জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির অনলাইন প্রাথমিক আবেদন আগামী বুধবার (২৮ জুলাই) বিকাল ৪টা থেকে শুরু হবে। এই কার্যক্রম চলবে ১৪ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত। প্রথম বর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস শুরু হবে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে।

রোববার (২৫ জুলাই) সকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. ফয়জুল করিম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগ্রহী প্রার্থীকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। প্রাথমিক আবেদন ফি কলেজ কর্তৃক নির্ধারিত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ১৬ আগস্টের মধ্যে জমা দিতে হবে। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইটে (www.nu.ac.bd/admissions)।

এর আগে গত ১২ জুলাই ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কমিটির সভায় ওই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মো. মশিউর রহমান। সভায় করোনাকালীন সেশনজট কমিয়ে আনার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন উপাচার্য। তিনি শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত বিশেষ একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়নের ব্যাপারেও নির্দেশনা প্রদান করেন। এ সময় সংশ্লিষ্ট সবাইকে কোভিড-১৯ মহামারি সম্পর্কিত সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ ভর্তি কার্যক্রম অনলাইনে সম্পন্ন করার জন্য বলা হয়েছে।

national33.jpg

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সব কলেজের শিক্ষার্থীর কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ সংক্রান্ত তথ্য পাঠাতে জরুরি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার (০৯ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বিষয়টি জাতীয় জনগুরুত্বপূর্ণ ও জনস্বাস্থ্য সম্পর্কিত জরুরি বিচেনায় অধিভুক্ত কলেজের সম্মানিত অধ্যক্ষকে নিজ নিজ কলেজের শিক্ষার্থীদের তথ্য ছক পুরণ নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

নির্দেশনায় তথ্য সংগ্রহের জন্য বর্ণিত লিংক http://103.113.200.29/student_covidinfo/

-এ প্রদত্ত ফর্ম পূরণ করে আগামী ১২ জুলাইয়ের মধ্যে submit করার জন্য বলা হয়েছে।

গত ১৭ মের অফিস আদেশ মোতাবেক জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সব কলেজ/শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক/গবেষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ সংক্রান্ত তথ্যাবলী www.nubd.info/college এ login করে College Profile-এ জরুরি ভিত্তিতে অনলাইনে পাঠানোর জন্য বিশ্বদ্যিালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়।

এখন পর্যন্ত যেসব কলেজ যথাযথ তথ্য College Profile-এ subrit করেনি তাদেরকে অবিলম্বে submit করার জন্য বলা হয়েছে।

NU8.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের ৩ লাখ ১৬ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থীকে অটোপাস দেওয়া হয়েছে। বুধবার (১৬ জুন) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের শর্তসাপেক্ষে ২য় বর্ষে প্রমােশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। যেসব শিক্ষার্থী ২০২০ সালে অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ফরম পূরণ করেছেন তাদেরকে শর্তসাপেক্ষে ২য় বর্ষে প্রমােশন দিয়ে ক্লাস করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

২০২০ সালে অনার্স ১ম বর্ষ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ফরম পূরণ করেছেন সর্বমােট ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৮৩৫ জন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে নিয়মিত শিক্ষার্থী সংখ্যা ২ লাখ ৯৭ হাজার ৬২৬ জন, অনিয়মিত শিক্ষার্থী সংখ্যা ১৯ হাজার ৫০ জন। আর মানােন্নয়ন পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ লাখ ৫১ হাজার ১৫৯ জন। এসব শিক্ষার্থীর মধ্যে ২য় বর্ষে প্রমােশন পাবেন ৩ লাখ ১৬ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষার্থী। ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হয়েছিল ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৮৭৬ জন শিক্ষার্থী।

প্রমােশন পাওয়ার শর্তগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান শর্ত হচ্ছে- পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এসব শিক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই ১ম বর্ষের লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। কেউ যদি এই পরীক্ষায় অংশ না নেয় বা পরীক্ষায় অংশ নিয়ে রেগুলেশন অনুযায়ী ‘নট প্রমােটে’ হয় সেক্ষেত্রে তার শর্তসাপেক্ষে দেওয়া প্রমােশন বাতিল বলে গণ্য হবে। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট nu.ac.bd এ পাওয়া যাবে।

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের অটোপাস দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যারয় কর্তৃপক্ষ। তবে এক্ষেত্রে কিছু শর্ত আরোপ করা হয়েছে। আর স্নাতক দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের অটোপাসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত না হলেও মৌখিক অথবা অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তী বর্ষে উত্তীর্ণ করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, প্রায় তিন বছর আগে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীরা এখনও অনার্স প্রথমবর্ষেই রয়েছেন। এই অবস্থায় তাদের শর্তসাপেক্ষে দ্বিতীয়বর্ষে উত্তীর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে ওই শিক্ষার্থীকে অনার্স শেষ করার আগে প্রথমবর্ষের বিষয়গুলোর পরীক্ষায় পাস করতে হবে। আর দ্বিতীয় ও তৃতীয়বর্ষের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পরীক্ষা বা ভাইভার মাধ্যমে পরবর্তী বর্ষে উত্তীর্ণ করার চিন্তাভাবনা চলছে। এ বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মশিউর রহমান বলেন, আমরা শর্তসাপেক্ষে প্রথমবর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের অটোপাস দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আমরা সশরীরে পরীক্ষা নেব। তখন অটোপাস পাওয়া শিক্ষার্থীদের সেসব পরীক্ষায় পাস করতে হবে।

