লিখিত পরীক্ষা Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

national33.jpg

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আগামী ২৪ মে থেকে অনুষ্ঠেয় সব লিখিত পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুর ২টায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই দফতরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. ফয়জুল করিম জানান, কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। সব লিখিত পরীক্ষার সংশোধিত সময়সূচি পরে সবাইকে জানানো হবে।

উল্লেখ্য, ২৪ মে থেকে অনুষ্ঠেয় অনার্স চতুর্থ বর্ষের মৌখিক পরীক্ষা অন-লাইনে জুম অ্যাপের (ZOOM APP) মাধ্যমে পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

SSC_3.jpg

অনলাইনে সর্বোচ্চ এমসিকিউ পরীক্ষা নেয়া সম্ভব। রচনামূলক সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ। শনিবার মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা আরো বৈঠক করে বিকল্প উপায়ে পড়ালেখা চালুর বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পরামর্শ পাঠাবো।

এদিকে দীর্ঘ ১৩ মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এই সময় হয়নি একাধিক পাবলিক পরীক্ষা। এমন পরিস্থিতিতে এসএসসি-এইচএসসিসহ পাবলিক পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়া যায় কি-না এর জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় দুটি কমিটি করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা ক্লাস করিয়েই নিতে চাই। সে লক্ষ্যে পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করা হয়েছে। কিন্তু করোনার কারণে আজকের সিদ্ধান্ত হয়তো কাল বদলাতে হচ্ছে। ফলে কবে পরীক্ষা নিতে পারব, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। করোনা পরিস্থিতির দিকেই আমরা তাকিয়ে আছি।

জানা গেছে, এবারের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাসহ সব শ্রেণির ক্লাস-পরীক্ষা নিয়েই অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। ফলে বিকল্প উপায় খুঁজতে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি কমিটি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তারা এ বিষয়ে করণীয় ঠিক করবেন।

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি এবং ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে এসএসসির জন্য ৬০ কর্মদিবস এবং এইচএসসির জন্য ৮৪ কর্মদিবসের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করা হয়েছিল। এ ক্লাস করিয়ে দুই সপ্তাহ সময় দিয়ে দুটি পাবলিক পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে ২২ মে পর্যন্ত ছুটি বাড়ানোয় ক্লাস-পরীক্ষা নেওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে নেহাল আহমেদ বলেন, আমরা দুটি ভার্চুয়াল বৈঠক করেছি। অন্যান্য দেশে কী উপায়ে পড়ালেখা চলছে, কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে তা পর্যালোচনা করছি। কোনো দেশই করোনার সময়ে সরাসরি পাবলিক পরীক্ষা নেয়নি।

bar-council.jpg

আগামী ১৯ ডিসেম্বর আইনজীবী তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে বার কাউন্সিলের এনরোলমেন্ট কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বার কাউন্সিলের সচিব রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর এ লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েট পরীক্ষার জন্য ভেন্যু না দেওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আগে শুধু মৌখিক পরীক্ষার (ভাইভা) মাধ্যমে আইনজীবীদের সনদ দেওয়া হতো।

তবে শিক্ষার্থীদের চাপ বাড়তে থাকায় আইনজীবী হতে হলে এখন নৈর্ব্যক্তিক, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হয়।

আবার ওই তিন ধাপের যেকোনো একটি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা একবার উত্তীর্ণ হলে পরে পরীক্ষায় তারা দ্বিতীয় ও শেষবারের মতো অংশ নেওয়ার সুযোগ পান।

দ্বিতীয়বারও অনুত্তীর্ণ হলে তাদের শুরু থেকেই পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। সে অনুসারে ২০১৭ সালের ৩৪ হাজার শিক্ষর্থীর মধ্যে থেকে লিখিত পরীক্ষায় দ্বিতীয় ও শেষবারের মতো বাদ পড়া ৩ হাজার ৫৯০ শিক্ষার্থী এবং ২০২০ সালে প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষানবিশ আইনজীবীর মধ্যে এমসিকিউ উত্তীর্ণ ৮ হাজার ৭৬৪ শিক্ষার্থীসহ মোট ১২ হাজার ৮৫৮ জন সনদ প্রত্যাশী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবেন।

bb6.jpg

বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে থাকা তিন ব্যাংকের ‘অফিসার (ক্যাশ) পদে সরাসরি নিয়োগের উদ্দেশ্যে এমসিকিউ টেস্ট এ উত্তীর্ণ প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের সময়সূচী পরিবর্তন করা হয়েছে। ব্যাংকগুলো হল: সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ও বাংলাদেশ ডেভেলমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড।

মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কমিউনিকেশন্স এন্ড পাবলিকেশন্সের মহাব্যবস্থাপক জি. এম. আবুল কালাম আজাদের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞতির মাধ্যমে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রেস বিজ্ঞতিতে বলা হয়েছে, ‘অফিসার (ক্যাশ)’ পদের লিখিত পরীক্ষা আগামী ০৯/১১/২০১৮ তারিখের পরিবর্তে ১৬/১১/২০১৮ তারিখ রোজ শুক্রবার বিকাল ৩.০০-৫.০০ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হবে’