জয়া Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

joya-ahsan-bg-20180429070029.jpg

কলকাতার নামি অভিনেতা ও পরিচালক অরিন্দম শীল। তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘আবর্ত’-এ অভিনয় করেছিলেন বাংলাদেশের জয়া আহসান। এটা জয়ারও কলকাতায় প্রথম ছবি ছিল। ওই ছবিতে অভিনয় দিয়ে অরিন্দমের মন ভরিয়েছিলেন বাংলাদেশি নায়িকা। সেই থেকে অরিন্দমের গুডবুকে জয়ার নাম। যার কারণে তার নির্মিতব্য ‘দারোগার দপ্তর’ ওয়েব সিরিজে ত্রৈলোক্যর মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অরিন্দম জয়াকেই বেছে নিয়েছেন।

এই ওয়েব সিরিজটি নির্মিত হবে প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের ‘দারোগার দপ্তর’ সিরিজের গল্প অবলম্বনে। এখানে জয়াকে দেখা যাবে একজন সিরিয়াল কিলারের ভূমিকায়। তাকে ঘিরেই ওয়েব সিরিজটির কাহিনি এগিয়ে যাবে। সেখানে ত্রৈলোক্য জয়ার প্রেমিক ও সঙ্গী চরিত্রে আছেন কালী বাবু। তিনি প্রতারক। সবাইকে ধোঁকা দিয়ে বেড়ান। অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার ক্ষমতাও আছে তার। তাকে চোখে দেখা যায় না।

ত্রৈলোক্য ও কালী বাবুর পেছনে আছেন গোয়েন্দা প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়। ত্রৈলোক্য ও কালী বাবুকে খুঁজে বের করার জন্য তার আবির্ভাব। পরিচালক অরিন্দম জানান, বাংলা ও হিন্দি ভাষায় নির্মিত হবে ‘দারোগার দপ্তর’ ওয়েব সিরিজটি। তিনি বলেন, ‘বাংলায় এত ডিটেলে পিরিয়ড পিস ছবি এর আগে হয়নি। আমরা বড় ক্যানভাসে কাজ করব। সিরিয়াল কিলার ত্রৈলোক্যর সামাজিক অবস্থান, হত্যালীলা, আত্মগোপন এবং কলকাতা থেকে বেনারস পর্যন্ত যাত্রা, সবই থাকবে এই সিরিজে।’

অরিন্দম আরও বলেন, ‘প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের ‘দারোগার দপ্তর’ বইয়ে প্রথম ত্রৈলোক্য তারিণীর রেফারেন্স পাই। তারপর তার চরিত্রটি নিয়ে জানার চেষ্টা করি। যত জেনেছি, ততই অবাক হয়েছি। ১৮০০ শতকের মাঝামাঝি এই নারী সিরিয়াল কিলারের বর্ণময় ও রহস্যময় জীবন আমাকে হতবাক করেছে। দীর্ঘদিন ধরে তাকে নিয়ে গবেষণা করেছি। এবার তাকে পর্দায় তুলে ধরতে যাচ্ছি। এমন শক্তিশালী চরিত্রে জয়া ছাড়া আর কারও নামই মাথায় আসেনি।’

jaya-large-20190414131537.jpg

বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছোট পর্দা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও বর্তমানে চলচ্চিত্রকে ঘিরেই তার দিনযপান। বাংলাদেশের পাশাপাশি তিনি অভিনয়ের সুবাস ছড়িয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের সিনেমাতেও।

দুই বাংলায় জনপ্রিয় মুখ এখন জয়া। তার অভিনয়, ব্যক্তিত্ব, সৌন্দর্যবোধ মুগ্ধ করে রেখেছে নতুন প্রজন্মকে।

ঢাকাই সিনেমার ক্রান্তিলগ্নে তিনি প্রযোজক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেছেন। নির্মাণ করেছেন আলোচিত চলচ্চিত্র ‘দেবী’। সম্প্রতি আরও বেশ কিছু ছবি নিয়ে তিনি ব্যস্ত রয়েছেন। সেখানে আছে তার নিজস্ব প্রযোজনার ‘ফুড়ুৎ’ ছবিটিও।

আজ পহেলা বৈশাখে (১৪ এপ্রিল) নিজের ভক্ত-অনুরাগীদের নতুন বাঙলা বছরের শুভেচ্ছা জানালেন এই অভিনেত্রী। বৈশাখী সাজে রঙিন জয়া এক ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘শুভ নববর্ষ। সবাইকে বাংলা নতুন বছর ১৪২৬ এর শুভেচ্ছা।

