রী ।

কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সজল দাশ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

wasa-ctg.jpg

চট্টগ্রাম নগরীতে আবাসিক-অনাবাসিক ভবন তৈরির আগে ওয়াসার ছাড়পত্র নেওয়া বাধ্যতামূলক করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি। নির্দিষ্ট ফি পরিশোধের মাধ্যমে ওয়াসার কাছ থেকে ছাড়পত্র নেওয়ার পর ভবন তৈরি করা যাবে। অন্যথায় এসব ভবনে ওয়াসা পানির সংযোগ দেবে না।

পানি সরবরাহ ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা আনতে এই উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ কে এম ফজলুল্লাহ। তবে নগর পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, ছাড়পত্র নেওয়া বাধ্যতামূলক করা সঠিক হলেও এতে নগরবাসী ভোগান্তিতে পড়বে এবং ঘুষ-দুর্নীতির আরেকটি ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে।

মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম ওয়াসার ৫০ তম বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ছাড়পত্র নেওয়ার বিধান বাধ্যতামূলক করার পাশাপাশি চট্টগ্রাম ওয়াসা আবাসিক-অনাবাসিক খাতে পানির দামও ৫ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্তও নিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মার্চ থেকে ছাড়পত্র দেওয়ার এই কার্যক্রম চালুর চিন্তাভাবনা করছে ওয়াসা। তার আগে ফি নির্ধারণ করা হবে। আগামী বোর্ড সভায় ফি চূড়ান্ত করা হবে। এরপর ওয়াসা গণবিজ্ঞপ্তি জারি করবে।

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম ফজলুল্লাহ বলেন, ‘ঢাকায় ভবন নির্মাণ করতে হলে ওয়াসার ছাড়পত্র নেওয়া বাধ্যতামূলক। চট্টগ্রাম নগরীতেও আমরা এটা চালু করছি। কারণ শুধু ভবন বানালেই তো হবে না, সেখানে পানি সরবরাহ করা যাবে কি-না, সংযোগ লাইন নেওয়ার বিধান আছে কি-না, এসবও তো দেখতে হবে। আমরা ঢাকা ওয়াসার বিধান যাচাই-বাছাই করছি। তেবে আমাদের নীতিগত সিদ্ধান্ত আছে, ওয়াসার ছাড়পত্র না নিলে আমরা পানির সংযোগ দেব না।’

চট্টগ্রাম ওয়াসার বোর্ড সদস্য (বিএফইউজে’র যুগ্ম মহাসচিব) মহসীন কাজী বলেন, ‘বিলের মধ্যে ৪০ তলা বিল্ডিং একটা বানিয়ে রাখলেই তো হবে না, সেই বিল্ডিংয়ে পানির লাইন কীভাবে নেওয়া যাবে কিংবা আদৌ নেওয়া যাবে কি-না সেটা তো ওয়াসাকেই ভাবতে হবে। সুতরাং যদি ছাড়পত্র নিতে হয়, সেক্ষেত্রে ওয়াসা আগে যাচাইবাছাই করে নিতে পারবে যে, আদৌ সেখানে পানির লাইন দেওয়া সম্ভব কি-না। বহুতল ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে ছাড়পত্র নেওয়ার বিধান এখনও আছে। নতুন করে আবাসিক-অনাবাসিক সব ভবনের জন্য এটা বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে সকল বোর্ড সদস্য একমত হয়েছেন।’

জানতে চাইলে ‘পরিকল্পিত চট্টগ্রাম ফোরাম’ এর মহাসচিব স্থপতি জেরিনা হোসাইন বলেন, ‘ওয়াসার ছাড়পত্র নেওয়া বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত ইতিবাচক। কিন্তু অন্যান্য দেশে ভবন নির্মাণকারীর জন্য সমন্বিত কর্তৃপক্ষ আছে। আমাদের দেশে সেটা নেই। এখন একজন ভবন নির্মাণকারীকে যদি ছাড়পত্রের জন্য একবার সিডিএ, একবার ওয়াসা, একবার পরিবেশ অধিদপ্তরে যেতে হয়, তাহলে ভোগান্তির মাত্রাটা যে কি হবে, কল্পনাও করা যায় না। এছাড়া ভোগান্তির পাশাপাশি স্পিডমানির নামে ঘুষ লেনদেনেরও একটা সুযোগ থেকে যাচ্ছে।’

