শিক্ষাবৃত্তি Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

Subia-Parveen.jpg

দিল্লির দরিদ্র বৈদ্যুতিক মিস্ত্রীর মেয়ে, মেধাবী সুবিয়া পারভীন; বৃত্তি হিসাবে পাচ্ছেন ২৮ হাজার মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৪ লাখ টাকার সমান। সুবিয়া পারভীন ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির জামিয়া সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

তার এমন অর্জন নিয়ে স্থানীয়ভাবে যেন উৎসবের জোয়ার এসেছে। সুবিয়া দরিদ্র ইলেক্ট্রেসিয়ান কালিমুদ্দিন আহমেদের ছোট মেয়ে। ছোট থেকেই সে খুব মেধাবী। এবছর সে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে। তার আশা মাধ্যমিকে সে প্রথম হবে। এর আগেও সে স্কুলে ও স্কুলের বাইরের বিভিন্ন শিক্ষা মূলক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে অনেক পুরস্কার জিতেছে। ভবিষ্যতে সে একজন সফল বিজ্ঞানী হতে চায়।

ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দিল্লির জামিয়া সিনিয়র মাধ্যমিক স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সুবিয়া পারভীন। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতা ও অর্থায়নে পরিচালিত ‘কেনেডি-লুগার ইয়ুথ একচেঞ্জ অ্যান্ড স্টাডি’ (ওয়াইইএস) স্কলারশিপের জন্য মনোনীত হয়েছে সুবিয়া।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দশ মাস মেয়াদী ওই স্কলারশিপের আওতায় শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সুবিয়াকে ২৮ হাজার মার্কিন ডলার দেয়া হবে। আর এই প্রোগ্রামের মেয়াদ চলতি বছরের আগস্টে শুরু হয়ে শেষ হবে ২০২০ সালের জুনে।

সুবিয়ার বাবার নাম কলিম উদ্দিন আহমেদ। তিনি দিল্লির জামিয়া এলাকায় বৈদ্যুতিক মিস্ত্রীর কাজ করেন। সুবিয়া ছোট থেকেই জামিয়া স্কুলে পড়ছে। মেধাবী শিক্ষার্থী হিসেবে তার খুব নাম আছে স্কুলে। চলতি বছরে দশম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষায় বসবে সে।

তার শিক্ষকরা জানালেন, বোর্ড পরিক্ষায় নিশ্চিতভাবেই মেধা তালিকার শীর্ষে থাকবে তার নাম। তা ছাড়া শুধু ভালো ছাত্রী নয় স্কুলে কিংবা স্কুলের বাইরে বিভিন্ন শিক্ষা ও সহশিক্ষা প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বেশ কিছু পুরস্কারও অর্জন করেছে সুবিয়া। সে ভবিষ্যতে বিজ্ঞানী হতে চায়।

তার স্কুলের রেজিস্ট্রার এ পি সিদ্দিকি এমন অর্জনের জন্য সুবিয়াকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘ইয়ুথ একচেঞ্জ অ্যান্ড স্টাডি প্রোগ্রামের নির্বাচন প্রক্রিয়া খুব প্রতিযোগিতামূলক। আর এত প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে মনোনীত হওয়ার এই মুহূর্ত সুবিয়া ও আমাদের স্কুলের জন্য গর্বের ব্যাপার।’

scholarship.jpg

২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের জন্য ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় হাই কমিশন ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) শিক্ষাবৃত্তি ঘোষণা করছে। মেধাবী বাংলাদেশি নাগরিকদের একমাত্র চিকিৎসাশাস্ত্র ছাড়া অন্য সব বিষয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি পর্যায়ে পড়াশোনা করার জন্য এই শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়ে থাকে। ভারত সরকার এ পর্যন্ত প্রায় ৩৫০০-এর বেশি বাংলাদেশি নাগরিককে আইসিসিআর শিক্ষাবৃত্তি দিয়েছে

২. বৃত্তি পেতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের ইংরেজি ভাষায় দক্ষ হতে হবে এবং পাশকৃত পরীক্ষায় ন্যূনতম ৬০ শতাংশ নম্বর অথবা জিপিএ ৫ এর মধ্যে ৩/জিপিএ ৪ এর মধ্যে ২.৫০ থাকতে হবে। আগ্রহী শিক্ষার্থীদের অনলাইনে আবেদন করার জন্য আইসিসিআর একটি বিশেষ পোর্টাল (http://a2ascholarships.iccr.gov.in/home) তৈরি করেছে, যেখানে শিক্ষার্থীদের নিজেদের ব্যক্তিগত লগইন আইডি ও পাসওয়ার্ড তৈরি করে নিতে হবে।

আবেদনকারীদের নির্দেশনাগুলো সতর্কতার সাথে পড়ে অনলাইনে আবেদন করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। অনলাইনে আবেদনের সময় আবেদনকারীকে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখতে হবে:

ক) যারা BE/B Tech. কোর্সের জন্য আবেদন করবেন তাদের স্কুল-কলেজের পাঠ্যসূচিতে অবশ্যই পদার্থবিদ্যা, গণিত ও রসায়ন অন্তর্ভুক্ত থাকতে হবে।

খ) আবেদনকারীর বয়স অবশ্যই জুলাই ২০১৯ এর মধ্যে ১৮ হতে হবে।

গ) আইসিসিআর এর নিয়ম অনুসারে, সব শিক্ষার্থীকে হোস্টেলে থাকতে হবে। এমনকি পারিবারিক ও স্বাস্থ্যসংক্রান্ত কারণেও বাইরে থাকার অনুমতি দেওয়া হবে না।

ঘ) শিক্ষার্থীদের শুধু একবার আবেদন করতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। কোনো শিক্ষার্থী একাধিকবার আবেদন করলে তার আবেদন সরাসরি বাতিল বলে গণ্য করা হবে।

ঙ) এম. ফিল/ডক্টরাল/পোস্ট-ডক্টরাল কোর্সের জন্য আবেদনকারীদের আবেদনপত্রের সাথে গবেষণার সারাংশ জমা দিতে হবে।

চ) শিল্পকলা অথবা চারুকলা বিষয়ে আবেদনকারীদের আবেদন করার সময় তাদের শিল্পকর্মের সর্বশেষ ভিডিও, অডিও, ইউটিউব লিঙ্ক বা পোর্টফোলিও আপলোড করতে হবে।

ছ) আবেদনকারীদের তাদের একটি রঙিন ছবি (মুখের সম্মুখভাগের, চশমাছাড়া) আপলোড করতে হবে।

৩. অনলাইনে (http://a2ascholarships.iccr.gov.in/home) আবেদন জমা দেওয়ার শেষ সময় ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

৪. যোগ্য প্রার্থীদের ৩০ মিনিটের ইংরেজিতে দক্ষতা যাচাইয়ে অংশ নিতে হবে যার সময় ও স্থান পরে জানিয়ে দেওয়া হবে।

৫. বিস্তারিত তথ্যের জন্য অনুগ্রহপূর্বক শিক্ষা শাখা, ভারতীয় হাই কমিশন, প্লট নং : ১-৩, পার্ক রোড, বারিধারা, ঢাকা; ফোন- ৫৫০৬৭৩০১-৫৫০৬৭৩০৮ এক্সটেনশন- ১০৯৬/১১১২; ই-মেইল : [email protected] এই ঠিকানায় যোগাযোগ করুন।