সবাই অনেক ভালো থাকুক, আনন্দে থাকুক। সমস্ত অশুভ শক্তি আমাদের জীবন থেকে চলে যাক। দূর হয়ে যাক সমস্ত গ্লানি। সত্যিকার অর্থে আমাদের সবার মন হয়ে উঠুক আরও সুন্দর। সবাই অনেক অনেক ভালো থাকি।’

joya-20190401171758.jpg

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। সিনেমায় ব্যস্ততা বাড়ার পর ছোট পর্দা থেকে ছুটিই নিয়েছেন বলা চলে। বিজ্ঞাপনেও দেখা নেই তার অনেক দিন। হঠাৎ করে বিশেষ উপলক্ষে র‍্যাম্পে দেখা দেন।

তেমনি করে সম্প্রতি পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে একটি ফ্যাশন প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে র‍্যাম্পে হাঁটলেন জয়া। সেখানে বৈশাখের সাজে ধরা দিলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

দেশীয় ফ্যাশন হাউজ প্রেমস কালেকশনস সম্প্রতি গুলশানে একটি ফ্যাশন শো’র আয়োজন করে। সেখানে দেশের শীর্ষস্থানীয় মডেলদের মাধ্যমে ফ্যাশন হাউজটি তুলে ধরে তাদের বৈশাখী কালেকশন।

আর এতে শাড়ি পড়ে হাজির হন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী অভিনেত্রী জয়া। সেখানে তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্যও দেন উপস্থিত অতিথি ও ভক্তদের উদ্দেশ্যে। অগ্রিম শুভেচ্ছা জানান বাংলা নববর্ষের।

অনুষ্ঠানে প্রেমস কালেকশনের ডিরেক্টর এবং প্রধান ডিজাইনার প্রেম বম্বানি বলেন, ‘জয়া আহসান আমাদের গর্ব। অভিনয় গুণে তিনি বাংলাদেশকে মর্যাদার সঙ্গে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরছেন। আমাদের বৈশাখী যাত্রায় তাকে পেয়ে আমরা আনন্দিত।’

অনুষ্ঠানে তিনি নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে বৈশাখ উপলক্ষে ১ থেকে ১৪ এপ্রিল সর্বোচ্চ ৫০% ছাড়ের ঘোষণাও দেন।

এদিকে গত বছর ‘দেবী’ চলচ্চিত্র দিয়ে প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা জয়া প্রস্তুতি নিচ্ছেন নতুন ছবির। সে ছবির নাম ‘ফুড়ুৎ’। শিগগিরই এই ছবির বিস্তারিত ঘোষণা করবেন তিনি।

joya3.jpg

ভারতের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জয়া আহসানকে বক্স অফিসের রাণী হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। তাদের বিনোদন ও লাইফস্টাইল ভিত্তিক ম্যাগাজিন ‘ইনডালজ’-এ জয়া আহসানকে নিয়ে দীর্ঘ একটি ফিচার প্রকাশ করেছে। সেখানেই জয়াকে বলা হয়েছে- ‘দ্য বক্স অফিস কুইন’।

এবার নিজের ছবি ইনস্টাতে পোস্ট করে ট্রোলড হলেন জয়া আহসান। খোলা মেলা পোশাকে তিনি একটি ছবি পোস্ট করেন। আর সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়ে যায় কমেন্টসের বন্যা।

এই ছবি পোস্টের পর নেটিজেনরা বলতে শুরু করেন, যে জয়াকে আমরা চিনতাম সে আপনি নন। নিজের এই রকম ছবি কেন পোস্ট করেন? আপনি ভাল অভিনেত্রী, কাজটা মন দিয়ে করুন না। কী দরকার এই ধরণের ছবি পোস্ট করার? তবে জয়া এই পোস্টের কোনও উত্তর করেননি। পরে অবশ্য পোস্টগুলি সরিয়ে ফেলেন তিনি।

উল্লেখ্য, জয়া আহসান এখন শুধু বাংলাদেশের নয় কলকাতারও একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। সদ্য মুক্তি প্রাপ্ত ছবি কৌশিক গাঙ্গুলির ‘বিজয়া’ তে তার কাজ সকলকে মুগ্ধ করেছে। মুক্তির পথে আছে নন্দিতা দাস ও শিবপ্রসাদের ‘কন্ঠ’। এছাড়াও জয়ার প্রত্যেকটা কাজই দর্শকের খুব পছন্দ।

joya-1.jpg

প্রেমের সময় নেই, তাহলে কি বিয়ের কথা ভাবছেন না অভিনেত্রী? পছন্দের কেউ কি তবে নেই? প্রতিবেদকের এমন প্রশ্নের জবাবে জয়া বলেন, ‘এখন পর্যন্ত না। বিয়ের পরেও করা যাবে। এত দ্রুত আমি ঘরোয়া পরিবেশে নিজেকে বন্দী করতে চাচ্ছি না। আমি আরও কাজ করতে চাই। পরিবার থেকে অবশ্য বিয়ের চাপ আসছে। কিন্তু আমি না শোনার ভান করে বসে থাকি।’