সমন্বিত কর্তৃপক্ষ ছাড়া প্রত্যেক সংস্থার কাছ থেকে আলাদা আলাদা ছাড়পত্র নেওয়ার বিধান কেবল হয়রানিই বাড়াবে, এমনটাই মনে করছে এই নগর পরিকল্পনাবিদ।

এদিকে ফেব্রুয়ারি থেকে পানির বাড়তি দাম কার্যকর করার কথা জানিয়েছে ওয়াসা। আর্থিক ক্ষতি কমানো ও বিভিন্ন প্রকল্পের বৈদেশিক ঋণ শোধের জন্য পানির দাম বাড়ানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওয়াসা কর্মকর্তারা।

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক একেএম ফজলুল্লাহ জানান, পানির বিল আবাসিক ও অনাবাসিক খাতে প্রতি ইউনিট ৫ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগে ছিল প্রতি ইউনিটপানির বিল ৯ টাকা ৪৫ পয়সা। এখন প্রতি ইউনিট পানির বিল পড়বে ৯ টাকা ৯২ পয়সা।

এদিকে পানির দাম বাড়ানোর এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)।

বিবৃতিতে ক্যাব নেতারা বলেছেন, ওয়াসার সরবরহ করা পানির ৮৮ শতাংশ গ্রাহক হচ্ছেন আবাসিক গ্রাহক। আর ওয়াসা দিনে চাহিদার মাত্র ৪২ শতাংশ পানি সরবরাহ করতে পারে। এ জন্য নগরীর অধিকাংশএলাকায় পানির জন্য এখনও হাহাকার। আর চট্টগ্রাম ওয়াসা পানির প্রাপ্যতা নিশ্চিত না করে নতুন নতুন প্রকল্পের কথা বলে নগরবাসীকে বারবার বিভ্রান্ত করছে এবং দাম বাড়ানোর কথা বলে প্রকারান্তরে ওয়াসার অভ্যন্তরে পানি চুরি, অপচয় ও মিটার রিডারদের কারসাজিকে উসকে দিচ্ছে। নগরীর অধিকাংশ এলাকায় যেখানে পানির জন্য হাহাকার, সেখানে চট্টগ্রাম ওয়াসা নগরবাসীর পানির সমস্যা সমাধান নাকরে নতুন করে পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

বিবৃতি দিয়েছেন ক্যাব কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, মহানগরের সভাপতি জেসসিন সুলতানা পারু ও সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা কমিটির সভাপতি আবদুল মান্নান।

murdwr.jpg

চট্টগ্রামে বস্তাবন্দি অবস্থায় এক অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানাধীন মোল্লাপাড়া এলাকার ইউসুফ মিয়ার বাড়িসংলগ্ন পরিত্যক্ত ডাস্টবিনের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

পরে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই নারীর লাশ শনাক্ত করতে কেউ আসেনি। ওই নারীর লাশ চমেক হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

ওই নারীর পরনে ছিল সালোয়ার কামিজ। তবে নিহতের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ডবলমুরিং থানার ওসি একেএম মহিউদ্দিন সেলিম বলেন, ‘ওই তরুণীকে হত্যা করেই বস্তায় ভরে লাশ রাস্তায় ফেলে দেয়া হয়েছে। উদ্ধারের ১০-১২ ঘণ্টা আগে ওই নারীকে হত্যা করা হয়েছে বলে আলামত দেখে ধারণা করছেন তারা।

এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও নিহত নারীর পরিচয় উদঘাটনের চেষ্টা চলছে বলে তিনি জানান।