তিনি বলেন, দ্বিতীয় ও তৃতীয়বর্ষের শিক্ষার্থীদের বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। তবে আমরা কয়েকটি বিকল্প পদ্ধতির কথা ভাবছি। এর মধ্যে একটি হলো- মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে প্রমোশন দেয়া। আরেকটি হলো- অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করা। তবে বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি। চলতি (২০২০-২১) শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে অধ্যাপক মশিউর রহমান বলেন, করোনার কারণে আমরা স্নাতক প্রথমবর্ষের ভর্তি প্রক্রিয়া বন্ধ রেখেছি। ভর্তি প্রক্রিয়া অনলাইনে করা হলেও ভর্তি ফি’র টাকা কলেজে গিয়ে জমা দিতে হয়। ফলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ঝুঁকির মধ্যে পড়ার একটা সম্ভাবনা দেখা দেয়। আমরা তাদের কোনো প্রকার ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে চাই না।

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষ ও স্নাতক প্রফেশনাল কোর্সের অনলাইন ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম স্থগিত থাকবে।

সোমবার (০৭ জুন) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ ভর্তি কমিটির সভার এ সিদ্ধান্ত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান

এতে বলা হয়, কোভিড-১৯ মহামারির বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে পূর্বঘোষিত ৮ জুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ও ২৩ জুন ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল শ্রেণির অনলাইন ভর্তি কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এতে আরও বলা হয়, ভর্তি সম্পর্কিত সব কার্যক্রম ও নির্দেশনা পরবর্তীতে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আগামী ২৪ মে থেকে অনুষ্ঠেয় সব লিখিত পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুর ২টায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই দফতরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. ফয়জুল করিম জানান, কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। সব লিখিত পরীক্ষার সংশোধিত সময়সূচি পরে সবাইকে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, ২৪ মে থেকে অনুষ্ঠেয় অনার্স চতুর্থ বর্ষের মৌখিক পরীক্ষা অন-লাইনে জুম অ্যাপের (ZOOM APP) মাধ্যমে পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

national33.jpg

অনার্স ৪র্থ বর্ষের ভাইভা (মৌখিক পরীক্ষা) অনলাইন প্লাটফর্মে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। আগামী ২৪ মে থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত জুম সফটওয়্যার ব্যবহার করে এসব পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। রোববার (৯ মে) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বদিউজ্জামান স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ৪র্থ বর্ষের মৌখিক পরীক্ষা (বিএ, বিএসএস ও বিবিএ) করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ পরীক্ষা ২৪ মে থেকে ২৪ জুন তারিখের মধ্যে সম্পন্ন করার জন্য বলা হয়েছে। একই সঙ্গে বিজ্ঞপ্তিতে অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষা আয়োজনের বিস্তারিত প্রক্রিয়া তুলে ধরা হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট কলেজ কেন্দ্রগুলোকে বিষয়ভিত্তিক পরীক্ষার্থীর তথ্য ও বিবরণী অনলাইনে পাঠানো হবে। বিশ্ববিদ্যালয় দুই জন বহিঃপরীক্ষক নির্ধারণ করে কেন্দ্রের অধ্যক্ষ বা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানাতে হবে। পরীক্ষা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কলেজের অধ্যক্ষ বা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুইজন অন্তঃপরীক্ষক নির্বাচন করবেন। তারা জুম অ্যাপের মাধ্যমে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ এবং স্ক্রিনশট নিয়ে পরীক্ষার্থীর হাজিরা গ্রহণ করবেন।

কলেজ কর্তৃপক্ষ বহিঃপরীক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয় নির্ধারণ করে পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা করবেন। পরীক্ষার তারিখ ও সময় পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র ও রেজিস্ট্রেশন কার্ডসহ নির্ধারিত সময়ে জুম অ্যাপের লিংকে উপস্থিত জন্য সংশ্লিষ্ট কলেজ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ বা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করার ব্যবস্থা নেবেন।

অনলাইনে পাঠানো পরীক্ষার্থীদের বিবরণী ডাউনলোড করে প্রিন্ট কপি দায়িত্বপ্রাপ্ত বহিঃপরীক্ষকদের পরীক্ষা শুরুর আগেই পাঠানোর ব্যবস্থা নেবেন। পরীক্ষা নেওয়ার জন্য জুম অ্যাপের লিংক বহিঃপরীক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের পাঠাতে হবে।

