সোনার দাম Archives - 24/7 Latest bangla news | Latest world news | Sports news photo video live

gold222.jpg

বিশ্ববাজারে দাম বাড়তে থাকায় বাংলাদেশেও আবার সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস)। এ দফায় নতুন করে ভরিতে সোনার দাম বাড়ছে ২ হাজার ৪১ টাকা। সে হিসেবে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম বেড়ে হতে যাচ্ছে ৭৩ হাজার ৪৮৪ টাকা।

রোববার (২৩ মে) থেকে এ দাম কার্যকর হতে পারে বলে নিশ্চিত করেছে বাজুস।

এরআগে করোনা মহামারিতে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকার কারণ দেখিয়ে ঈদের ঠিক আগ মুহূর্তে বাড়ানো হয় সোনার দাম। সে দফায় ভরিতে ২ হাজার ৩৩৩ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। ১০ মে দুপুর থেকে সোনার এ নতুন দর কার্যকর করার ঘোষণা দিয়েছিল বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি।

দাম বাড়ার মাধ্যমে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ৭১ হাজার ৪৪৩ টাকা, ২১ ক্যারেটের সোনা ৬৮ হাজার ২৯৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের সোনা ৫৯ হাজার ৫৪৪ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি সোনা ৪৯ হাজার ২২ টাকা নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে এই দামেই দেশের বাজারে সোনা বিক্রি হচ্ছে।

সে সময় নতুন করে সোনার দাম বাড়ার কারণ হিসেবে সমিতি জানিয়েছিল, করোনার কারণে বিশ্ববাজারে সোনার দাম বেড়ে প্রতি আউন্স (৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম) ১ হাজার ৮৩০ মার্কিন ডলার হয়েছে। বন্ধ রয়েছে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। ফলে আমদানি পর্যায়ে শুল্ক জটিলতার কারণে চাহিদার বিপরীতে সোনা আমদানি করতে পারছেন না ডিলাররা। সে কারণে দাম বেড়েছে।

Gold.jpg

আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম কমায় দেশের বাজারেও ধাতুটির দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। প্রতি ভরিতে ২ হাজার ৪১ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে বাজুস। সোনার নতুন এ দাম বুধবার (১০ মার্চ) থেকে কার্যকর হবে।

এর আগে শুধু ফেব্রুয়ারি মাসেই বিশ্ববাজারে সোনার দাম কমেছে ৫ দশমিক ৯৪ শতাংশ। বিশ্ববাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারেও দাম কমিয়ে থাকে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

Gold-1.jpg

ভারতের বাজারে গত বছরের আগস্ট মাসে প্রতি ভরি সোনার দাম উঠেছিল ৫৬ হাজার রুপি। আর সেই সোনার দাম কমতে কমতে এসে তলানিতে ঠেকেছে। ৬ থেকে ৭ মাসের ব্যবধানে ১০ হাজার রুপি কমে ৪৬ হাজার রুপিতে দাঁড়িয়েছে প্রতি ভরি সোনার দাম।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রে সোনায় বিনিয়োগ কমতে শুরু করেছে। বন্ডের ক্ষেত্রে সুদের হার বৃদ্ধি এর বড় কারণ। ফলে ক্রেতারা স্বর্ণ ছেড়ে বন্ড কেনাতেই প্রাধান্য দিচ্ছেন।

আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে সোনার দাম ১ হাজার ৭১৯ ডলার প্রতি আউন্স, ২৬ দশমিক শূন্য ৮ ডলার রুপার দাম।

উল্লেখ্য, গত বছরের জানুয়ারিতে প্রতি ১০ গ্রামের হিসাবে সোনার দাম ৪০ হাজারের কাছাকাছি ছিল। সেখানে ৫৬ হাজার রুপিতে পৌঁছায় মার্চ থেকে বাড়তে বাড়তে আগস্ট পর্যন্ত। এরপরই শুরু হয় দরপতন।

gold.jpeg

দেশে ভরিতে সোনার দাম কমেছে ১ হাজার ৫১৬ টাকা। আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম নিম্নমুখী থাকায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি।

বুধবার থেকে সারা দেশে কার্যকর হওয়া নতুন দামে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার অলংকার পাওয়া যাবে ৭১ হাজার ১৫০ টাকায়।

মঙ্গলবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি মারফতে জুয়েলার্স সমিতি সোনার দাম কমানোর সিদ্ধান্তটি জানায়।

এ ছাড়া নতুন সিদ্ধান্ত অনুসারে ২১ ক্যারেট ৬৮ হাজার ১ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৫৯ হাজার ২৫৩ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার অলংকারের ভরি বিক্রি হবে ৪৮ হাজার ৯৩০ টাকায়।

মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকা, ২১ ক্যারেট ৬৯ হাজার ৫১৭ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬০ হাজার ৭৬৯ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার অলংকার বিক্রি হয়েছে ৫০ হাজার ৪৪৭ টাকায়।

সর্বশেষ গত ১৩ জানুয়ারি প্রতি ভরি সোনার দাম প্রায় দুই হাজার টাকা কমিয়েছিল বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি। এ নিয়ে চলতি বছর টানা তৃতীয়বারের মতো সোনার দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে সোনার দাম কমলেও রুপার দাম অপরিবর্তিত রেখেছে জুয়েলার্স সমিতি। ২২ ক্যারেট রুপার ভরি আগের মতোই ১ হাজার ৫১৬ টাকায় বিক্রি হবে। ২১ ও ১৮ ক্যারেট রুপার ভরি যথাক্রমে ১ হাজার ৪৩৫ ও ১ হাজার ২২৫ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির রুপার ভরি ৯৩৩ টাকায় বিক্রি হবে।

Gold-1.jpg

বিশ্ব বাজারে সোনার দাম শুধু কমছেই। টানা দুই সপ্তাহ সোনার দামে বড় দরপতন অব্যাহত রয়েছে। ফলে গত আট মাসের মধ্যে সোনার দাম এখন নেমে এসেছে সর্বনিম্ন পর্যায়ে। শুধু সোনা নয়, দরপতন হয়েছে রূপারও। পাশাপাশি প্লাটিনামেরও বড় দরপতন হয়েছে।

গত এক সপ্তাহে সোনার দাম কমেছে ২ দশমিক ৬৯ শতাংশ। রূপার দাম কমেছে ২ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ। অপরদিকে, প্লাটিনামের দাম কমেছে ৬ দশমিক ৭০ শতাংশ।

এর আগে, বিশ্ব বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে গত ১৩ জানুয়ারি থেকে দেশের বাজারে সোনার দাম কমায় বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

গত ১২ জানুয়ারি বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি (বাজুস) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বাজুস নির্ধারিত নতুন মূল্য তালিকায় দেখা যায়, ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম নির্ধারণ করা হয় ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকা।

২১ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম ধরা হয় ৬৯ হাজার ৫১৭ টাকা। একইভাবে ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম ধরা হয় ৬০ হাজার ৭৬৯ টাকা। সনাতন পদ্ধতিতে সোনার প্রতি ভরির দাম ধরা হয় ৫০ হাজার ৪৪৭ টাকা।

gold.jpeg

দেশের বাজারে আবারও বাড়তে যাচ্ছে সোনার অলংকারের দাম। তবে এবার আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে দামের সমন্বয় করার জন্য দাম বাড়ছে না।এবার বাড়ছে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ও মজুরিসহ সোনার অলংকারের দাম নির্ধারণ করার জন্য। এ বিষয়ে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি- বাজুস।

গত বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর একটি মিলনায়তনে দেশের সোনা ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন জুয়েলার্স সমিতির সভাপতি এনামুল হক খানের সভাপতিত্বে অতিরিক্ত সাধারণ সভা এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এসময়, সংগঠনটির সমিতির কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির সদস্য ও সাধারণ সোনা ব্যবসায়ীরা অংশ নেন। নতুন নিয়মে স্বর্ণালঙ্কারের দাম নির্ধারণের বিষয়ে চলতি মাসের মধ্যেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে বলেও জানিয়েছে সংগঠনটি।

সোনা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে প্রতিভরিতে সোনার দাম বাড়বে ৬ হাজার ৬শ’ টাকা।

তারা জানান, বর্তমানে দেশের বাজারে ২২ ক্যারেটের প্রতি গ্রাম সোনার দাম ৬ হাজার ২৩০ টাকা। এর সঙ্গে মজুরি বাবদ যোগ হবে আড়াইশ’ টাকা। অর্থাৎ মজুরিসহ এক গ্রাম সোনার অলংকারের দাম দাঁড়ায় ৬ হাজার ৪৮০ টাকা। এর ওপর ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট আসে ৩২৪ টাকা।

অর্থাৎ মজুরি ও ভ্যাটসহ এক গ্রাম সোনার অলংকারের দাম দাঁড়ায় ৬ হাজার ৮০৪ টাকা। এই হিসাবে (ভরি সমান ১১.৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকারের দাম পড়বে ৭৯ হাজার ৩৬১ টাকা। বর্তমানে দেশের বাজারে এক ভরি সোনার অলংকারের দাম ৭২ হাজার ৬৬৬ টাকা।