তিনি তার জীবনসঙ্গীর কাছে কী কী গুণ আশা করেন? জয়া বললেন, ‘আমি চেহারাকে এত গুরুত্ব দেই না। আমার জীবনসঙ্গীকে অবশ্যই বিচক্ষণ, অনুভূতিশীল এবং প্রতিশ্রুতিশীল মানুষ হতে হবে। একজন সৃজনশীল ব্যক্তিকে কদর করার মতো মন-মানসিকতা থাকতে হবে তার।’

বাংলাদেশ ও কলকাতায় সমান তালে কাজ করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। গত ১৫ মার্চ ভারতের প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বিনোদন ও লাইফস্টাইল ভিত্তিক ম্যাগাজিন ‘ইনডালজ’ এ জয়াকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনে তার ব্যক্তিগত জীবনের কথাও উঠে এসেছে।

সম্প্রতি জয়া শেষ করেছেন ‘বিনি সুতোয়’ ছবির কাজ। এতে তার বিপরীতে আছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। ছবিটির ডাবিং বাকি। এ জন্য ক’দিন পর তিনি যাবেন কলকাতা। গত কয়েক দিন আগে জয়া আহসান অভিনীত ‘বিউটি সার্কাস’-এর ফার্স্টলুক প্রকাশ পেয়েছে। এতে সার্কাসকন্যা ‘বিউটি’ রূপে জয়ার প্রথম ঝলকই ইতোমধ্যে সাড়া ফেলেছে।

joya-ahsan-bg-20180429070029.jpg

বাংলা চলচ্চিত্র হিসেবে ২০১৬ সালে শ্রেষ্ঠ ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিল ‘বিসর্জন’; যে ছবিতে প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন জয়া আহসান। ২০১৭ সালে একই বিভাগে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিল ‘ময়ূরাক্ষী’; যে ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন অতনু ঘোষ।

এবার সেই অতনু ঘোষের পরিচালনা এবং তারই লেখা নতুন ছবি ‘বিনি সুতোয়’ এ অভিনয় করতে যাচ্ছেন জয়া আহসান। এবার শুধু অভিনয়েই থেকে থাকবেন না জয়া বরং অভিনয়ের পাশাপাশি ছবির জন্য গানও গাইবেন জয়া।

‘বিনি সুতোয়’ শিরোনামের ছবিটিতে প্রথমবারের মতো জয়ার সাথে অভিনিয় করবেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। আসছে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে কলকাতা এবং টাকিতে এ ছবির শুটিং শুরু হচ্ছে।

সিনেমার জন্য গানগুলো তৈরি করছেন দেবজ্যোতি মিশ্র। সবকিছু ঠিক থাকলে এ বছরই মুক্তি পাবে ‘বিনি সুতোয়’।

joya-ahsan-bg-20180429070029.jpg

দুই বাংলায় জনপ্রিয় বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া জানিয়েছেন, অনুমতি পেলে তিনি ভারতেরও নাগরিকত্ব নিতে চান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

সাক্ষাৎকারে উপস্থাপিকা জয়াকে দ্বৈত নাগরিকত্ব চান কি না প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, সেই সুযোগটা তো নেই। যদি সম্ভব হতো আমি অবশ্যই নিতাম। কিন্তু ভারতবর্ষ সেটা অনুমতি করছে না। আসলে আমি দুটি বা একটি পাসপোর্ট বহন করি না কেন, আমি মনে প্রাণে বাংলার মানুষ।

তবে ভারতের নাগরিকত্ব না পেলেও কোন অসুবিধা নেই জাইয়ে জয়া বলেন, দুই বাংলাকেই আমি মনে-প্রাণে ভালোবাসি।

ভারতের প্রেক্ষাগৃহে চলছে জয়া অভিনীত কলকাতার চলচ্চিত্র ‘বিজয়া’। এ ছবিটি জয়ার ‘বিসর্জন’ ছবির সিকুয়্যেল। সাফটা চুক্তির আওতায় আজ থেকে ‘বিসর্জন’ চলছে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত ‘বিজয়া’ ছবিতে অভিনয় করেছেন আবীর চ্যাটার্জী ও পরিচালক নিজে।