পূর্ব নির্ধারিত তারিখ ও সময়ে অন্তঃপরীক্ষক ও বহিঃপরীক্ষক জুম অ্যাপে যুক্ত হবেন। পাঠানো ডাটার ক্রমানুসারে একজন পরীক্ষার্থীকে সংযুক্ত করে পরীক্ষা শুরু করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণের সময় শিক্ষার্থীদের অবশ্যই ভিডিও খোলা থাকতে হবে। বাকি পরীক্ষার্থীরা ওয়েটিং রুমে থাকবে।

একজন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়া শেষে অন্তঃপরীক্ষক ও বহিঃপরীক্ষকরা আলোচনা করে প্রাপ্ত নম্বর নির্ধারণ করবেন। এসময়ে পরীক্ষার্থীকে অনলাইনে রাখা যাবে না। নির্ধারিত নম্বর অন্তঃপরীক্ষক ও বহিঃপরীক্ষক নিজ নিজ বিবরণীতে লিখবেন।

এরপর পরবর্তী পরীক্ষার্থীকে ওয়েটিং রুম থেকে অনলাইনে এনে তার পরীক্ষা শুরু করতে হবে। এভাবে ক্রমানুযায়ী পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার্থী অনলাইনে যুক্ত হওয়ার পর তার নাম, রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর ও শিক্ষাবর্ষ পাঠানোর ডাটার সঙ্গে মিলিয়ে নিয়ে পরীক্ষা শুরু করতে হবে। পরীক্ষা গ্রহণ শেষে আগের নিয়মে কলেজ কেন্দ্র অনলাইনে প্রাপ্ত নম্বর এন্ট্রি করবে।

তবে এর আগে অনলাইন প্লাটফর্মে পরীক্ষা নেওয়ার আগে অবশ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার জন্য একটি গাইডলাইন এবং বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে এ সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কমিটি। এগুলো মেনে পরীক্ষা নিবে বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তা করেছে কি না সে বিষয়ে জানানো হয়নি।

NU8.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে সম্মান ১ম বর্ষের ভর্তির অনলাইন আবেদন ফরম বিতরণ শুরু হবে আগামী ৮ জুন থেকে। এ ভর্তি কার্যক্রম চলবে ২২ জুন পর্যন্ত। শুক্রবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, ভর্তি সম্পন্ন হয়ে ২৮ জুলাই থেকে প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে। সভায় করোনাকালীন সময়ের ১০ মাসের সেশনজট কমিয়ে আনার বিষয়ে দ্রুত বিশেষ একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়নের ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ ছাড়া ১ম বর্ষ প্রফেশনাল কোর্সের অনলাইন আবেদন ফরম বিতরণ ২৩ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত চলবে। প্রফেশনাল কোর্সের ক্লাস শুরু হবে ১২ আগস্ট থেকে। ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.nu.ac.bd/admissions)।

Dipu74.jpg

পরীক্ষা পেছালেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সেশনজটে পড়বে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এমনকি যাদের বয়স বেড়ে যাবে তাদেরও কোনো সমস্যা হবে না বলে আশ্বস্ত করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় একটি অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার কারণে হলগুলোর সংস্কারকাজ এবং শিক্ষার্থীর সুরক্ষার কথা চিন্তা করে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার জন্য সময় নেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরা জাতির বৃহৎ স্বার্থের বিষয়টি বুঝবে। তাদের পরীক্ষা তিন মাস পর নিলেও তারা কোনো সেশনজটে পড়বে না। এমনকি বয়সজনিত বিষয়েও কোনো ধরনের সমস্যায় পড়বে না।

এ সময় শিক্ষার্থীদের সরকারের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী। শিক্ষার্থীরা আর আন্দোলন করবেন না বলেও প্রত্যাশার কথা জানান দীপু মনি।

বিভিন্ন আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করতে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এদিকে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে পরীক্ষা নেয়া এবং আটক শিক্ষার্থীদের মুক্তি দিতে তিন দিনের আলটিমেটাম দিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন স্থগিত করে তারা জানিয়েছেন, আগামী রোববারের মধ্যে দাবি আদায় না হলে তারা আবার আন্দোলনে নামবেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর শাহবাগে বিক্ষোভে নামেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন সরকারি কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা। এ সময় ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ। বেলা ২টার দিকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিতের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার পর বেশ কিছু শিক্ষার্থী শাহবাগ মোড়ে এসে অবস্থান নেন। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত শিক্ষার্থীরা তাদের পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে গত বুধবার শাহবাগ, নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন। একপর্যায়ে স্থগিত পরীক্ষা নেয়ার কথা বলা হলে সড়ক ছেড়ে চলে যান তারা। পরে রাতেই সাত কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষে ভর্তির কার্যক্রম আগামী ৮ জুন থেকে শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৯ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স ২য় বর্ষ স্থগিত পরীক্ষা এবং ২০১৮ সালের মাস্টার্স শেষ পর্বের পরীক্ষাসহ অন্যান্য সকল প্রফেশনাল কোর্সের স্থগিত পরীক্ষা ২৪ মে থেকে শুরু হবে।

এছাড়া ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষে ভর্তির কার্যক্রম আগামী ৮ জুন থেকে শুরু হবে।