বাজুসের ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি এনামুল হক খান। সভায় বাজুসের কর্ম পরিকল্পনা তুলে ধরেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগারওয়ালা। এসময়, ভ্যাটের হার কমানো ও অসাধু ভ্যাট কর্মকর্তাদের দৌরাত্ম্য বন্ধ সরকারের হস্তক্ষেপ করেন বাজুস নেতারা।

goldd4.jpg

দেশের বাজারে সব ধরনের সোনার দাম ভরিতে কমল ১৯৮৩ টাকা। আর ২২ ক্যারেটের ভরি বুধবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে বিক্রি হবে ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকায়।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতি (বাজুস) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

নতুন দর অনুযায়ী, ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট সোনার অলংকারের ভরি দাঁড়াবে ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকা।

২১ ক্যারেটের এক ভরি সোনার অলংকার কিনতে লাগবে ৬৯ হাজার ৫১৭ টাকা।

এ ছাড়া ১৮ ক্যারেট ৬০ হাজার ৭৬৯ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার অলংকারের ভরি বিক্রি হবে ৫০ হাজার ৪৪৭ টাকায়।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি অলংকারের দাম ছিল ৭৪ হাজার ৬৫০ টাকা।

প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট ৭১ হাজার ৫০০ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৬২ হাজার ৭৫২ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনা বিক্রি হয়েছে ৫২ হাজার ৪৩০ টাকায়। কাল থেকে ২২, ২১, ১৮ ক্যারেট ও সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরিতে ১ হাজার ৯৮৩ টাকা কমছে।

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সোনার দাম কমানো হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত সব জুয়েলারি ব্যবসায়ীকে বাজুস নির্ধারিত মূল্য তালিকায় বিক্রির অনুরোধ করা হলো।

Gold-1.jpg

দেশের বাজারে সোনার দাম আবারও কমানো হয়েছে। মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে-বাজুস জানায়, আন্তর্জাতিক বাজারে ডলার ও জ্বালানি তেলের দরপতন এবং সোনার বাজারের ওঠানামা সত্ত্বেও দেশের বাজারের অচলাবস্থা কাটাতে সোনার দাম কমানো হয়েছে।

গেল সপ্তাহে প্রতি ভরিতে আড়াই হাজার টাকা কমানোর পর আবারও প্রায় ১২শ’ টাকা কমায় প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনার দাম পড়বে ৭২ হাজার ৬৭০ টাকা, ২১ ক্যারেট ৬৯ হাজার ৫০০ টাকা, আর ১৮ ক্যারেটের সোনা কিনতে গুণতে হবে ৫৯ হাজার ৮৪০ টাকা।

এছাড়া প্রতি ভরি সনাতনি সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ হাজার ৫০০ টাকা। সোনার নতুন দাম কার্যকর হবে বুধবার (০২ ডিসেম্বর) থেকে।

সোনার দাম পরিবর্তন করা হলেও, রুপা বিক্রি হবে আগের দামেই।

বাজুস দাম কমালেও বিশ্ববাজারে মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) প্রতি আউন্স সোনার দাম ৩৩ ডলার পর্যন্ত বাড়তে দেখা যায়।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায় আন্তর্জাতিক বাজারে আউন্স প্রতি সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৮১১ ডলার।

Gold-1.jpg

ভরিতে স্বর্ণের দাম দুই হাজার ৪৪৯ টাকা কমিয়ে নতুন মূল্য নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

ফলে দেশের বাজারে ভালো মানের স্বর্ণের ভরির দাম কমে ৭৪ হাজার আট টাকায় দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বাজুস। আজ বৃহস্পতিবার থেকে সোনার এ নতুন দর কার্যকর হবে।

বাজুসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের মূল্য কিছুটা হ্রাস পাওয়ায় ক্রেতা সাধারণের কথা চিন্তা করে বাজুসের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশের বাজারে স্বর্ণ ও রৌপ্য অলঙ্কারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আজ (২৪ সেপ্টেম্বর) থেকে ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম দুই হাজার ৪৪৯ টাকা কমিয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৪ হাজার ৮ টাকা।

২১ ক্যারেটের স্বর্ণ ভরি ৭০ হাজার ৮৫৯ টাকা, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ ভরি ৬২ হাজার ১১১ টাকা ও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫১ হাজার ৭৮৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।’

এর আগে মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রতি আউন্স সোনা বিক্রি হয়েছে ১৯০২.২৭ ডলারে; যা আগের দিনের তুলনায় ১০.৪৯ ডলার কম।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সোনার আন্তর্জাতিক বাজারে লেনদেন শেষ হয়েছিল ১৯১২.৭৬ ডলারে।

এদিন, বেশ বড় পতনের মুখে পড়েছিল সোনার দাম। একদিনেই প্রতি আউন্সে ৩৭.২৪ ডলার দাম কমেছিল সোনার দাম।

অর্থাৎ দেড় দিনেই ৪৭ ডলার কমেছে প্রতি আউন্স সোনার দাম।

সূত্র: বাজুস